বিশ্বনাথের ফুল মিয়া হত্যা মামলায় ৩ জনের যাবজ্জীবন

প্রকাশিত : 03 November, 2019     আপডেট : ১ মাস আগে  
  

 দীর্ঘ প্রায় ৭ বছর পর সিলেটের বিশ্বনাথে চাঞ্চল্যকর মুদি ব্যবসায়ী ফুল মিয়া হত্যা মামলার রায় ঘোষণা করা হয়েছে। রায়ে হত্যা মামলায় সাবেক ইউপি সদস্যসহ তিনজনের যাবজ্জীবন কারাদন্ড দিয়েছেন আদালত। রবিবার দুপুরে সিলেটের অতিরিক্ত দায়রা জজ প্রথম আদালতের বিচারক মো. আমিরুল ইসলাম এ রায় ঘোষণা করেন।

যাবজ্জীবন সাজাপ্রাপ্তরা হলেন-বিশ্বনাথ উপজেলার খাজাঞ্চী ইউনিয়নের ২নং ওয়ার্ডের সাবেক সদস্য দুদু মিয়া, বিশ্বনাথ উপজেলার খাজাঞ্চী ইউনিয়নের মুছেধর গ্রামের তেরা মিয়ার ছেলে দেলোয়ার হোসেন প্রকাশ ও সুনামগঞ্জের চন্ডিপুর গ্রামের জগত চন্দ্র দাসের ছেলে জয়ন্ত দাস। যাবজ্জীবনের পাশাপাশি আসামিদের প্রত্যেককে দশ হাজার টাকা অর্থদন্ড ও অনাদায়ে আরও এক বছরের কারাদন্ড দেওয়া হয়েছে।
ফুল মিয়া হত্যা মামলার আদালতের রায়ে তিনজনের যাবজ্জীবন সাঁজা প্রদানের সত্যতা স্বীকার করে বাদি পক্ষের আইনজীবী আবদুল লতিফ সাংবাদিকদের জানান, মামলা চলাকালীন আসামি হেলাল উদ্দিন মারা যাওয়ায় এবং অপরাধ প্রমাণিত না হওয়ায় জামাল উদ্দিন নামের আরেক আসামিকে খালাস দেওয়া দেন আদালত।
জানা যায়, বিশ্বনাথের মুছেধর গ্রামে নিজের ব্যবসা-প্রতিষ্ঠানে খুন হন ফুল মিয়া (২৯)। গত ২০১২ সালের ২৭ জানুয়ারী সকালে হাত-পা বাঁধা অবস্থায় পুলিশ তাঁর লাশ উদ্ধার করে ময়নাতদন্তের জন্য সিলেট ওসমানী মেডিকেল কলেজ হাসপাতালে প্রেরণ করে। এ ঘটনায় ফুল মিয়ার বাবা মাসুক মিয়া বাদী হয়ে সাবেক ইউপি সদস্য দুদু মিয়াকে প্রধান আসামি করে থানায় মামলা করেছেন। মামলাটি তদন্ত শেষে ২০১২ সালের ৩১ মে বিশ্বনাথ থানার তৎকালীন ওসি (তদন্ত) চান মিয়া পাঁচজনের বিরুদ্ধে আদালতে অভিযোগ পত্র দাখিল করেন।

আরও পড়ুন