মুরারি চাঁদ কলেজে বঙ্গবন্ধুর ৯৯তম জন্মদিন ও জাতীয় শিশু দিবস উদযাপন

প্রকাশিত : ১৭ মার্চ, ২০১৯     আপডেট : ১০ মাস আগে  
  

মো. আব্দুল বাছিত:
বর্ণাঢ্য আয়োজনের মধ্য দিয়ে যথাযথ মর্যাদায় ঐতিহ্যবাহী মুরারি চাঁদ কলেজ, সিলেট-এর শিক্ষক পরিষদের উদ্যোগে জাতির জনক বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবুর রহমানের ৯৯তম জন্মদিন ও শিশু দিবস উদযাপন করা হয়েছে। দিনটিকে উদযাপনের লক্ষ্যে রোববার সকালে কলেজ ক্যাম্পাস প্রদক্ষিণ করে মুরারি চাঁদ কলেজের কেন্দ্রীয় শহীদ মিনারে পুস্পস্তবক অর্পন করেন কলেজ অধ্যক্ষ, শিক্ষকবৃন্দসহ বিভিন্ন বিভাগের শিক্ষার্থী এবং কলেজের সাংস্কৃতিক সংগঠনের নেতৃবৃন্দ। এরপরে কলেজ অডিটোরিয়ামে আলোচনা সভা, রচনা ও চিত্রাঙ্কন প্রতিযোগিতা এবং দোয়া মাহফিল অনুষ্ঠিত হয়। কলেজ অধ্যক্ষ প্রফেসর নিতাই চন্দ্র চন্দ’র সভাপতিত্বে আলোচনা সভায় বক্তব্য রাখেন কলেজের উপাধ্যক্ষ প্রফেসর মো. সালেহ আহমদ, কলেজ শিক্ষক পরিষদের সম্পাদক মো. তোতিউর রহমান, রাষ্ট্রবিজ্ঞান বিভাগের বিভাগীয় প্রধান প্রফেসর শামীমা আখতার চৌধুরী। সভাপতির বক্তব্যে অধ্যক্ষ প্রফেসর নিতাই চন্দ্র চন্দ বলেন, বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবুর রহমান বাঙ্গালী জাতির এক অবিসংবাদিত নেতা। সারাজীবন মানুষের কল্যাণে তিনি কাজ করেছেন। বঙ্গবন্ধুর জন্ম না হলে বাংলাদেশ স্বাধীন হতো না। মানবতার কল্যাণে নিবেদিতপ্রাণ বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবুর রহমানের আদর্শকে ধারণ করে সবাইকে ভূমিকা রাখতে হবে। এর মাধ্যমে একটি সুখি, সমৃদ্ধশালী সোনার বাংলা গড়ে তুলা সম্ভব। উদ্ভিদবিজ্ঞান বিভাগের সহকারী অধ্যাপক শাহনাজ বেগমের সঞ্চালনায় সভায় অন্যান্যের মধ্যে বক্তব্য রাখেন ইংরেজি বিভাগের বিভাগীয় প্রধান প্রফেসর মো. শফিউল আলম, প্রাণিবিদ্যা বিভাগের প্রফেসর গণেশ চন্দ্র রায় চৌধুরী, গণিত বিভাগের সহযোগী অধ্যাপক অরুন চন্দ্র পাল, দর্শন বিভাগের সহযোগী অধ্যাপক হাবিবা আক্তার, পরিসংখ্যান বিভাগের সহকারী অধ্যাপক মহসীন আলী, রসায়ন বিভাগের সহকারী অধ্যাপক মাহমুদা আলম, প্রভাষক কালিপদ আচার্য। শিক্ষার্থীদের পক্ষ থেকে বক্তব্য রাখেন হাসান আল মাসুম, কামরুল ইসলাম, গোলাম কিবরিয়া। শুরুতে পবিত্র কোরআন থেকে তেলাওয়াত করেন ইসলামী শিক্ষা প্রভাষক মোহাম্মদ আব্দুল্লাহ। সভার শেষে রচনা ও চিত্রাঙ্কন প্রতিযোগিতায় বিজয়ীদের হাতে পুরস্কার তুলে দেন অতিথিবৃন্দ। এছাড়া জাতির জনক বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবুর রহমানের ৯৯তম জন্মদিন উপলক্ষে কেক কাটেন কলেজ অধ্যক্ষ এবং অন্যান্য শিক্ষকবৃন্দ। অনুষ্ঠানের একেবারে শেষে বঙ্গবন্ধুর আত্মার মাগফেরাত কামনা করে মোনাজাত করেন এমসি কলেজ ছাত্রাবাস মসজিদের ইমাম মাওলানা আব্দুল খালিক আনসারী। ‘বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবুর রহমান: স্বাধীন বাংলাদেশের অনন্য রূপকার’ শীর্ষক রচনা প্রতিযোগিতায় প্রথম স্থান অধিকার করেন একাদশ শ্রেণির শিক্ষার্থী মো. আবুল হাসান, দ্বিতীয় হন রাষ্ট্রবিজ্ঞান বিভাগ ১ম বর্ষের শিক্ষার্থী মাহবুব আলম এবং তৃতীয় স্থান অধিকার করেন ইংরেজি বিভাগের শিক্ষার্থী মোহাম্মদ রুম্মান আহমদ। চিত্রাঙ্কন প্রতিযোগিতার ‘ক’ গ্রুপে সানিকা ঈশান রিমশা, দ্বিতীয় সামিয়াতুত আরিবা চৌধুরী, যৌথভাবে তৃতীয় তামজিদা আক্তার মাঈশা, আবিয়া রাহমান এবং ‘খ’ গ্রুপে তাসনিম তাবাসসুম বায়ান, দ্বিতীয় মর্ম মাধূর্য এবং যৌথভাবে তৃতীয় স্থান অধিকার করেন তাজকিয়া হেলাল, হোসেন আহমদ হক। আলোচনা সভায় কলেজের বিভিন্ন বিভাগের বিভাগীয় প্রধান, শিক্ষক এবং বিপুল পরিমাণ শিক্ষার্থীরা অংশগ্রহণ করেন।

আরও পড়ুন