মাহিদের পকেটে ছিল মাত্র আড়াই শ টাকা

প্রকাশিত : ২৯ মার্চ, ২০১৮     আপডেট : ২ বছর আগে
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  

সিলেটে শাহজালাল বিজ্ঞান ও প্রযুক্তি বিশ্ববিদ্যালয়ের সাবেক শিক্ষার্থী মাহিদ আল সালাম (২৮) ছিনতাইকারীদের ছুরিকাঘাতে নিহত হয়েছেন গত রোববার। এ ঘটনায় বুধবার বিকেলে আদালতে স্বীকারোক্তিমূলক জবানবন্দি দিয়েছেন এক আসামি। ওই আসামি বলেছেন, মাহিদের মানিব্যাগে ছিল মাত্র আড়াই শ টাকা।

পুলিশ সূত্র জানায়, মঙ্গলবার রাত সাড়ে ১২টার দিকে মহানগর পুলিশের অতিরিক্ত উপকমিশনার (এডিসি) জ্যোতির্ময় সরকারের নেতৃত্বে পুলিশের একটি দল ছুরি ও ছিনতাইয়ে ব্যবহৃত মোটরসাইকেল স্থানীয় ভার্তখলা কবরস্থান থেকে উদ্ধার করে। পরে মোটরসাইকেল ব্যবহারকারীর খোঁজ করতে গিয়ে একই এলাকার বাসিন্দা মির্জা আতিক (২৭) ও তায়েফ মোহাম্মদ রিপন (২২) নামের ওই দুই তরুণকে গ্রেপ্তার করা হয়। মঙ্গলবার রাতেই দক্ষিণ সুরমা থানায় মাহিদের চাচা এ টি এম হাসান জেবুল আতিককে প্রধান করে মোট চারজনের বিরুদ্ধে হত্যা মামলা করেন।

জ্যোতির্ময় সরকার বলেন, ধরা পড়ার পরপরই মির্জা আতিক ছিনতাই ও ছুরিকাঘাত করার কথা স্বীকার করেন। বুধবার বিকেলে সিলেট মহানগর বিচারিক হাকিম (এমএম-১) আদালতে আতিক স্বীকারোক্তিমূলক জবানবন্দি দেন। বিচারক মামুনুর রশিদ সিদ্দিকী ১৬৪ ধারায় তাঁর জবানবন্দি নিয়েছেন। গ্রেপ্তার হওয়া আতিকের বিরুদ্ধে দক্ষিণ সুরমা থানায় ছিনতাই ও চাঁদাবাজির অভিযোগে পাঁচটি মামলা রয়েছে। একটি মামলায় তাঁর আট বছরের সাজা হয়। তায়েফ স্থানীয় একটি বেসরকারি বিশ্ববিদ্যালয়ে বিবিএর শিক্ষার্থী।

সংশ্লিষ্ট সূত্র জানায়, জবানবন্দিতে আতিক পুরো ঘটনার বর্ণনা দিয়েছেন। তিনি বলেন, তাঁর সঙ্গে চারজন ছিল। রাতে খাবার খাওয়ার জন্য হাতে কোনো টাকা ছিল না। এ জন্য কদমতলীর কেন্দ্রীয় বাসটার্মিনাল এলাকার একটি রেস্তোরাঁয় বসে ছিনতাইয়ের জন্য যাত্রীদের ওপর নজর রাখছিলেন। এ সময় মাহিদকে দেখতে পান। তাঁরা চারজন মাহিদকে ঘিরে প্রথমে মুঠোফোন ছিনিয়ে নেন। পরে মানিব্যাগ নিতে চান। কিন্তু মানিব্যাগে টাকা নেই বলে মাহিদ দিচ্ছিলেন না। পরে ডান পায়ের হাঁটুর ওপর ছুরিকাঘাত করেন আতিক। তখন তাঁর সঙ্গে থাকা তায়েফ মানিব্যাগ কেড়ে নিয়ে পালান। মানিব্যাগে মাত্র ২৫০ টাকা পেয়ে তাঁদের সবার মন খারাপ হয়।

মাহিদের মারা যাওয়ার খবর রাতেই পেয়েছিলেন জানিয়ে জবানবন্দিতে আতিক বলেন, রাত দেড়টার দিকে মারা যাওয়ার খবর পেয়ে ছুরি ও মোটরসাইকেল কবরস্থানে রেখে আসেন।

আদালতে দেওয়া জবানবন্দির পরপরই সন্ধ্যায় আতিককে কারাগারে পাঠানো হয়েছে। আতিকের সঙ্গে গ্রেপ্তার হওয়া তায়েফকে তিন দিনের রিমান্ডে নেওয়া হয়েছে। তাঁদের সঙ্গে ছিনতাইয়ে জড়িত অপর দুজনের অবস্থান জানতে তায়েফকে জিজ্ঞাসাবাদ করা হবে বলে জানিয়েছেন পুলিশ কর্মকর্তা জ্যোতির্ময় সরকার।

সিলেট নগরের মদিনা মার্কেট এলাকার প্রয়াত আইনজীবী ও মুক্তিযোদ্ধা আবদুস সালামের ছেলে মাহিদ। চার ভাইবোনের মধ্যে তিনি সবার ছোট। বড় ভাই যুক্তরাজ্যপ্রবাসী। দুই বোনের মধ্যে আফসানা সালাম শাহজালাল বিশ্ববিদ্যালয়ের ইংরেজি বিভাগের শিক্ষক এবং বর্তমানে বৃত্তি নিয়ে যুক্তরাজ্যে অধ্যয়নরত। আরেক বোন বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিব মেডিকেল বিশ্ববিদ্যালয়ের চিকিৎসক। মাহিদ শাহজালাল বিশ্ববিদ্যালয়ের অর্থনীতিতে অনার্স শেষে গত বছর স্নাতকোত্তর করেছেন। রোববার রাতে চাকরির সাক্ষাৎকার দেওয়ার জন্য ঢাকায় যেতে বাসটার্মিনাল যাচ্ছিলেন। টার্মিনালের কাছেই ছিনতাইকারীদের ছুরিকাঘাতে নিহত হন মাহিদ।

বুধবার সন্ধ্যায় সিলেট নগরের কিনব্রিজ এলাকায় মোমবাতি প্রজ্বালন করে মাহিদকে স্মরণ করেন শাহজালাল বিশ্ববিদ্যালয়ের শিক্ষার্থীরা। এর আগে মঙ্গলবার সিলেট নগরে কাফনের কাপড় পরে মাহিদের হত্যাকারীদের শাস্তির দাবিতে বিক্ষোভ করেন তাঁরা।


  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  

আরও পড়ুন

সিলেট বিভাগে আরো ১২ জন করোনায় আক্রান্ত

         সিলেট বিভাগে আরো ১২ জন...

সিলেটের ৭ সাংবাদিক’র স্মারণ সভা শনিবার

         সিলেট এক্সপ্রেস ডেস্ক: সিলেট ছাত্র...

সিলেটের দ্বিতীয় সংবাদপত্র এবং বাগ্মী বিপিন

          সেলিম আউয়াল: সিলেট থেকে...

বাংলাদেশ গুটিয়ে গেল ১৬৯ রানে

         টার্গেট ছিলো ৩২১ রান। বাংলাদেশ...