লন্ডনে কবি নাজমুল ইসলাম মকবুল’র গানের বই নিয়ে তেতুল আড্ডা

প্রকাশিত : ০১ অক্টোবর, ২০১৮     আপডেট : ২ বছর আগে

সিলেট এক্সপ্রেস ডেস্ক: লন্ডনে সম্মিলিত সাংস্কৃতিক পরিষদ ইউকের আয়োজনে দুইদিন ব্যাপী বইমেলায় সিলেট লেখক ফোরাম সভাপতি গীতিকার কবি নাজমুল ইসলাম মকবুল’র সিলেটের আঞ্চলিকসহ ১০১টি গানের ২য় সঙ্গীতগ্রন্থ ‘‘তেতুল’’ নিয়ে অনুষ্ঠিত হয় মেলায় আগত লেখক কবি সাংবাদিক সাহিত্যিক শিল্পী সংস্কৃতিকর্মী ও গুণীজনদের তেতুল আড্ডা।

লন্ডনের খ্যাতিমান সাংস্কৃতিক ব্যক্তিত্ব আবৃত্তিকার মহিব চৌধুরীর বিশেষ ব্যবস্থাপনায় ২৩ ও ২৪ সেপ্টেম্বর লন্ডনের হ্যানব্যারি স্ট্রিটস্থ ব্রাডি আর্ট সেন্টারে বই মেলা প্রাঙ্গনে আয়োজিত আড্ডায় সঙ্গীতগ্রন্থ থেকে আবৃত্তি, বই প্রদর্শণী ও আড্ডায় অংশগ্রহণ করেন বাংলাদেশের জাতীয় পুরস্কারপ্রাপ্ত লন্ডনের খ্যাতিমান লেখক সাংবাদিক মুক্তিযোদ্ধা ইসহাক কাজল, প্রবীণ সাংবাদিক কলামিস্ট নজরুল ইসলাম বাসন, কবি কাজল রশিদ, কবি এম মোসাইদ খান, কবি এ,কে,এম আব্দুল্লাহ, কবি ও প্রকাশক আদিত্য অন্তর, কবি শেখ শামসুল ইসলাম, আবৃত্তিকার মোস্তফা জামান নিপুন, কবি আবু মকসুদ, লেখক কবি গুলশান আরা রুবি, আবৃত্তিকার স্মৃতি আজাদ, সাইদা চৌধুরীসহ যুক্তরাজ্যে অবস্থানরতো লেখক কবি সাংবাদিক সাহিত্যিক সমাজসেবী শিল্পী সংস্কৃতিকর্মী ও গুণীজনরা।

অনুষ্ঠানে অনুভূতি ব্যক্ত করতে গিয়ে গুণীজনরা বলেন, সিলেট লেখক ফোরাম সভাপতি গীতিকার কবি নাজমুল ইসলাম মকবুল’র প্রথম অডিও অ্যালবাম ‘‘আমরা ঘরর তাইন’’ এর মোড়ক উন্মোচন অনুষ্ঠিত হয়েছিল ৮ সেপ্টেম্বর ২০১৪ তে পুর্ব লন্ডনের একটি অভিজাত রেস্টুরেন্টের কনফারেন্স হলে। অনুষ্ঠানটি লেখক কবি সাংবাদিক সাহিত্যিক জনপ্রতিনিধি রাজনীতিবিদ সমাজসেবীসহ প্রবাসীদের মিলনমেলায় পরিণত হয়েছিল।

বর্তমানে কবি নাজমুল দুই দুইটি সঙ্গীতগ্রন্থ ও সাত সাতটি অ্যালবামের জনক, যেগুলির বেশিরভাগ গানই সিলেটের আঞ্চলিক ভাষায় রচিত। আলোচ্য গ্রন্থের ১০১টি গানের মধ্যে ৪৮টি গানই সিলেটের আঞ্চলিক ভাষায় লেখা। লেখকের আরও বেশ কয়েকটি গ্রন্থ এবং অ্যালবামের কাজ চলছে বলে আমরা জানতে পেরেছি। সেগুলি আছে প্রকাশের অপেক্ষায়। তাঁর লেখা অনেকগুলি গান ও পূঁথি দেশে বিদেশে ব্যাপক জনপ্রিয়তা অর্জন করেছে এবং মানুষের মুখে মুখে উচ্চারিত হচ্ছে। লেখকের লেখনির মাধ্যমে সমাজের অসংগতি ও লুটেরা দুর্নীতিবাজ চাটুকার ধান্দাবাজ জুলুমবাজ আমরা ঘরর তাইনদের মুখোশ উন্মোচিত হচ্ছে ভিন্ন ধারায়, ভিন্ন আঙ্গিকে। ভবিষ্যতে আরও উন্মোচন হবে বলে আমরা আশাবাদি। জুলুমবাজদের মুখোশ গানের মাধ্যমে উন্মোচন করায় চাটুকাররা ক্ষিপ্ত হয়ে লেখককে হত্যার জন্য রাতের আধারে লেখকের বাড়ীতে হানা দিয়েছিল এবং লেখকের উপর বিভিন্ন সময়ে আক্রমন চালানোর চেষ্টা করেছিল। কিন্তু সৎ পথে থাকলে ও সততার মাধ্যমে সমাজের উপকার করলে মহান আল্লাহর সাহায্য থাকে। বিবেকবানদের সহযোগিতা থাকে। এক্ষেত্রে আমাদের পক্ষ থেকে সব ধরনের সহযোগিতা অব্যাহত থাকবে। বাংলাদেশ থেকে টেলিকনফারেন্সে যোগ দেন গ্রন্থের লেখক গীতিকার কবি নাজমুল ইসলাম মকবুল।

বক্তব্যে তিনি বইমেলার আয়োজকদের পাশাপাশি মেলায় আগত লেখক কবি সাংবাদিক সাহিত্যিক শিল্পী সংস্কৃতিকর্মী ও গুণীজনদের অভিনন্দন জানান। তিনি এ ধরনের মেলা যুক্তরাজ্যের মাটিতে প্রতি বছর আয়োজনের অনুরোধ জানিয়ে বলেন, আপনারাই বিদেশের মাটিতে বাংলাদেশের গৌরবগাঁথা, বাংলাদেশের সুনাম সুখ্যাতি আন্তর্জাতিক পরিমন্ডলে তুলে ধরছেন। এজন্য আমরা গর্ববোধ করি। আপনারা আমাদের সুর্যসন্তান। তিনি তাঁর গানের বই নিয়ে চমৎকার আড্ডার আয়োজনের জন্য লন্ডনের খ্যাতিমান সাংস্কৃতিক ব্যক্তিত্ব আবৃত্তিকার কবি মহিব চৌধুরী, কবি এম মসাইদ খানসহ সংশ্লিষ্ট সকলের প্রতি কৃতজ্ঞতা জানান এবং তাঁর গ্রন্থ ও অ্যালবামগুলিতে যারা স্পন্সর করেছেন তাদের অবদানের কথা শ্রদ্ধার সাথে স্মরণ করে সকলকে অভিনন্দন জানান।

পরবর্তী খবর পড়ুন : ভাঙাচোরা সংসার!!

আরও পড়ুন

মহানগর বিএনপি মিলাদ ও দোয়া মাহফিল বুধবার

সিলেট এক্সপ্রেস ডেস্ক : বাংলাদেশ জাতীয়তাবাদী...

নাসা স্পেস অ্যাপস চ্যালেঞ্জ ২০১৯-এ চ্যাম্পিয়ন মেট্রোপলিটন ইউনিভার্সিটি

সিলেট এক্সপ্রেস ডেস্ক:ক্তরাষ্ট্রের মহাকাশ গবেষণাকারী...