মায়াবিনী

প্রকাশিত : ২৭ আগস্ট, ২০১৮     আপডেট : ২ বছর আগে
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  

সোহানুর রহমান অনন্ত:

১.
মেয়েটি একবারও চোখ মেলে তাকাচ্ছে না আমার দিকে। লাজুক মেয়ে বটে। বিয়ের জন্য মেয়ে দেখার প্লান এত তাড়াতারি ছিল না। আবার উপায়ও নেই। ব্যাংকে চাকরি পাওয়ার পর থেকে মা ধরে বসেছে বিয়ে করার জন্য। তাই আজ মেয়ে দেখতে এলাম। আজকালের মেয়েদের এতোটা লাজুকতা চোখে পড়ে না। আমার বন্ধু অনিক কানে কানে বলল, কিরে পছন্দ হয়েছে। লজ্জা যেন এবার আমি পেয়ে গেলাম। কোন উত্তর দিতে পারলাম না। বাধ্য হয়ে মা নিজেই প্রশ্ন করলেন, কিছু একটা বল?। আমি মাথা নাড়িয়ে সম্মতি জানালাম। কোন এক মুহুর্তে জেনেও গেলাম মেয়েটির নাম কামিনী। দরজার ওপাশ থেকে কয়েকটি পুচকি মেয়ে তাকিয়ে মিটি মিটি হাসছে। মা আমার সম্মতি পেয়ে স্বস্তি পেলেন, কেননা এর আগে আরো বেশ কয়েকটা মেয়ে দেখালেও পছন্দ হয়নি আমার। মা পাকা কথা বলার জন্য যখন মেয়ের বাবার সাথে কথা বলতে যাবে ঠিক তখনি মেয়ের বাবা বলল, বেয়াই সাহেবকে তো দেখছি না। ভদ্রলোকের কথা শুনে মা কিছুটা ভ্যাবাচেকা খেয়ে গেলো। কারন যে বিয়ের সমন্ধটা এনেছিল তাকে পরিস্কার ভাবে সব বলে দেয়া হয়েছে। কিন্তু তারপরও লোকটা মেয়ের বাবার থেকে কথাটা বলল না কেন?। ভদ্রলোক আবারও জিজ্ঞেস করল, তিনি কি ব্যবসার কাজে ব্যস্ত?। মা মুখটা কালো করে বললেন, আসলে আমার স্বামী আমাদের সাথে থাকে না, তিনি আরেকটা বিয়ে করেছেন। কথাটা শুনে ভদ্রলোক যে ধাক্কা খেলেন সেটা তার মুখ দেখেই বোঝা যায়। আজকালকার সমাজে দুটি বিয়ে হরহামেশাই হচ্ছে কিন্তু তবুও তাদের আমতা আমতা করে কথা বলার স্টাইল দেখে বোঝা গেল, তাদের ব্যাপারটা পছন্দ না। সেদিনের মতো আমরা চলে এলাম পড়ে জানাবে বলে খবর পাঠালো। আর আমরাও অপেক্ষা করতে লাগলাম।
২.
অনেকদিন হয়ে গেল উত্তর আর আসে না। যে সমন্ধটা এনেছিল তাকেও ফোনে পাওয়া যাচ্ছে না। আমি যেটা আন্দাজ করে ছিলাম সেটাই ছিল, বিয়েটা কামিনীর সাথে আর হচ্ছে না। তবে একটা কথা অস্বীকার কখনোই করতে পারবো না, কামিনীকে আমার অনেক ভাললেগেছে। তবে কিছুই করার নেই, কথায় আছে জš§, মৃত্যু,বিয়ে এ তিনটে জিনিস নাকি আল্লাহ্ হাতে। তিনি চাইলে হতে পারতো তিনি চায়নি তাই হয়নি। আমি আগের মতো নিজের কাজে মনোযোগ দিলাম। এক সকালে, অচেনা একটা নাম্বার থেকে ফোন এলো। রিসিভ করতেই ওপাশ থেকে একটি মেয়ে কণ্ঠ বলল, আমি শোভা কামিনীর বান্ধবী। আপনার সাথে কিছু কথা ছিল। বলুন। ফোনে নয় সরাসরি, যদিও কামিনী নিজেই আপনার সাথে দেখা করতে চেয়েছিল কিন্তু বাসা থেকে না করায় ওর হয়ে আমি আপনার সাথে দেখা করবো। ওকে কোথায়?। বেইলি রোডে, বিকেল তিনটায়। ওকে। অফিস থেকে একটু আগে বেরিয়ে বেইলি রোডে চলে গেলাম। অনেকক্ষন অপেক্ষা করার পর মেয়েটি এলো। এসেই বলল, স্যরি রাস্তায় অনেক জ্যাম ছিল। ইটস ওকে, বলুন কি বলবেন। আসলে কামিনীই আপনার কাছে পাঠিয়েছে আমায়। ওর বাবার এ বিয়েতে মত নেই। তাই কামিনীও চায়না আপনারা অকারণে আর এখানে সময় নষ্ট করুন। কেন?। তার ধারনা, ছেলের বাবা দ্বিতীয় বিয়ে করেছে, ছেলেও তো তাই করতে পারে?। কথাটা শুনে ছোট করে হাসলাম। ডাকাতের ছেলে কি ডাকাত হয়?। আমার কথায় মেয়েটি, চুপ হয়ে গেল। বিয়ে হচ্ছে না, এতে আমার কোন আপত্তি নেই, তবে অহেতুক একটা ব্যাপারকে এতো বড় করে দেখাটা ঠিক নয়। মেয়েটি মাথা নাড়িয়ে সম্মতি দিল। সব কথা ঘুরে ফিরে একি জায়গায় থেমেছে, কামিনী আর আমার বিয়েটা হচ্ছে না। শোভা নামের মেয়েটির সাথে কথা শেষ করে বাড়ির উদ্দেশ্যে রওনা হলাম। মনটা খারাপ হয়েছে, কামিনীর জন্য অকারণেই কষ্ট পাচ্ছি আমি।
৩.
পল্টন মোড় পাড় হয়ে, এগিয়ে যাচ্ছি। বইয়ের দোকানগুলো রাস্তার পাশে নীল পলিথিন দিয়ে মোড়ানো, টিপটিপ বৃষ্টি পড়ছে। হঠাৎ করেই বৃষ্টি বেড়ে গেলো। আমি দৌড়ে একটা বইয়ের দোকানের পাশে আশ্রয় নিলাম। আরো কিছু লোক সেখানে এসে দাঁড়িয়েছে। কিন্তু তার মাঝে একটি মুখ স্পষ্ট হয়ে উঠলো চোখের সামনে। কামিনী দাঁড়িয়ে আছে। কামিনী যদিও সেদিন আমাকে দেখেনি, তাই চেনের প্রশ্ন মনে আনাও পাপ। আড়চোখে দেখছিলাম সেই মায়াবিনীকে। ভাললাগছিলো, কেন জানি না। এতোক্ষন বৃষ্টি কমার কথা ভাবলেও এখন প্রাথর্ণা করছি বৃষ্টি আরো কিছুক্ষন থাকুক। কামিনীর চোখে চোখ পড়েছে দুই বার। আমার তাকানোটা বিরক্তিসহকারে দেখছে ও, এটা সব মেয়েদের বেলাতেই হয়। পুরুষ তাকালেই বিরক্তি কপালে উঠে যায়। বৃষ্টি আরো বেড়েছে, সম্ভবত আমার তাকানোটা ওর পছন্দ হয় নি। তাই বৃষ্টির মধ্যেই ভিজতে ভিজতে দৈনিক বাংলার দিকে হাঁটতে লাগলো। আমি তাকিয়ে রইলাম ওর চলে যাওয়ার দিকে। বৃষ্টির বেড়াজালে এক সময় হারিয়ে গেলো কামিনী। কেবল আমি তাকিয়ে রইলাম, প্রথম দিনের মতো।


  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  

আরও পড়ুন

কমলগঞ্জে জাতীয় দুর্যোগ প্রস্তুুতি দিবস পালন

         সিলেট এক্সপ্রেস ডেস্ক : ‘জানবে...

দীর্ঘ আন্দোলনের পর বাদাঘাট সড়কের সংস্কার কাজ শুরু

         সিলেট এক্সপ্রেস ডেস্ক:  দীর্ঘ আন্দোলনের...

বিশ্বনাথে অলংকারী ইউনিয়ন ক্রিকেট ফেডারেশনের ৮ম ক্রীড়া মৌসুমের উদ্বোধন

         বিশ্বনাথ উপজেলার আলোড়ন সৃষ্টিকারী সংগঠন...

জাফর ইকবালকে হত্যাচেষ্টা: দুই পুলিশ সদস্য সাসপেন্ড

         পুলিশি পাহারার মধ্যেও শাহজালাল বিজ্ঞান...