বিবিআইএস এর অধ্যক্ষ জাহাঙ্গীরের অপসারন চায় অভিভাবকরা

,
প্রকাশিত : ১৪ মার্চ, ২০১৮     আপডেট : ৩ বছর আগে
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  

সিলেট এক্সপ্রেস ডেস্ক:    বৃটিশ বাংলাদেশ ইন্টারন্যাশনাল স্কুল এন্ড কলেজ (বিবিআইএস) এর অধ্যক্ষের অপসারন চেয়ে আন্দোলনে নেমেছেন সংশ্লিষ্ঠ প্রতিষ্ঠানের অভিভাবকরা। প্রতিষ্ঠান প্রধানের বিরুদ্ধে অযোগ্যতা, অভিভাবক ও শিক্ষার্থীদের মাঝে বিবেধ, কোন্দল সৃষ্ঠি, কোন কারণ ছাড়াই অভিভাবক সমন্বয় কমিটি বাতিলসহ চক্রান্তের অভিযোগে পরিচালনা পর্ষদের কাছে লিখিত দাবী জানাবেন তারা। আজ বিবিআইএস এর অভিভাবকদের এক সভায় তার অপসারন চেয়ে এপ্রিলের প্রথম সপ্তাহ থেকে দুই ক্যাম্পাসে যৌথভাবে লিফলেট বিতরন, সভা, মতবিনিময়, সাংবাদিক সম্মেলন করার সিদ্ধান্ত নেয়া হয়।

সভায় মেইন ক্যাম্পাসে অভিভাবকদের ঢুকতে দেয়া হলেও হাউজিং এষ্টেট ক্যাম্পাসে জঙ্গীঁ তকমা তুলে অভিভাবকদের ডুকতে বাধা দেয়া হয়। সুনামধন্য এই প্রতিষ্ঠান কে নিম্নমুখী করেছে উল্লেখ করে শিক্ষার সার্বিক প্রতিযোগিতামূলক মান উন্নয়নে ভূমিকা রাখতে পারেনি অভিযোক্ত দুই ক্যাম্পাসের একাডেমিক প্রধানরা। জুনিয়র ক্যাম্পাসের ইনচার্জ নাজভীন আক্তারের দুর্ব্যবহার, গাফলাতী, দাম্বীকতায় জনাব তারেক, জনাব মিনহাজ, জনাব গুলজার, জনাব পিপলু সহ অনেক অভিভাবক তার সন্তানকে নিয়ে স্কুল ছেড়ে চলে গেছেন। অধ্যক্ষ জাহাঙ্গীর আহমদের এক গুয়েমী ও চক্রান্তের কারণে বিশ বৎসর উদযাপন নিম্নমানের হওয়ায় প্রতিষ্ঠানের ভাবমূর্তি ক্ষতিগ্রস্থ হয়েছে। তার অযোগ্যতা, অদক্ষতা, চক্রান্ত ঐতিহ্যবাহী এই প্রতিষ্ঠানকে ক্ষতি করছে। পিছিয়ে পড়ছে প্রতিষ্ঠানটি। সিলেট নগরীর পাঠানটুলার একটি অভিজাত রেষ্টুরেন্টে আয়োজিত দুই ক্যাম্পাসের অভিভাবকদের এই যৌথ সভায় সভাপতিত্ব করেন জনাব আব্দুল হান্নান। অন্যান্যদের মধ্যে বক্তব্য রাখেন ইব্রাহীম আহমদ, সফিক আলম, আছমা জাহান, ফারজানা আক্তার, রাজিয়া বেগম, আমিনা চৌধুরী, ফয়ছল আলম, এখলাছ আমীন, নুরুল হুদা, দীঘেন ঘোষ, আবুল কাশেম প্রমুখ।


  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  

আরও পড়ুন