বাংলাদেশের জাতীয় অর্থনৈতিক নির্বাহী কমিটি

প্রকাশিত : ০৯ জুলাই, ২০১৯     আপডেট : ৭ মাস আগে  
  

বাংলাদেশের জাতীয় অর্থনৈতিক নির্বাহী কমিটি (একনেক)-এর ২০১৯-২০ অর্থবছরের ১ম সভায় আজ ০৯ জুলাই,২০১৯ তারিখ শাহজালাল বিজ্ঞান ও প্রযুক্তি বিশ^বিদ্যালয়ের অধিকতর উন্নয়ন (২য় পর্যায়) শীর্ষক প্রকল্প প্রস্তাব অনুমোদিত হয়। বিশ^বিদ্যালয় সার্বিক অবকাঠামোগত উন্নয়নের লক্ষ্যে এই প্রকল্প বাস্তবায়নের মোট ব্যয় ধরা হয়েছে ৯৮৭ কোটি ৭৯ লক্ষ টাকা।

প্রকল্পের আওতায় ২১০০ জন ছাত্র-ছাত্রীদের আবাসন সুবিধা সম্বলিত ১০ তলা বিশিষ্ট ২টি হল, গ্র্যাজুয়েট ও বিদেশী ছাত্রদের জন্য ৭ তলা বিশিষ্ট ১টি হোস্টেল, সিনিয়র শিক্ষক ও কর্মকর্তাদের ১১ তলা বিশিষ্ট ২টি আবাসিক ভবন, জুনিয়র শিক্ষক ও কর্মকর্তাদের ১১ তলা বিশিষ্ট ২টি আবাসিক ভবন, কর্মচারীদের জন্য ১০ তলা বিশিষ্ট ১টি আবাসিক ভবন, ১০ তলা বিশিষ্ট ৩য় প্রশাসনিক ভবন, ১০ তলা বিশিষ্ট ৪টি শিক্ষা ভবন, বিশ^বিদ্যালয়ের পরিবহনের কেন্দ্রিয় ওয়ার্কশপ, বিশ^বিদ্যালয় স্কুল ও কলেজের ৬ তলা বিশিষ্ট ১টি ভবন, ৪ তলা বিশিষ্ট ১টি হল মসজিদ, পরিবহনের কেন্দ্রিয় গ্যারেজ বর্ধিতকরণ, ক্যাম্পাসের প্রধান সড়কের উভয় পাশে ১৫ মিটার স্প্যানের ২টি ব্রীজ এবং ৩৩/১১ কেভি ১০ এমভিএ বৈদ্যুতিক সাব-স্টেশন নির্মাণ ও স্থাপন করা হবে।

উল্লেখ্য, পূর্বে অনুমোদিত উন্নয়ন প্রকল্প (১ম পর্যায়)-এর বাস্তবায়ন প্রক্রিয়া এগিয়ে চলছে। সরকারের প্রয়োজনীয় অনুমোদন পাওয়া মাত্রই প্রকল্পের কাজের অগ্রগতি দৃশ্যমান হবে। এ প্রকল্পে মোট ২০০ কোটি ৩৮ লক্ষ টাকা বরাদ্দ রয়েছে।

আজকের একনেক সভায় অধিকতর উন্নয়ন প্রকল্প (২য় পর্যায়)-এর প্রস্তাব অনুমোদিত হওয়ায় বিশ^বিদ্যালয়ের ভাইস-চ্যান্সেলর প্রফেসর ফরিদ উদ্দিন আহমেদ মাননীয় প্রধানমন্ত্রী জননেত্রী শেখ হাসিনার প্রতি আন্তরিক কৃতজ্ঞতা জানান এবং বিশ^বিদ্যালয়ের পক্ষ থেকে ধন্যবাদ জ্ঞাপন করেন। তিনি অন্য সংশ্লিষ্ট সকলের প্রতিও কৃতজ্ঞতা জানিয়ে প্রকল্প বাস্তবায়নে সকল মহলের সহযোগিতা কামনা করেন।

আরও পড়ুন