রফতানি বন্ধের খবরে সিলেটে পেঁয়াজের কেজি ১০০ টাকা

প্রকাশিত : ৩০ সেপ্টেম্বর, ২০১৯     আপডেট : ৯ মাস আগে

পেঁয়াজের উৎপাদন সংকট দেখিয়ে প্রতি বছরের মতো এবারও বাংলাদেশে পেঁয়াজ রপ্তানি বন্ধ করে দিয়েছে ভারত সরকার। আর এতে ভারতের অভ্যন্তরে পাইপলাইনে থাকা পেঁয়াজ বন্দরে প্রবেশ না করলে বড় ধরনের ক্ষতির আশঙ্কা বন্দরের আমদানিকারকদের। অন্যদিকে পেঁয়াজ আমদানি বন্ধ থাকায় প্রভাব পড়েছে পাইকারী ও খোলা বাজারে । কয়েক ঘণ্টার ব্যবধানে কেজি প্রতি বেড়েছে ৪০ থেকে ৪৫ টাকা, আর এতে বিপাকে পড়েছেন বন্দরের পাইকাররা।

পেঁয়াজের উৎপাদন সংকট দেখিয়ে গত ১৩ সেপ্টেম্বর পেঁয়াজ রপ্তানিতে রপ্তানি মূল্য বৃদ্ধি করে দেয় ভারত সরকার। আর এরপর থেকেই বেশি মূল্যে পেঁয়াজ আমদানি করে আসছে হিলি স্থলবন্দরের আমদানিকারকরা। এদিকে দুর্গাপূজা বন্ধের আগেই বেশি পরিমাণ পেঁয়াজ আমদানি করতে ভারতে পর্যাপ্ত এলসি দিয়েছে ব্যবসায়ীরা। তবে হঠাৎ করে ভারত সরকার আজ রোববার দুপুর থেকে পেঁয়াজ রপ্তানি বন্ধ করে দেওয়ায় বড় ধরনের ক্ষতির আশঙ্কা করছেন ব্যবসায়ীরা। ভারতের অভ্যন্তরে পাইপলাইনে থাকা পেঁয়াজ গুলো দেশে প্রবেশ না করলে কয়েক কোটি টাকা লোকসান গুনতে হবে আমদানিকারকদের।
ভারত সরকার পেঁয়াজ রপ্তানি বন্ধের কয়েক ঘণ্টার পরেই বন্দর এলাকায় বেড়েছে পেঁয়াজের দাম। প্রকারভেদে কেজিতে ৩৫ থেকে ৪০ টাকা বেড়ে প্রতি কেজি পেঁয়াজ বিক্রি হচ্ছে ৯০ থেকে ১০০ টাকা কেজি দরে। আর নতুন করে দাম বাড়ায় বিপাকে পড়েছেন পাইকাররা ও সাধারণ ক্রেতারা।

পেঁয়াজ রপ্তানি বন্ধ ঘোষণা পর থেকেই পেঁয়াজ বিক্রি বন্ধ রয়েছে বন্দরের পেঁয়াজের আড়ৎ গুলোতে । রপ্তানিকারকদের অযুহাত দেখিয়ে পেঁয়াজ বিক্রি বন্ধ করে দিয়েছে আমদানিকারকরা।

আরও পড়ুন