মুক্তিযুদ্ধের বই পড়ে পরীক্ষা দিলো ৫’শ শিক্ষার্থী

প্রকাশিত : ২৩ ফেব্রুয়ারি, ২০১৮     আপডেট : ২ বছর আগে

সিলেটে শিক্ষার্থীদের ব্যাপক উৎসাহ উদ্দীপনার মধ্যদিয়ে ইনোভেটর আয়োজিত বইপড়া উৎসবের পরীক্ষা অনুষ্ঠিত হয়েছে। শুক্রবার সকাল ১০টায় নগরীর লামাবাজারস্থ মদন মোহন কলেজ ক্যাম্পাসে এ পরীক্ষা অনুষ্ঠিত হয়।

এতে শিক্ষার্থীরা মুক্তিযুদ্ধের ইতিহাস জানার প্রত্যয়ে প্রতিযোগিতায় অবতীর্ন হয়। পরীক্ষায় অংশগ্রহণের জন্য সিলেট মহানগরী ও তার আশপাশ এলাকা ছাড়াও সিলেট বিভাগের বিভিন্ন জেলা ও উপজেলা থেকে শিক্ষার্থীরা মদন মোহন কলেজে ভিড় জমায়। শিক্ষার্থী ও অভিভাবকদের উপস্থিতিতে এ সময় এক উৎসবের আমেজের সৃষ্টি হয়।

সকালে পরীক্ষা কেন্দ্রে শিক্ষার্থীদের স্বাগত জানিয়ে পরীক্ষা সংক্রান্ত নানা নির্দেশনা প্রদান করেন ইনোভেটরের নির্বাহী সঞ্চালক প্রণবকান্তি দেব। শহীদ সুলেমান এর স্মৃতি বিজড়িত মদন মোহন কলেজের মোহীনি মোহন ভবনে এ পরীক্ষা বেলা ১২টায় শেষ হয়। এতে স্কুল পর্যায়ের শিক্ষার্থীরা রশিদ হায়দারের ‘শোভনের স্বাধীনতা’ এবং কলেজ বিশ্ববিদ্যালয়ের শিক্ষার্থীরা রাবেয়া খাতুনের ‘মেঘের পরে মেঘ’ গ্রন্থ থেকে মোট ১০০ মার্কের পরীক্ষায় প্রায় ৫‘শ শিক্ষার্থী অংশ নেয়।

পরীক্ষা চলাকালে হল পরিদর্শন করেন সিলেট সিটি কর্পোরেশনের মেয়র আরিফুল হক চৌধুরী। এ সময় অতিথিদের বইপড়া উৎসবের বিভিন্ন দিক অবহিত করেন ইনোভেটরের মুখ্য সঞ্চালক সিটি কাউন্সিলর রেজওয়ান আহমদ। পরিদর্শনকালে আরো উপস্থিত ছিলেন মদন মোহন কলেজের অধ্যক্ষ অধ্যাপক ড. আবুল ফতেহ ফাত্তাহ ও সিলেট প্রেসক্লাবের সাবেক সাধারণ সম্পাদক আব্দুর রশিদ রেনু।

পরীক্ষায় সার্বিক সমন্বয় করেন ইনোভেটরের প্রধান সমন্বয়কারী জান্নাতুল ফেরদৌসী তারিন, প্রভাষক সুমন রায়, কোঅর্ডিনেটর আশরাফুল ইসলাম অনি, সৌরভ আচার্য্য, রাফসান ইসলাম, মবরুর আহমদ সাজু, রেজওয়ানা সামী, জোবেদা উর্মী। আগামী এপ্রিল মাসের শেষ সপ্তাহে পুরস্কার বিতরণের মাধ্যমে বইপড়া উৎসবের সমাপ্তি হবে।

উল্লেখ্য, ‘জ্ঞানের আলোয় অবাক সূর্যোদয়!/ এসো পাঠ করি/ বিকৃতির তমসা থেকে/ আবিষ্কার করি স্বাধীনতার ইতিহাস’ স্লোগানকে সামনে রেখে ২০০৬ সাল থেকে এ অনুষ্ঠান চলে আসছে।

আরও পড়ুন

মুজিববর্ষ উপলক্ষে লিডিং ইউনিভার্সিটিতে চিত্রপ্রদর্শনী

মুজিববর্ষ উপলক্ষে লিডিং ইউনিভার্সিটিতে চিত্র...

কাতার বিএনপির প্রতিবাদ সভা

কাতার ধানসিড়ি বিএনপির সদস্য সচিব...