ব্রিটেনের মূলধারার মিডিয়ায় আলোচিত কাজী রহমানের এয়ারলাইন প্রতিষ্ঠার উদ্যোগ

প্রকাশিত : ২৪ জুন, ২০১৮     আপডেট : ২ বছর আগে
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  

সিলেট এক্সপ্রেস ডেস্ক: ব্রিটিশ বাংলাদেশী উদ্যোক্তা কাজী শফিকুর রহমানকে নিয়ে ডকুমেন্টারী প্রচার করেছে বিখ্যাত চ্যানেল ফোর টেলিভিশন। কাজী রহমানের এয়ারলাইন্স ব্যবসার স্বপ্ন , বাস্তব পরিকল্পনা এবং সাহসী পদক্ষেপ তুলে ধরা হয়েছে দীর্ঘ এক ঘন্টার ডকুমেন্টারীতে। গত ১৩ জুন বুধবার রাত ১০টা ৩০মিনিটের সময় ডকুমেন্টারীটি প্রচার করা হয়। এর পরই ব্রিটেনের মূলধারার মিডিয়ায় ব্যাপকভাবে আলোচনায় আসেন কাজী রহমান। চ্যানেল ফোর ছাড়াও বিবিসি, সানডে টাইম, ডেইলি মেইল, টেলিগ্রাফ, ইভিনিং স্ট্যান্ডান্ডসহ ব্রিটেনের মূলধারার অসংখ্য মিডিয়া আইটলেট থাকে নিয়ে প্রতিবেদন প্রকাশ করে। বিশ্বের অন্যান্য গনমাধ্যমেরও আলোচনার কেন্দ্রবিন্দু ছিলেন কাজী শফিকুর রহমান।
‘‘হাও টু স্টার্ট এন এয়ারলাইন‘‘ শিরোনামের ডকুমেন্টারীর পরিচালক ছিলেন বিখ্যাত নির্মাতা আহমেদ পীরবাক্স, প্রডিউসারের দায়িত্ব পালন করেছেন এমি রাফাল এবং এক্সিকিউটিভ প্রডিউসার ছিলেন লারী ওয়ালফোর্ড। ডকুমেন্টারী নির্মানের জন্য দীর্ঘ দুই বছর কাজী রহমানের এয়ারলাইন্স ব্যবসার নানা উদ্যোগ , পরিকল্পনা এবং সফল বাস্তবায়ন নিয়ে চিত্রধারন করে চ্যানেল ফোর ঠিম।

লন্ডনে সুন্না মাস্ক নামের আতর ব্রান্ডের ব্যবসার সফলতার পর নিজের শৈশবের লালিত স্বপ্ন এয়ারলাইন ব্যবসার উদ্যোগ নেন কাজী শফিকুর রহমান। এ জন্য গত ২০১৪ সালে ফিরনাছ এয়ারওয়েজ নামে ব্রিটেনে প্রথম শরিয়া ভিত্তিক হালাল এয়ারলাইন চালুর ঘোষনা দেন তিনি। তার এই উদ্যোগ মোটামুটি সফল বাস্তবায়নের দিকে। ইতমধ্যে ফিরনাছ এয়ারওয়েজের বহরে যুক্ত হয়েছে ১৯ সিটের ব্রিটিশ প্রস্তুতকারক বিএই জেটস্ট্রিম প্লেন।
মূলধারার মিডিয়াতে কাজী রহমানকে অভিহিত করা হয়েছে, ‘‘সেলফ স্টাইলড হালাল রিচার্ড ব্রান্ডসন‘‘। যিনি ব্রিটেনে চালু করতে চান প্রথম ‘‘শরিয়া কমপ্লাইন্ট‘‘ এয়ারলাইন। যে এয়ারক্রাফটে পরিবেশন করা হবেনা এলকোহল বা মদ, থাকবে সকল ধরনের হালাল খাবার এবং ক্যাবিন ক্রো‘দের পোষক বা ড্রেসকোডে থাকবে শালীনতা।
মাত্র ৩২ বছর বয়সী কাজী শফিকুর রহমান ব্রিটেন আসেন ১৯৯৭ সালে। পড়াশোনা করেছেন মাত্র জিসিএসসি লেভেল পর্যন্ত। এই অতি সাধারন তরুন স্বপ্ন দেখছেন তার ফিরনাছ এয়ারওয়েজ উড়বে ইউরোপ থেকে মধ্যপ্রাচ্যের আকাশে।
তরুন এই উদ্যোক্তা এইতো কয়েক বছর আগে মাত্র ৬০০ পাউন্ড দিয়ে পারফিউম বা আতরের ব্যবসা চালু করেছিলেন। সুন্না মাস্ক নামের এই পারফিউম ব্রান্ড এখন ব্রিটেনের বাংলাদেশী কমিউনিটি ছাড়িয়ে মুলধারায়ও সুপরিচিত। রয়েছে ওয়েস্টফিল্ডের মতো বিশ্বমানের শপিং সেন্টারের সুন্না মাস্ককের শো রুম। বার্ষিক টার্নওভার ছাড়িয়েছে মিলিয়ন পাউন্ডে।
সিটি এয়ারপোর্টে ক্লিনিংয়ের কাজে থাকা অবস্থায় কাজী রহমান স্বপ্ন বুনেন এয়ারলাইন প্রতিষ্ঠার। ১৯ সিটের জেটস্ট্রিম এয়ারক্রাফট ইতমধ্যে তিনি তার বহরে যুক্ত করেছেন। চ্যানেল ফোর এর ডকুমেন্টারীতে কাজী শফিকুর রহমান বলেছেন, তিনি একজন ব্রিটিশ নাগরিক। কিন্তুু যখন এয়ারপোর্টের সিকিউরিটি পার হন, তখন নানা ঝাক্কি ঝামেলা পোহাতে হয়। এয়ারপোর্টগুলোতে মুসলমানদের অনেক সুবিধা নেই। এমন পরিবেশ এখন বিশ্বের অধিকাংশ এয়ারপোর্টে। এমন অবস্থায় শরিয়া স্টাইলের এয়ারলাইন প্রতিষ্ঠা হলে- এই পরিবেশের একটি আমুল পরিবর্তন সাধিত হবে।

কাজী শফিকুর রহমান গত বছর ২০১৭ সালে ভূষিত হয়েছেন ব্রিটিশ মুসলিম উদ্যোক্তা এওয়ার্ডে। ২ বোন এবং ৫ ভাই মিলে তারা বসবাস করেছেন ইস্ট লন্ডনে। এয়ারলাইন্সটির নাম তিনি রেখেছেন স্পেনের আব্বাস ইবনে ফিরনাছের নামে। তিনি প্রথম মুসলিম যিনি বিশ্বে সফলতার সাথে হিউমেন ফ্লাইট পরিচালনা করেছিলেন ৮৭৫ খ্রিস্টাব্দে।


  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  

পরবর্তী খবর পড়ুন : পলাতক আসামী গ্রেফতার

আরও পড়ুন

বালাগঞ্জের শ্রেষ্ঠ এসএমসি সভাপতি রুকনকে ফুলেল শুভেচ্ছা

         নশিওরপুর সরকারি প্রাথমিক বিদ্যালয় পরিচালনা...

সিসিক মেয়র ও ভারতের সহকারী হাইকমিশনারের সৌজন্য সাক্ষাৎ

         সিলেট এক্সপ্রেস ডেস্ক: সিলেট সিটি...

সাখাওয়াত হোসেন পলাশ ডাক্তার হতে চায়

         সিলেট এক্সপ্রেস ডেস্ক: সাখাওয়াত হোসেন...