বিশ্বকাপের ট্রফি দেখলো সিলেটবাসী

প্রকাশিত : ২০ অক্টোবর, ২০১৮     আপডেট : ২ বছর আগে

আগামী বছরের ৩০ মে ইংল্যান্ড ও ওয়েলসে বসছে বিশ্ব ক্রিকেটের সবচেয়ে বড় আসর আইসিসি ওডিআই ওয়ার্ল্ডকাপ। বাংলাদেশের ক্রিকেটপ্রেমীদের উন্মাদনায় আরো পরশ দিতে শুক্রবার হাজির হয়েছিল বিশ্বকাপের ট্রফি। ‘ট্রফি ট্যুর’-এর অংশ হিসেবে বর্তমানে বাংলাদেশে অবস্থান করছে বিশ্বকাপের স্বপ্নের ট্রফিটি। শুক্রবার সিলেট আন্তর্জাতিক ক্রিকেট স্টেডিয়ামে সকাল ১০টা থেকে কিতাল ৪টা পর্যন্ত দর্শনার্থীদের জন্য রাখা হয় বিশ্বকাপের ট্রফি। প্রদর্শনী ছিল সবার জন্য উন্মুক্ত। ক্রিকেটপ্রেমীরা সকাল থেকেই ভিড় জমান লাক্কাতুরাস্থ স্টেডিয়ামটিতে। ছুঁয়ে দেখতে না পারলেও একঝলক দেখা কিংবা সেলফি তুলে তা স্মৃতিতে রাখায় ব্যস্ত ছিলেন তারা। এরপর ট্রফিটি নিয়ে যাওয়া হয় সিলেট ক্যাডেট কলেজে। সেখানে আরো কিছুক্ষণ রাখা হয় ট্রফিটি। সেখান থেকে রাতেই ঢাকার উদ্দেশ্যে নিয়ে যাওয়া হয় ট্রফিটি।

প্রদর্শনী উপলক্ষে স্টেডিয়ামে উপস্থিত হয়েছিলেন সিলেট সিটি কর্পোরেশনের মেয়র আরিফুল হক চৌধুরী,সিলেট মেট্রোপলিটন পুলিশ কমিশনার গোলাম কিবরিয়া,সিলেটের জেলা প্রশাসক কাজী এম এমদাদুল ইসলাম , সিলেট রেঞ্জ এর ডিআইজি অব পুলিশ মো. কামরুল আহসান, বিপিএম, সিলেট মেট্রোপলিটন পুলিশ কমিশনার গোলাম কিবরিয়া ও সিলেটের পুলিশ সুপার মো. মনিরুজ্জামান।সদর উপজেলা পরিষদের চেয়ারম্যান আশফাক আহমদ, সিলেট জেলা ক্রীড়া সংস্থার সাধারণ সম্পাদক ও সিলেট জেলা ফুটবল এসোসিয়েশনের প্রেসিডেন্ট মাহি উদ্দিন আহমদ সেলিম, বাংলাদেশ ক্রিকেট বোর্ডের পরিচালক শফিউল আলম চৌধুরী নাদেল, সিলেট ক্রিকেটার্স এসোসিয়েশনের সভাপতি রেজাউল করিম নাচনসহ সংশ্লিষ্টরা।
গত বুধবার ট্রফিটি ঢাকায় পৌঁছায়। এদিন ট্রফিটি রাষ্ট্রপতির কার্যালয় বঙ্গভবনে নিয়ে যাওয়া হয়। পরের দিন বৃহস্পতিবার ট্রফিটি সর্বসাধারণের প্রদর্শনের জন্য রাখা হয় রাজধানীর যমুনা ফিউচার পার্কে। এর পরদিন শুক্রবার ট্রফি চলে আসে সিলেটে।
আজ শনিবার চট্টগ্রামের জহুর আহমেদ চৌধুরী স্টেডিয়ামে ট্রফিটি নিয়ে যাওয়া হবে প্রদর্শনীর জন্য। চট্টগ্রামের পর বাংলাদেশ থেকে ট্রফিটি চার দিনের ট্যুরে নেপাল নিয়ে যাওয়া হবে ২১ অক্টোবর।
এর আগে গত ২৭ আগস্ট ভ্রমণে বের হয় বিশ্বকাপ ট্রফি। নয় মাসে মোট ২১টি দেশের ৬০টি শহর ভ্রমণ করবে ট্রফিটি।

আরও পড়ুন

রশিদপুরে ২ দফা দাবিতে মানববন্ধন

 সিলেট এক্সপ্রেস ডেস্ক: সিলেট-ঢাকা মহাসড়কের...