মায়ের বকুনি খেয়ে চতুর্থ শ্রেণির ছাত্রীর আত্মহত্যা!

,
প্রকাশিত : ০৪ নভেম্বর, ২০২০     আপডেট : ২ বছর আগে

বগুড়ার ধুনট উপজেলায় মায়ের বকুনি খেয়ে অভিমান করে মীম আকতার (১২) নামের চতুর্থ শ্রেণির এক স্কুলছাত্রী আত্মহত্যা করেছে। গতকাল মঙ্গলবার রাতে উপজেলার কালেরপাড়া ইউনিয়নের আনারপুর-কচুগাড়ি গ্রামে নিজ বাড়িতে গলায় ফাঁস দিয়ে ওই স্কুলছাত্রী আত্মহত্যা করে। মীম আকতার কালেরপাড়া সরকারি প্রাথমিক বিদ্যালয়ের চতুর্থ শ্রেণির ছাত্রী এবং মোক্তার হোসেনের মেয়ে।

আজ বুধবার এ তথ্য নিশ্চিত করেছেন ধুনট থানার উপপরিদর্শক (এসআই) আকবর হোসেন। তিনি বলেন, ‘নিহত মীম আকতারের মৃতদেহ উদ্ধারের পর আইনি প্রক্রিয়া শেষে তার মায়ের কাছে হস্তান্তর করা হয়েছে। তবে এ ঘটনায় পরিবারের পক্ষ থেকে কোনো অভিযোগ নেই।’

জানা গেছে, হতদরিদ্র পরিবারের মেয়ে মীম আকতার। তার বাবা জীবিকার তাগিদে ঢাকায় অবস্থান করেন। মীম তার মা লাভলী খাতুনের সঙ্গে বাবার বাড়িতে থাকে। সংসারে গৃহস্থলী কাজে মীম মাকে সহযোগিতা করে। গতকাল মঙ্গলবার সন্ধ্যার দিকে সংসারের কাজ ফেলে রেখে খেলাধুলায় মেতে ছিল। মা তাকে বারবার কাজের কথা বলেও খেলাধূলা থেকে ফেরাতে পারেনি।

তারপর মীমকে তার মা নলকূপ থেকে পানি আনার কথা বলেন। কিন্তু কথা না শোনায় মীমকে তার মা বকাঝকা করে। এতে মায়ের ওপর ক্ষুব্ধ হয়ে একপর্যায়ে নিজ বাড়িতে গলায় ওড়না পেঁচিয়ে আত্মহত্যা করে মীম।

বগুড়ার অতিরিক্ত পুলিশ সুপার (শেরপুর-ধুনট সার্কেল) গাজীউর রহমান বলেন, সংবাদ পেয়ে গতকাল মঙ্গলবার রাতেই ঘটনাস্থল পরিদর্শন করা হয়েছে। মীম আকতারের আত্মহত্যার বিষয়টি নিশ্চিত হওয়ার পর তার মৃতদেহ পারিবারের কাছে হস্তান্তর করা হয়েছে। সূত্র:: আমাদেরসময়


আরও পড়ুন