বানিয়াচংয়ের কুখ্যাত ডাকাত ওয়াদুদ শ্রীমঙ্গলে মাদকসহ গ্রেফতার

,
প্রকাশিত : ২৪ সেপ্টেম্বর, ২০২০     আপডেট : ১ মাস আগে
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  

সিলেট এক্সপ্রেস ডেস্ক বানিয়াচং উপজেলা সদরের আন্তঃজেলার কুখ্যাত এক ডাকাত ওয়াদুদ (৪০)কে মাদকসহ গ্রেফতার করেছে মৌলভীবাজার জেলার শ্রীমঙ্গল থানা পুলিশ। গ্রেফতারকৃত ডাকাত বানিয়াচং উপজেলা সদরের ৩নং দক্ষিণ পূর্ব ইউপি’র ৩নং ওয়ার্ড জাতুকর্নপাড়া গ্রামের মৃত ধলাই মিয়ার পুত্র ওয়াদুদ(৪০)। পুলিশ সূত্রে জানা যায়,গত ২২সেপ্টে¤¦র মঙ্গলবার দিবাগত রাত ৯টায় গোপন সংবাদের ভিত্তিতে শ্রীমঙ্গল থানার অফিসার ইনচার্জ (ওসি) আব্দুল সালেকের নেতৃত্বে এস,আই আলামিন,এএসআই নজরুলসহ একদল পুলিশ চৌমুহনী এলাকায় অভিযান চালিয়ে কুখ্যাত ডাকাত ওয়াদুদকে বিপুল পরিমাণ মাদকসহ গ্রেফতার করা হয়। পরে তার বিরুদ্ধে মাদক নিয়ন্ত্রন আইনে একটি মামলা করা হয় এবং ঐ মামলায় ওয়াদুদকে আদালতের মাধ্যমে জেল হাজতে প্রেরন করা হয়। এছাড়াও গ্রেফতারকৃত ওয়াদুদের বিরুদ্ধে বিভিন্ন জেলার বিভিন্ন থানায় বহু চুরি,ডাকাতি ও অস্ত্র মামলা রয়েছে বলে জানান এস,আই আলামিন। এব্যাপারে শ্রীমঙ্গল থানার অফিসার ইনচার্জ(ওসি)আব্দুল সালেক গ্রেফতারের বিষয়টি নিশ্চিত করে জানান,সে আন্তঃজেলার কুখ্যাত ডাকাত এমনকি তার বিরুদ্ধে ক’টি জেলায় বেশ কিছু মামলা রয়েছে বলেও জানতে পেরেছেন তারা।সে দীর্ঘদিন ধরে পুলিশের চোখ ফাঁকি দিয়ে বিভিন্ন এলাকায় অপরাধ করে যাচ্ছিল। এদিকে গ্রেফতারকৃত ওয়াদুদ সম্পর্কে বেশকটি থানায় যোগাযোগ করা হলে তার বিরুদ্ধে চুরি,ডাকাতি,অস্ত্র ও মাদকসহ ১২টি মামলার তথ্য পাওয়া যায়।সে দীর্ঘদিন ধরে পলাতক ছিল বলেও জানা যায়। এসব মামলার মধ্যে মৌলভীবাজার জেলার সদর থানায় ২টি ডাকাতি মামলা রয়েছে। বড়লেখা থানায় রয়েছে ১টি ডাকাতি ও ১টি অস্ত্র মামলা। শ্রীমঙ্গল থানায় রয়েছে ১টি ডাকাতি,৩টি চুরি ও ১টি মাদক মামলা। এছাড়াও হবিগঞ্জ জেলার বাহুবল থানায় ১টি চুরির মামলা এবং বানিয়াচং থানায় রয়েছে ২টি চুরির মামলা। শ্রীমঙ্গল থানায় গ্রেফতার হওয়া ডাকাত ওয়াদুদের বিষয়টি তার নিজ এলাকায় জানাজানি হলে,অনেকেরই মাঝে শস্তি ফিরে এসেছে এবং শ্রীমঙ্গল থানা পুলিশকে ধন্যবাদ জানিয়েছেন। একটি সূত্র জানান,ওয়াদুদ বানিয়াচং,আজমিরিগঞ্জ উপজেলায় বিভিন্ন চুরি-ডাকাতির ঘটনার সাথে জড়িত এমনকি সে বাহির থেকে চুর-ডাকাত এনে বিভিন্ন এলাকায় চুরি-ডাকাতি সংঘঠিত করত। অনেকে এ প্রতিনিধিকে জানান, বানিয়াচং থানা পুলিশ যদি, গ্রেফতারকৃত ডাকাতকে পুরাতন মামলায় গ্রেফতার দেখিয়ে রিমান্ডে আনার ব্যবস্থা করেন,তাহলে অনেক চুরি-ডাকাতির গুরুত্বপূর্ণ তথ্য পাওয়া যাবে।


  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  

আরও পড়ুন