ব্রিগেডিয়ার জেনারেল জুবায়ের সিদ্দিকীকে যেভাবে দেখেছি

,
প্রকাশিত : ১২ মার্চ, ২০১৯     আপডেট : ২ বছর আগে
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  

মো. ছয়ফুল করিম চৌধুরী হায়াত: আধ্যাত্মিক রাজধানী খ্যাত সিলেটের শিক্ষা, সাহিত্য ও সামাজিক অঙ্গনে ব্রিগেডিয়ার জেনারেল জুবায়ের সিদ্দিকী একটি উল্লেখযোগ্য স্থান দখল করে আছেন। ১৯৪৯ সালে সিলেটের বালাগঞ্জ উপজেলার পাঁচপাড়া গ্রামে তিনি জন্মগ্রহণ করেন। ১৯৬৪ সালে সিলেটের দি এইডেড হাইস্কুল থেকে এসএসসি এবং ১৯৬৬ সালে মুরারীচাঁদ কলেজ থেকে এইচএসসি পাশ করেন। ১৯৬৭ সালে তৎকালীন পাকিস্তান সেনাবাহিনীতে ৪১ তম দীর্ঘ মেয়াদী কোর্সে রেগুলার কমিশন্ড অফিসার হিসেবে যোগ দেন। ১৯৬৯ সালে পাকিস্তান সেনাবাহিনীর আর্টিলারি কোরে কমিশন লাভ করেন। ১৯৭১ সাল থেকে ১৯৭৩ সাল পর্যন্ত অন্যান্য আটকেপড়া বাঙ্গালিদের সাথে পাকিস্তানের নর্থ ওজিরিস্তানের খাজুরী দূর্গে বন্দী ছিলেন।
১৯৭৩ সালে বাংলাদেশে প্রত্যাবর্তনের পর বাংলাদেশ সেনাবাহিনীর বিভিন্ন গুরুত্বপূর্ণ পদে দায়িত্ব পালন করেন। তিনি ১৯৯৮-৯৯ সাল পর্যন্ত বাংলাদেশ চা-বোর্ডের চেয়ারম্যান হিসেবে দায়িত্ব পালন করেন।
সেনাদলের উপ-অধিনায়ক হিসেবে সৌদি আরবে যুদ্ধে নিয়োজিত ছিলেন। তিনি বাংলাদেশ কমান্ড এন্ড স্টাফ কলেজ থেকে এবং চীনের নাগনাগ ডিফেন্স ইউনিভার্সিটি থেকে যথাক্রমে পিএসপি এবং এনডিইউ ডিগ্রী লাভ করেন।
দীর্ঘ ৩২ বছর সেনাবাহিনীতে চাকুরী করার পর সিলেটে স্থায়ীভাবে বসবাস শুরু করেন। তাঁর পিতা শাহ তজম্মুল আলী সিদ্দিকী দুর্গাকুমার পাঠশালার প্রধান শিক্ষকের পদ থেকে অবসর গ্রহণ করেন। ৫ভাই ও ৫ বোনের মধ্যে ব্রিগেডিয়ার জেনারেল জুবায়ের সিদ্দিকী দ্বিতীয়। পিতা ছিলেন একজন আদর্শ শিক্ষক। এজন্যে শিক্ষার প্রতি ছিল তার বিশাল টান। এজন্যে ২০০২ সালের ১ সেপ্টেম্বর সিলেটের ইংরেজি মাধ্যম শিক্ষা প্রতিষ্ঠান স্কলার্সহোম-এর অধ্যক্ষ পদে যোগদান করেন এবং অদ্যাবধি এই কলেজে অধ্যক্ষ হিসেবে দায়িত্ব পালন করছেন। তাঁর অক্লান্ত প্রচেষ্ঠায় বর্তমানে স্কলার্সহোম কলেজের ৬টি ক্যাম্পাস, প্রায় ৫০০ জন শিক্ষক ও ৫০০০ ছাত্র-ছাত্রী রয়েছেন।
শিক্ষার পাশাপাশি সাহিত্যাঙ্গনে রয়েছে ব্রিগ্রেডিয়ার জুবায়ের সিদ্দিকীর পদচারণা। স্মৃতির অলিন্দে, আমার জীবন আমার যুদ্ধ, কালের কথামালা, সময়, সংকট ও সম্ভাবনা তাঁর লেখা এই চারটি বই প্রকাশিত হয়। এছাড়াও নিয়মিত একজন কলামিস্ট হিসেবে তাহার লেখালেখি পত্র-পত্রিকায় সাড়া জাগানোর মত। তিনি উপমহাদেশের অন্যতম প্রাচীন সাহিত্য প্রতিষ্ঠান কেন্দ্রীয় মুসলিম সাহিত্য সংসদের কার্যনির্বাহী কমিটির সহ-সভাপতির দায়িত্ব পালন করেন।
সামাজিক অঙ্গনে তিনি লায়ন্স ক্লাব অব সিলেটের প্রেসিডেন্ট ছিলেন। তিনি লায়ন্স শিশু হাসপাতালের একজন পরিচালক। ২০০৮ সাল থেকে তিনি দুর্নীতি প্রতিরোধ কমিটি সিলেটের সভাপতির দায়িত্ব পালন করে আসছেন। অদ্যাবধি এই সংগঠনের সভাপতি হিসাবে দুর্নীতি দমন কমিশন বাংলাদেশের পক্ষ থেকে ৪র্থ বারের মত পুরষ্কার লাভ করেন।
সিলেট অঙ্গনের অনেক গুরুত্বপূর্ণ ব্যক্তিত্ব যারা সেনাবাহিনীতে চাকুরী করে অবসর গ্রহণ করেছেন। কিন্তু কেউই স্থায়ীভাবে সিলেটে বসবাস করেননি। ব্যতিক্রম মেজর জেনারেল মরহুম ডা.নজমুল ইসলাম, ব্রিগেডিয়ার জেনারেল জুবায়ের সিদ্দিকী ও লে. কর্নেল সৈয়দ আলী আহমদ। ব্রিগেডিয়ার জেনারেল জুবায়ের সিদ্দিকী সেনাবাহিনী থেকে অবসরের পর নিজের জন্মভূমি সিলেটের শিক্ষা, সাহিত্য-সামাজিক ক্ষেত্রে নিজেকে সম্পৃক্ত রেখে নিজের শ্রম, মেধা, মননকে কাজে লাগিয়ে একটি অনন্য উদাহরণ সৃষ্টি করেছেন। চাকুরী জীবনে তিনি ছিলেন নির্ভীক, সৎ। অন্যায়ের সাথে কখনো তিনি আপোষ করেননি। লোভ-লালসা, ধনপিপাসা, দুর্নীতি বা অনৈতিকতার পথ থেকে নিজেকে একজন আদর্শ দেশপ্রেমিক, সমাজ কর্মী হিসেবে প্রতিষ্ঠিত করতে সক্ষম হয়েছেন। আগামী ৯ মার্চ ২০১৯ সালে তার জীবনের ৭০ বছর পূর্ণ হতে যাচ্ছে। গল্পকার, সাহিত্যিক, সাংবাদিক সেলিম আউয়াল এর অক্লান্ত প্রচেষ্ঠায় অল্প সময়ের প্রস্তুতিতে তাকে সংবর্ধনা প্রদান এবং তার সৃষ্টিশীল, কর্মময় জীবনের উপর একটি স্মারক গ্রন্থ প্রকাশের সিদ্ধান্ত গৃহীত হয়। এই স্মারকগ্রন্থ প্রকাশের ফলে ব্রিগেডিয়ার জেনারেল জুবায়ের সিদ্দিকী কোনোভাবেই লাভবান হবেন না। তবে এর মাধ্যমে আমরা সামান্যটুকু হলেও আমাদের দায়িত্ব পালন করেছি বলে আশ্বস্থ হতে পারব এবং পরবর্তী প্রজন্মসহ সকলেই এর মাধ্যমে উপকৃত হবে। আমি প্রত্যাশা করি আল্লাহ তাকে সুস্বাস্থ্য ও দীর্ঘায়ু দান করেন।
অধ্যক্ষ মো. ছয়ফুল করিম চৌধুরী হায়াত: প্রতিষ্ঠাতা অধ্যক্ষ, হলিসিটি পাবলিক স্কুল এন্ড কলেজ, সিলেট


  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  

আরও পড়ুন

১ হাজার মানুষকে সবজি উপহার দিলো সিলেট জেলা যুবলীগ

         করোনাভাইরাসের প্রভাবে ক্ষতিগ্রস্ত সিলেটের নিম্ন...

ইসলামিক ফিকহ ইন্সটিটিউটের ইসলামিক সেমিনার ও দোয়া মাহফিল

         সিলেট এক্সপ্রেস ডেস্ক: সর্বস্তরের মুসলমানদের...

মাধবপুরের চৌমুহনী বাজার এর পরিত্যক্ত জায়গা পাকাকরণ কাজের উদ্বোধন

2        2Sharesমাধবপুর প্রতিনিধি হবিগঞ্জের মাধবপুর উপজেলার...

সরকার নির্ধারিত মূল্যে ঔষধ বিক্রি করা ব্যবসায়ীদের দায়িত্ব

         আব্দুস সোবহান ইমন: বাংলাদেশ কেমিস্টস্...