রোটাবর্ষে করোনায় সহায়তাসহ নানা উদ্যোগ বাস্তবায়ন করবে- গভর্নর ড. বেলাল

প্রকাশিত : ০১ জুলাই, ২০২০     আপডেট : ১ মাস আগে

করোনাকালীন সময়ে খাদ্য ও চিকিৎসা সহায়তাসহ নানা উদ্যোগ ও প্রকল্প বাস্তবায়ন করবে রোটারি আন্তর্জাতিক জেলা ৩২৮২।

জণগনের পাশে থাকার প্রত্যয় নিয়ে অতীতের ন্যায় এবারও নানা কার্যক্রম বাস্তবায়ন করবে সংগঠনটি। ইতোমধ্যে বিভিন্ন কর্মসূচিও বাস্তবায়ন করা হয়েছে।

বুধবার রোটারী বর্ষ ২০২০-২০২১ শুরু উপলক্ষ্যে সিলেট নগরীর একটি হোটেলে আয়োজিত সংবাদ সম্মেলনে এসব তথ্য জানান রোটারি আন্তর্জাতিক জেলা ৩২৮২ এর নতুন গভর্ণর ড. বেলাল উদ্দিন আহমদ।

লিখিত বক্তব্যে তিনি জানান, প্রতি বছর ১ জুলাই থেকে সারা বিশ্বে রোটারি বর্ষ শুরু হয়। ঐদিন বিশ্বের সকল ক্লাবের সভাপতির পরিবর্তন ঘটে এবং নতুন সভাপতি দায়িত্বভার গ্রহণ করেন।

তিনি জানান, বর্তমানে বিশ্বের ২৩২টি দেশে ৩৪ হাজার রোটারি ক্লাবের উদ্যোগে ১২ লক্ষাধিক রোটারিয়ান মানবতার সেবায় কাজ করছেন। বাংলাদেশে দুটি আন্তর্জাতিক জেলা ৩২৮১ ও ৩২৮২ এর মাধ্যমে ৩৮৩ ক্লাবের অধীনে ১০ হাজার রোটারিয়ান মানবতার কল্যানে কাজ করছেন।

অতীতে পোলিও নামক অভিশাপ নির্মূলসহ জেলা ৩২৮২ এর বিভিন্ন উদ্যোগ বাস্তবায়নের কথা জানিয়ে নতুন গভর্নর ড. বেলাল নতুন বর্ষে গ্রহন করা নানা উদ্যোগের বাস্তবায়নের প্রতিশ্রুতি দেন।

তিনি জানান, নতুন রোটাবর্ষে পরিবেশ সুরক্ষায় বৃক্ষ রোপন, রোটারি মিশন গ্রিন ও রোটারি স্বাস্থ্যসেবা কার্যক্রম গ্রহন করা হয়েছে। ইতোমধ্যে করোনাকালীন সময়ে ৫ হাজার পিপিই বিতরণ, নগদ টাকাসহ প্রায় ২০ লাখ টাকার খাদ্য সামগ্রি বিতরণ করা হয়েছে। স্বাস্থ্যসেবার অধীনে বিভিন্ন ক্যাম্পেইন অব্যাহত থাকবে।

রোটারি ফাউন্ডেশনের প্রজেক্টের কথা উল্লেখ করে তিনি বলেন, ৩০টি রোটিারি ক্লাবের মাধ্যমে বিনামূল্যে পানীয় জল ও শৌচাগার, প্রত্যন্ত অঞ্চলে চিকিৎসাসেবা, ফ্রি কম্পিউটার ও ফ্রিল্যান্সিং প্রশিক্ষণ, অসহায় ও বিধবাদের গৃহায়ন ব্যবস্থা ও প্রতিবন্ধীদের কল্যানে কাজ করা হবে।

ড. বেলাল নতুন বছরে বিভিন্ন কার্যক্রমের কথা তুলে ধরে জানান, রোটারি আন্তর্জাতিক জেলা ৩২৮২ নিরাপদ সড়কের জন্য চালকদের প্রশিক্ষণ ও ট্রাফিক আইন অনুস্বরণে কাজ করবে। এছাড়া মেধাবী ও গরীব শিক্ষার্থীদের বৃত্তি প্রদান, প্রান্তিক কৃষকদের সেচ যন্ত্রপাতি, ১০জন প্রতিবন্ধীকে হুইল চেয়ার ও কৃত্রিম অঙ্গ প্রদানসহ বিভিন্ন কার্যক্রম বাস্তবায়ন করবে।

এক প্রশ্নের জবাবে তিনি জানান, রোটারি বর্ষে গ্রহন করা উদ্যোগ শতভাগই বাস্তবায়ন করা হয়। কোনো কারণে বাস্তবায়ন সম্ভব না হলে নতুন বর্ষে নতুন দায়িত্বশীলরা বাস্তবায়ন করেন।

তিনি মানবসেবায় নতুন বছরে নতুন সুযোগ সৃষ্টি করে দৃষ্টান্ত স্থাপনে সকলের সহযোগিতা চেয়েছেন।

রোটারি ক্লাব অব মেট্রোপলিটন সিলেটের প্রেসিডেন্ট রেহান উদ্দিন রায়হানের পরিচালনায় সংবাদ সম্মেলনে বক্তব্য দেন- ডিস্ট্রিক্ট ট্রেইনার পিজিডি শহীদ আহমদ চৌধুরী, ডিস্ট্রিক্ট সেক্রেটারি পিপি আহমদ রেজাউল করিম জুবায়ের, এক্সিকিউটিভ সেক্রেটারি পিপি ফরিদ উদ্দিন রিয়াদ, এডিশনাল লে.গভর্নর পিপি ড. তোফায়েল আহমদ প্রমুখ।

আরও পড়ুন

খুলে দেয়া হয়েছে ঐতিহাসিক কিন ব্রিজ

প্রায় দুই মাস বন্ধ থাকার...

রমজানের পবিত্রতা রক্ষা করা মুসলমানের ঈমানী দায়িত্ব

সিলেট এক্সপ্রেস ডেস্ক: জমিয়তে উলামায়ে...

নিসচা সিলেট মহানগর শাখার সচেতনামূলক লিফলেট বিতরণ

সিলেট এক্সপ্রেস ডেস্ক: ২২ অক্টোবর...