মহানগর আওয়ামী লীগের বৃক্ষরোপন কর্মসূচির উদ্বোধনিতে পররাষ্ট্রমন্ত্রী

প্রকাশিত : ২১ জুলাই, ২০২০     আপডেট : ২ মাস আগে
  • 19
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
    19
    Shares

নিজস্ব প্রতিবেদক: পররাষ্ট্রমন্ত্রী ডঃ এ কে আব্দুল মোমেন এমপি বলেছেন গাছ আমাদের বন্ধু, গাছ আমাদের জীবন গাছ আমাদের অক্সিজেন প্রদান করে গাছ রোপনের মাধ্যমে অর্থনৈতিক উন্নয়নের পাশাপাশি পরিবেশও আরও উন্নত হবে এবং মানুষও উপকার ভোগ করবে। বৃক্ষরোপনের মাধ্যমে বাংলাদেশ আরও সুন্দর ও উন্নত হবে। ২০৩০ সালে মাধ্যে ইউএনএ’র তথ্য অনুযায়ি আমাদের ২৫ ভাগ জমি বৃক্ষরোপণের আওতায় নিয়ে আসতে হবে। কিন্তু বর্তমানে ২২ কিংবা সাড়ে ২২ জমিতে রয়েছে বৃক্ষ আছে। তবুও আমাদেরকে আরও আড়াই শতাংশ বৃক্ষরোপণ করতে হবে। প্রধানমন্ত্রী যে উদ্যেগটি নিয়েছে তা সত্যি প্রশংসার দাবিদার। সিলেট মহানগর আওয়ামী লীগের বৃক্ষরোপন কর্মসূচির উদ্বোধনকালে তিনি একথা বলেন।
গতকাল সিলেট নগরীর হাফিজ কমপ্লেক্সে মুজিববর্ষ উপলক্ষে প্রধানমন্ত্রী কর্তৃক সারা দেশে ১ কোটি বৃক্ষরোপন কর্মসূচীর অংশ হিসাবে সিলেট মহানগর আওয়ামী লীগের আওতাধীন ২৭টি ওয়ার্ডে প্রায় ২ হাজার চারা গাছ বিতরনের মাধ্যমে মহানগর আওয়ামী লীগের বৃক্ষরোপন কর্মসূচির উদ্বোধন করা হয়েছে। অনলাইনে এ কর্মসূচির উদ্বোধন করেন পররাষ্ট্রমন্ত্রী ডঃ এ কে আব্দুল মোমেন এমপি ।
মহানগর আওয়ামী লীগ সভাপতি বীর মুক্তিযোদ্ধা মাসুক উদ্দিন আহমদ এর সভাপতিত্বে ও সাধারণ সম্পাদক অধ্যাপক মোঃ জাকির হোসেন এর পরিচালনায় অন্যান্যের মধ্যে উপস্থিত ছিলেন সিলেট মহানগর আওয়ামীলীগের সাবেক সহ-সভাপতি বীর মুক্তিযোদ্ধা আব্দুল খালিক, সাবেক যুগ্ম সাধারন সম্পাদক ফয়জুল আনোয়ার আলোওর, সাবেক প্রচার সম্পাদক আব্দুর রহমান জামিল, বঙ্গবন্ধু ফাউন্ডেশন সিলেট জেলা শাখার সহ-সভাপতি ওয়াহিদুর রহমান ওয়াহিদ, পররাষ্ট্রমন্ত্রীর ব্যাক্তিগত কর্মকর্তা শফিউল আলম জুয়েল প্রমূখ । প্রবীন আওয়ামীলীগ নেতা ১২নং ওয়ার্ড আওয়ামীলীগ সভাপতি মাহবুবুর রহমান মবু মিয়া, ১৫ নং ওয়ার্ড এর ভারপ্রাপ্ত সভাপতি এডভোকেট সরোয়ার আহমদ চৌধুরী আবদাল, ৮নং ওয়ার্ড সভাপতি হাজী সিদ্দেক আলী তালুকদার, ৫নং ওয়ার্ড সভাপতি মো: জুনু মিয়া, ১১ নং ওয়ার্ড সভাপতি ছালাইউদ্দিন বক্স ছালাই, ১৮ নং ওয়ার্ড সভাপতি মো: রফিকুল ইসলাম এর হাতে চারা প্রদানের মাধ্যমে বৃক্ষরোপন কর্মসূচীর উদ্বোধন করা হয়। সভাপতির বক্তব্যে মহানগর আওয়ামী লীগের সভাপতি বীর মুক্তিযোদ্ধা মাসুক উদ্দিন আহমদ বলেন, গাছ আমাদেরকে অক্সিজেন দিয়ে জীবিত রেখেছে। গাছের বহুভাবে উপকারিতা রয়েছে। আমরা গাছ কেটে বিক্রি করলেও পরবর্তীতে গাছ আর রোপন করিনা। যার কারণে আমরা মারাত্মক ক্ষতিগ্রস্ত হই। প্রতিটি ওয়ার্ডে ৭০টি করে চারাগাছ বিতরণ করা হয়েছে। আমাদেরকে বাঁচতে হলে বৃক্ষ অবশ্যই লাগাতে হবে।
মহানগর আওয়ামী লীগের সাধারণ সম্পাদক অধ্যাপক জাকির হোসেন তার বক্ত্যবে বলেন, বৃক্ষ ছাড়া আমাদের বেঁচে থাকার বিকল্প কোন পন্থা নেই। যেসব গাছ বিলুপ্তি হয়ে গেছে সেগুলো আমরা বিতরণ করেছি। সিলেটের ২৭টি ওয়ার্ডে ফলজ, বনজ ও ঔষধি গাছ দেয়া হয়েছে।


  • 19
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
    19
    Shares

আরও পড়ুন

নুসরাত হত্যার প্রতিবাদে সবুজকুঁড়ির প্রতিবাদী সংগীত ‘ফাঁসি চাই’

         নুসরাত হত্যার প্রতিবাদে সবুজকুঁড়ির প্রতিবাদী...

প্রতিপক্ষের হামলায় আহত আ’লীগ কর্মীর মৃত্যু

          বিশ্বনাথে প্রতিপক্ষের আহত আব্দুর...