ব্রিগেডিয়ার জুবায়ের সিদ্দীকি এবং….

প্রকাশিত : ১৪ এপ্রিল, ২০২০     আপডেট : ২ মাস আগে  
  

ইফতেখার শামীম
আমি চলে গেলে এ পারে আঁধারে কেউ থাকবে না আর
সব ভেসে গেছে এবার তবে কি ভাসাবো অন্ধকার?
আল মাহমুদের এই কবিতার ভাষার মতো আমাদের’কে অন্ধকারে ভাসিয়ে দিয়ে ব্রিগেডিয়ার জেনারেল জুবায়ের সিদ্দিকী গত ২৫শে মার্চ ঢাকার সিএমএইচ হাসপাতালে শেষ নি:শ্বাস ত্যাগ করেন। পৃথিবীর এই করুণ সংকটে বিদায় নিলেন শত সংকট থেকে দেশ এবং দেশের সেনাবাহিনী’কে উত্তরণের এই মহানায়ক। সিলেটবাসী হারালো প্রিয় এক বিদ্ধজ্জনকে, যার স্পর্শে সিলেটে জন্ম হয়েছে ইংরেজি জানা অগুণতি তরুণ-তরুণীর।
১৯৪৯ সালের ৯ মার্চ বালাগঞ্জ উপজেলার পাঁচপাড়া গ্রামে জন্ম নেয়া জুবায়ের সিদ্দিকী একইসাথে একজন সফল শিক্ষক, সাবেক ব্রিগেডিয়ার জেনারেল এবং বহু পাঠক হৃদয়ে আসন গড়া একজন লেখক। ১৯৬৬ সালে সিলেট এমসি কলেজ থেকে এইচএসসি পাশ করে তিনি ১৯৬৭ সালে পাকিস্তান সেনাবাহিনীতে রেগুলার কমিশন অফিসার পদে পি এম এ কাকুলে যোগ দেন। শুরু হয় তার সৈনিক জীবন।
শত ঝড়-ঝঞ্চার পরও যে জীবনে তিনি ছিলেন অবিচল, সাহসী এক যোদ্ধা। যে যোদ্ধা জীবনের শেষ রক্তবিন্দু থাকা পর্যন্ত হার মেনে নিতে রাজি না। ১৯৯৯ সালের ৬ জানুয়রি সেনাবাহিনীর চাকরি থেকে অবসর গ্রহণের পূর্বে তার দূূর্দান্ত মেধা ও কঠোর পরিশ্রমের মাধ্যমে সেনাবাহিনীর বিভিন্ন গুরুত্বপূর্ণ দায়িত্ব নিষ্ঠা ও সফলতার সাথে পালন করেছেন।
অনাকাঙ্ক্ষিত আর অপ্রত্যাশিত অবসরের পর তিনি নিজের জীবনকে দেখালেন অন্য মোড়। তিনি যোগ দিলেন অধ্যাপনায়। তার ঐকান্তিক প্রচেষ্ঠায় প্রতিষ্ঠিত হলো স্কলার্সহোম কলেজ এবং অধ্যক্ষ হিসেবে মৃত্যুর আগ মুহুর্ত পর্যন্ত তিনি স্কলার্হোম’কে নিয়ে যান অনন্য উচ্চতায়। আজ স্কলার্সহোম শিক্ষাপ্রতিষ্ঠান হিসেবে হাজার প্রতিষ্ঠানের আইকনে পরিণত হওয়ার পেছনে ছিলেন এই সমর ম্যাজিশিয়ান। বিভিন্ন সামাজিক ও সাংস্কৃতিক সংগঠণের সাথে সম্পৃক্ততা এবং সিলেটের অধিকাংশ অনুষ্ঠানে অতিথি হিসেবে তিনি ছিলেন ফার্স্ট চয়েজ।
২০০৩ সালে “স্মৃতির অলিন্দে” নামে তার প্রথম বই প্রকাশিত হয়। কালের কথামালা, আমার জীবন আমার যুদ্ধ এবং তার সর্বশেষ বই সময় সংকট সম্ভাবনা।
জুবায়ের সিদ্দিকী একজন অমায়িক মানুষ ছিলেন, যার কন্ঠ থেকে নিঃসৃত হতো জ্ঞানের ঝরণা। প্রতিটি মানুষের সাথে কথা বলতেন হাসিমুখে। তার এই হঠাৎ চলে যাওয়া সিলেটবাসীর জন্য ছিলো আকস্মিক ধাক্কা। জীবনযুদ্ধের এই মহানায়ক’কে মনে পড়লে চোখ ভিজে যায় বিনম্র শ্রদ্ধায়।

আরও পড়ুন



সবুজের রাজ্যে হাতছানি

চারদিকেই সবুজ প্রকৃতির হাতছানি। এ...

মা-ছেলেকে ফাঁসাতেই বিউটিকে হত্যা করে তার বাবা

হবিগঞ্জের শায়েস্তাগঞ্জে আলোচিত কিশোরী বিউটি...