মার্ক ফিল্ড ইন্সটিটিউট মসজিদ : এক সঙ্গে একই হলে নারি-পুরুষের নামাজ

,
প্রকাশিত : ৩১ আগস্ট, ২০২১     আপডেট : ৩ মাস আগে
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  

তাইসির মাহমুদ: রোববার নর্থ-ইংল্যাণ্ড থেকে লন্ডন ফেরার পথে লেস্টারের মার্ক ফিল্ড ইনষ্টিটিউট মসজিদে আমরা খানিক যাত্রা বিরতি নিলাম । উদ্দেশ্য- মসজিদ দর্শন ও মাগরিবের নামাজ পড়া । মসজিদের সামনে যখন আমাদের মিনিবাস এসে থামলো তখন দিন-রাত্রির সন্ধিক্ষণ। ভেতরে ঢুকতেই মাগরিবের আজান হয়ে গেল । মোয়াজ্জিন ইকামত দিলেন । ইমাম মেহরাবে দাঁড়ালেন। জামাত শুরু হলো। সালাম ফেরানোর পর পেছনে চেয়ে দেখলাম আমাদের থেকে হাত দশেক দূরে একেবারে পেছনের ওয়াল ঘেষে জনা বিশেক মহিলাও একই সঙ্গে জামাতে নামাজ পড়েছেন। মধ্যখানে কোনো পার্টিশান কিংবা পর্দা নেই।
নামাজ শেষে মুসল্লিদের উদ্দেশ্যে মিনিট বিশেক বক্তব্য রাখলেন ইমাম। ওদিকে পেছনে মহিলারাও গোল হয়ে বসে আছেন । তাদের মধ্যে একজন বক্তব্য রাখছেন। মিনিট বিশেকের আলোচনা শেষে পুরুষ-মহিলা যার যার মতো করে চলে গেলেন।
মধ্যখানে কোনো পার্টিশন ছাড়া, একই হলে একইসঙ্গে নারী পুরুষের নামাজ পড়ার দৃশ্য দেখা আমার জীবনে এই প্রথম । অবশ্য মক্কায় হজ্ব ও ওমরা পালনকালে নারি-পুরুষ এক সঙ্গেই কাবাঘর তাওয়াফ করে থাকেন।
নারি পুরুষের একই হলে নামাজ পড়া নিয়ে বিতর্ক থাকতে পারে। এখানে সে বিতর্কে জড়াতে চাইনা । তবে আমার কাছে মনে হলো, ইসলামের দ্বিতীয় খলিফা হযরত ওমরের (রাঃ) যুগে যেভাবে নারী পুরুষ একই হলে নামাজ পড়ার গল্প শুনতাম সেই দৃশ্যই মার্কস ফিল্ড মসজিদে দেখে এলাম ।
ওই সময় ওমর (রাঃ) যখন মিম্বরে দাঁড়াতেন তখন মহিলারা দাঁড়িয়ে তাঁকে বিভিন্ন প্রশ্ন করতেন । তিনি জবাব দিতেন । একদিন হয়তো খলিফাযুগের সেই পরিবেশ ফিরে আসবে। মসজিদগুলোতে নারিরা নির্বিঘ্নে একই হলে নামাজ পড়বেন।
লন্ডন, যুক্তরাজ্য
মঙ্গলবার ৩১ আগস্ট ২০২১


  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  

পরবর্তী খবর পড়ুন : তিন ঘন্টা জীবন্ত লাশের সাথে

আরও পড়ুন