বৃহত্তর কাড়াবাল্লা-বড়চাতল প্রবাসী সমাজকল্যাণ পরিষদের ঈদ সামগ্রী বিতরণ

,
প্রকাশিত : ০২ জুন, ২০১৯     আপডেট : ২ বছর আগে
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  

সিলেট এক্সপ্রেস ডেস্ক: সিলেটের কানাইঘাট উপজেলার ১নং লক্ষীপ্রসাদ পূর্ব ইউনিয়নের বৃহত্তর কাড়াবাল্লা-বড়চাতল প্রবাসী সমাজকল্যাণ পরিষদের উদ্যোগে এলাকার দরিদ্র মানুষদের মাঝে ঈদ সামগ্রী ও ঈদবস্ত্র বিতরণ করা হয়েছে। পবিত্র ঈদুল ফিতর উপলক্ষে শুক্রবার (৩১ মে) স্থানীয় কাড়াবাল্লা সুরমা বাজারে এই অনুষ্ঠান সম্পন্ন হয়।
পরিষদের সভাপতি ফারুক আহমদের সভাপতিত্বে ও কোষাধ্যক্ষ রাসেল আল-হাদীর পরিচালনায় অনুষ্ঠানে প্রধান অতিথি ছিলেন সীমান্তিকের চেয়ারম্যান ও লুৎফুর রহমান স্কুল এন্ড কলেজর অধ্যক্ষ মাজেদ আহমদ চঞ্চল।

অন্যান্যের মধ্যে বক্তব্য রাখেন পরিষদের মুখপাত্র মোহাম্মদ আব্দুল বাছিত চৌধুরী। স্বাগত বক্তব্য রাখেন পরিষদের অন্যতম উদ্যোক্তা মাওলানা ইয়াহইয়া আহমদ চৌধুরী।

প্রবাসীদের পক্ষে উপস্থিত ছিলেন পরিষদের সদস্য সৌদিআরব প্রবাসী সামছ উদ্দিন, আরব আমিরাত প্রবাসী আব্দুশ শহিদ খান, হাছান আহমদ, খছরুজ্জামান চৌধুরী, বাহরাইন প্রবাসী ছাব্বির আহমদ, আজিজুল ইসলাম, আব্দুর রহমান আয়নুল, নুরুল ইসলাম প্রমুখ।

অনুষ্ঠানে বক্তারা বলেন, ঈদের আনন্দ শুধু নিজের জন্য নয় বরং তা সবার মাঝে ছড়িয়ে দেয়ার মধ্য দিয়েই ঈদের পূর্ণতা আসে। দরিদ্র মানুষরা আমাদের সমাজের অবিচ্ছেদ্য অংশ। কিন্তু জীবনের প্রতিটি অধ্যায়ে এ সব মানুষ বিভিন্ন ধরনের অবহেলা আর বঞ্চনার শিকার হয়। সরকার ও বিত্তবানদের সুদৃষ্টির অভাবে এরা বরাবরই ঈদের আনন্দ থেকে বঞ্চিত থাকে। সরকারের সক্ষমতা ও দেশের বিত্তবানদের তুলনায় অসহায়দের সংখ্যা নগণ্য। আমাদের সামান্য সহযোগিতায় দরিদ্ররা আনন্দ উৎসবের অংশীদার হতে পারে। তাই আমাদের সকলের উচিৎ সমাজের সুবিধাবঞ্চিত ও দরিদ্রদের সহযোগিতায় এগিয়ে আসা।

বক্তারা আরও বলেন, অবহেলিত মানুষকে বঞ্চিত রেখে সমাজ জীবনে শান্তি ও সমৃদ্ধি অর্জন সম্ভব নয়। ইনসাফভিত্তিক সমাজ ব্যবস্থা না থাকায় গরীবরা আরও গরীব, আর ধনীরা আরও ধনী হচ্ছে। অথচ যাকাত ভিত্তিক ইসলামী সমাজ ব্যাবস্থা বিদ্যমান থাকলে এই ব্যবধান থাকত না। এ পরিষদ আমাদেরকে শ্রেনীবিভাজনের বিরুদ্ধে অবস্থান নিয়ে মানবতার কল্যাণে কাজ করার মহৎ শিক্ষা দিয়ে থাকে। তাই সমাজের সকল সামর্থবান মানুষদেরকে অসহায়দের কল্যানে সাধ্যমত সহযোগিতার হাত প্রসারিত করতে হবে।

অনুষ্ঠানে প্রায় ২০০ জন দরিদ্র ব্যক্তি ও পরিবারের মাঝে ঈদের খাদ্যসামগ্রী ও কাপড় বিতরণ করা হয়।


  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  

আরও পড়ুন