লিডিং ইউনিভার্সিটিতে ইউএসএআইডি-এর আউটবক্সের আয়োজনে ‘ইউথ মিটিং’ অনুষ্ঠিত

,
প্রকাশিত : ০৮ সেপ্টেম্বর, ২০১৯     আপডেট : ২ বছর আগে
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  

সিলেট এক্সপ্রেস ডেস্ক: লিডিং ইউনিভার্সিটিতে ইউএসএআইডি অবিরোধ (টঝঅওউ’ং ঙইওজঙউঐ) -এর সহযোগিতায় ধর্মীয় সম্প্রীতি, যুব শক্তি ও বহুবচনবাদের ভিত্তিতে বৈচিত্র ও সহসশীলতা (উরাবৎংরঃু ্ ঞড়ষবৎধহপব নধংবফ ড়হ জবষরমরড়ঁং ঐধৎসড়হু, চড়বিৎ ্ চষঁৎধষরংস) বিষয়ক ইউথ মিটিং এ বক্তব্য রাখছেন মিস বাংলাদেশ ২০০৭ জান্নাতুল ফেরদৌস পিয়া।

সিলেটের প্রথম বেসরকারী বিশ্ববিদ্যালয় লিডিং ইউনিভার্সিটিতে ইউএসএআইডি অবিরোধ (টঝঅওউ’ং ঙইওজঙউঐ) -এর সহযোগিতায় ইউথ মিটিং অনুষ্ঠিত হয়েছে। রবিবার (০৯ সেপ্টেম্বর ২০১৯) সকাল ১১টায় বিশ্ববিদ্যালয়ের গ্যালারী-১ এ আউটবক্স লিমিটেডের আয়োজনে ‘সবাই ভিন্ন একসাথে অনন্য’ স্লোগানে ধর্মীয় সম্প্রীতি, যুব শক্তি ও বহুবচনবাদের ভিত্তিতে বৈচিত্র ও সহনশীলতা (উরাবৎংরঃু ্ ঞড়ষবৎধহপব নধংবফ ড়হ জবষরমরড়ঁং ঐধৎসড়হু, ণড়ঁঃয ঢ়ড়বিৎ ্ চষঁৎধষরংস) বিষয়ক ইউথ মিটিং অনুষ্ঠিত হয়। অনুষ্ঠানে প্রধান অতিথি হিসেবে লিডিং ইউনিভার্সিটির উপাচার্য প্রফেসর ড. মো. কামরুজ্জামান চৌধুরী এবং সেলিব্রেটি গেস্ট হিসেবে মিস বাংলাদেশ ২০০৭ জান্নাতুল ফেরদৌস পিয়া উপস্থিত ছিলেন।

ইউএসআইডি অবিরোধের মনিটরিং এন্ড ইভ্যালুয়েশন কর্মকর্তা এ. কে. এম. শওকাত ইসলাম এবং প্রজেক্ট কো-অরডিনেটর সাইদুল হক তানজিবের উপস্থাপনায় প্রধান অতিথির বক্তব্যে লিডিং ইউনিভার্সিটির উপাচার্য প্রফেসর ড. মো. কামরুজ্জামান চৌধুরী বলেন, ইউএসআইডি অবিরোধ ‘সবাই ভিন্ন একসাথে অনন্য’ এই স্লোগানের মাধ্যমে আজকের তরুনদেরকে একিভূত করে উন্নত বাংলাদেশ গড়ার অনেক ক্ষেত্র ও সুযোগ তৈরী করেছে। সমাজ, প্রকৃতি ও বৈচিত্রময় এ দেশের উন্নয়নকল্পে সবাইকে স্থান ও সুযোগ দিতে হবে। তিনি বলেন, তরুন এবং যুবকেরাই তাদের সৃষ্টিশীলতার মাধ্যমে আগামী প্রজন্মকে উদ্ভাসিত করবে। আজকের তরুনরা সোনার বাংলা গড়ার লক্ষ্যে একাত্ততা ও ভাতৃত্বতা সৃষ্টির মাধ্যমে বাংলাদেশকে বিশ্বের জন্য উদাহরণ হিসেবে পরিচিত করবে বলে তিনি আশাবাদ ব্যক্ত করেন।

সেলিব্রেটি গেস্ট মিস বাংলাদেশ ২০০৭ জান্নাতুল ফেরদৌস পিয়া বলেন, তরুনদেরকে চ্যালেঞ্জ নিয়ে কাজ করতে হবে। শত বাধা বিপত্তির মধ্যে দৃঢ়তার সাথে এগিয়ে যেতে হবে এবং মনে করতে হবে আমি পারব। তিনি উপস্থিত শিক্ষার্থীদের সাথে বিভিন্ন বিষয়ে মতবিনিময় করেন এবং উৎসাহ প্রদান করেন।

লিডিং ইউনিভার্সিটির সামাজিক বিজ্ঞান অনুষদের ডীন প্রফেসর মো. সামস-উল আলম জয়ের সভাপতিত্বে অনুষ্ঠানে আরও বক্তব্য রাখেন বিশ্ববিদ্যালয়ের পরীক্ষা নিয়ন্ত্রক ড. মোস্তাক আহমাদ দীন, আধুনিক বিজ্ঞান অনুষদের ডীন প্রফেসর ড. এম. রকিব উদ্দিন, কলা ও আধুনিক ভাষা অনুষদের ডীন প্রফেসর নাসির উদ্দিন আহমেদ, বিশ্ববিদ্যালয়ের
ভারপ্রাপ্ত প্রক্টর ও আইন বিভাগের বিভাগীয় প্রধান সহযোগী অধ্যাপক মো. রাশেদুল ইসলাম এবং লিডিং ইউনিভার্সিটির ইনস্টিটিউশনাল কোয়ালিটি অ্যাসিউরেন্স সেলের পরিচালক ও ইংরেজী বিভাগের বিভাগীয় প্রধান সহযোগী অধ্যাপক মো. রেজাউল করিম। অনুষ্ঠানের কো-পার্টনার ছিল লিডিং ইউনিভার্সিটির ডিবেটিং ক্লাব ও সোস্যাল সার্ভিসেস ক্লাব এবং মিডিয়া পার্টনার হিসেবে সহযোগিতা করেন এনটিভি, দৈনিক সমকাল এবং রেডিও ফুর্তি। স্বেচ্ছাসেবী হিসেবে ছিলেন লিডিং ইউনিভার্সিটির বি.এন.সি.সি. এর সদস্যবৃন্দ।

 


  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  

পরবর্তী খবর পড়ুন : মিনতি

আরও পড়ুন

মানবিক গুণাবলী সম্পন্ন মানুষ হলেই সমাজ ও দেশকে পরিবর্তন সম্ভব

        মো. আব্দুল বাছিত: বাংলাদেশ বিশ্ববিদ্যালয়...

বিএনপি নির্বাচনে নাও আসতে পারে : এরশাদ

        জাতীয় পার্টির চেয়ারম্যান ও সাবেক...

রাসেলের মায়ের উপর হামলায় মহানগর স্বেচ্ছাসেবক লীগের নিন্দা

        সিলেট এক্সপ্রেস ডেস্ক বীর মুক্তিযোদ্ধা...