বিবিআইএস-এর ম্যানেজিং কমিটি নিয়ে প্রকাশিত সংবাদের প্রতিবাদ ও বক্তব্য

প্রকাশিত : ৩০ এপ্রিল, ২০১৯     আপডেট : ১১ মাস আগে  
  

সিলেট এক্সপ্রেস ডেস্ক :  গত শুক্রবার, ২৬ এপ্রিল ২০১৯ইং সিলেট এক্সপ্রেস-এ প্রকাশিত ‘বিবিআইএস-এ ভুয়া কমিটি গঠনের চক্রান্তের প্রতিবাদে অভিভাবকদের সভা’ শীর্ষক সংবাদটির প্রতিবাদ জানিয়েছেন বিবিআইএস কর্তৃপক্ষ। প্রতিবাদলিপিতে কর্তৃপক্ষ জানান, ‘বিবিআইএস-এ ভুয়া কমিটি গঠনের চক্রান্তের প্রতিবাদে অভিভাবকদের সভা’ শীর্ষক সংবাদটি আমাদের দৃষ্টিগোচর হয়েছে। আপনি নিশ্চয়ই অবগত আছেন যে, গত বৃহস্পতিবার, ১৮ই এপ্রিল ২০১৯ইং তারিখে সকাল ১০ ঘটিকা থেকে বিকাল ৪ ঘটিকা পর্যন্ত অবাধ, সুষ্ঠু ও সুন্দর পরিবেশে সম্পূর্ণ নিরপেক্ষভাবে বিবিআইএস-এর ম্যানেজিং কমিটি মহিলা অভিভাবক সদস্যপদে ভোটগ্রহণ অনুষ্ঠিত হয়। এখানে উল্লেখ্য যে, ম্যানেজিং কমিটির ৬ জন প্রতিষ্ঠাতা সদস্য, সাধারণ অভিভাবক সদস্য এবং ২ জন শিক্ষক প্রতিনিধি বিনা প্রতিদ্বন্দ্বিতায় নির্বাচিত হন।

১৮ই এপ্রিল ২০১৯ইং তারিখে অনুষ্ঠিত নির্বাচনে জেলা প্রশাসকের নির্দেশে প্রিজাইডিং অফিসার হিসেবে উপজেলা মাধ্যমিক শিক্ষা অফিসার গোলাম রব্বানী মজুমদার দায়িত্ব পালন করেন। ৩ জন মহিলা অভিভাবক সদস্য প্রার্থীর ৩ জন নির্বাচনী পোলিং এজেন্ট সম্পূর্ণ শান্তিপূর্ণ পরিবেশে দিনব্যাপী তাদের দায়িত্ব পালন করেন এবং ভোট গ্রহণ, গণনা ও ফলাফল ঘোষণার সময়ে তারা উপস্থিত ছিলেন। ভোট গ্রহণ নিয়ে তাদের কোন অভিযোগ ছিল না, এমনকি নির্বাচন চলাকালে ফেইসবুক সহ অনলাইন মিডিয়ায় ছবি, ভিডিও ফুটেজ প্রচারের মাধ্যমে অভিভাবকরা নির্বাচন নিয়ে সন্তুষ্টি প্রকাশ করেন এবং এগুলোতে পরাজিত মহিলা অভিভাবক সদস্য প্রার্থী সুলতানা জাহান নাসরীন সহ অন্যান্য অভিভাবকদের বক্তব্য সংযুক্ত ছিল।
G
বিবিআইএস অত্যন্ত দুঃখের সাথে জানাচ্ছে যে, আপনার বহুল প্রচারিত পত্রিকায় প্রকাশিত খবরে এরূপ উল্লেখ ছিল যে, ‘স্কুল কর্তৃপক্ষ শিক্ষকদের ব্যবহার করে ও লোভনীয় অফার দিয়ে ম্যানেজ করে প্রার্থীদেরকে জয়ী করেছে। এরা অভিভাবকদের সত্যিকারের প্রতিনিধি নয়। ভুয়া ম্যানেজিং কমিটি গঠনের চক্রান্তকারীরা মূলত প্রতিষ্ঠানকে পিছিয়ে দিচ্ছে। চক্রান্তকারীদেরকে অভিভাবকরা প্রত্যাখ্যান করেছেন। এদেরকে চরম মূল্য দিতে হবে। ষড়যন্ত্রকারীরা মূলত নিজেদের ফায়দা হাসিল করে বেঈমানি করে শিক্ষার্থী ও অভিভাবকদের বোঝা বাড়াবে।’ এধরণের বক্তব্য সংবাদপত্রের মূল্যবোধ ও ন্যায়নিষ্ঠতার মূলে কঠোরভাবে আঘাত করে। একটি শিক্ষা প্রতিষ্ঠানকে জড়িয়ে এ ধরণের বক্তব্য চরম অপমানজনক, মানহানিকর ও বিভ্রান্তিকর, কেননা এ নির্বাচন উপজেলা মাধ্যমিক শিক্ষা অফিসারের সম্পূর্ণ এখতিয়ার ও পরিচালনায় অনুষ্ঠিত হয়েছে, যেখানে স্কুল কর্তৃপক্ষের কোন নিয়ন্ত্রণ ছিল না।

১৯৯৭ সালে প্রতিষ্ঠিত বৃটিশ বাংলাদেশ ইন্টারন্যাশনাল স্কুল এন্ড কলেজ (বিবিআইএস) সিলেটের একটি ঐতিহ্যবাহী ইংরেজি মিডিয়াম স্কুল, যার মূল লক্ষ্য এ বিদ্যালয়ের শিক্ষার্থীদের একটি সুন্দর ভবিষ্যতের দিকে পরিচালনা করা। এই লক্ষ্য অর্জনে আমাদের সম্মিলিত প্রয়াসে দিনে দিনে উন্নতি অর্জন করবে বলে আমাদের বিশ্বাস।’

আরও পড়ুন