বঙ্গবীর জেনারেল ওসমানী’র ৩৫ তম মৃত্যুবার্ষিকী শনিবার

প্রকাশিত : ১৫ ফেব্রুয়ারি, ২০১৯     আপডেট : ১১ মাস আগে  
  

মহান মুক্তিযুদ্ধের কমান্ডার-ইন-চিফ, আজীবন গণতন্ত্রী,নীতি ও আদর্শের প্রতি অবিচল, দেশ ও জাতির দূর্যোগ-দূর্বিপাকের সার্থক কান্ডারী, বঙ্গবীর জেনারেল মহম্মদ আতাউল গণী ওসমানী’র ৩৫ তম মৃত্যুবার্ষিকী শনিবার।
জাতির এ সূর্যসন্তানের মৃত্যুবার্ষিকী যথাযোগ্য মর্যাদায় পালনের লক্ষ্যে বিভিন্ন রাজনৈতিক, সামাজিক, সাংস্কৃতিক এবং স্বেচ্ছাসেবী সংগঠন নানা কর্মসূচি গ্রহণ করেছে। এসব কর্মসূচির মধ্যে রয়েছে মরহুম ওসমানীর মাজার জিয়ারত, শ্রদ্ধাঞ্জলি নিবেদন, কোরানখানি, মিলাদ ও দোয়া মাহফিল, আলোচনা সভা, শিক্ষার্থীদের জন্য প্রতিযোগিতা এবং পুরষ্কার বিতরণ অনুষ্ঠান।
বিশ্বের নানা দেশে অবস্থানরত প্রবাসী বাংলাদেশীরাও মুক্তিযুদ্ধের কমান্ডার-ইন-চিফ বঙ্গববীর জেনারেল এম.এ.জি ওসমানীর মৃত্যুবার্ষিকী পালন করছেন ।
ওসমানী জন্মশতবার্ষিকী উদযাপন পরিষদ :
বঙ্গবীর জেনারেল এম,এ,জি ওসমানী জন্মশতবার্ষিকী উদযাপন পরিষদ বাংলাদেশ এবং বঙ্গবীর জেনারেল এম এ জি ওসমানী মেমোরিয়াল ফাউন্ডেশন ইউকে’র যৌথ উদ্যোগে বঙ্গবীর ওসমানীর ৩৫ তম মৃত্যুবার্ষিকী উপলক্ষে ১৫ ফেব্রুয়ারি শুক্রবার জুমআ’র নামাজে সিলেট বিভাগের বিভিন্ন মসজিদে মরহুম ওসমানীর রুহের মাগফিরাত কামনায় বিশেষ মোনাজাত করা হয়।
শুক্রবার বিকেল ৪ টায় বঙ্গবীর ওসমানী জন্মশতবার্ষিকী উদযাপন পরিষদের কর্মকর্তা ও সদস্যরা হযরত শাহজালাল রহ. দরগাহ কমপ্লেক্সে অবস্থিত মরহুম ওসমানীর মাজার জেয়ারত, শ্রদ্ধাঞ্জলি নিবেদন, ফাতেহা পাঠ এবং মরহুম ওসমানীর রুহের মাগফিরাত কামনায় মোনাজাত করেন। পরে দরগাহ মসজিদে এক মিলাদ মাহফিলের আয়োজন করা হয়। কবর জিয়ারত এবং মিলাদ মাহফিলে দোয়া পরিচালনা করেন উদযাপন পরিষদের যোগাযোগ উপ-পরিষদের আহ্বায়ক ও বীর মুক্তিযোদ্ধা আলহাজ্ব এম,এ,মালেক খান।
পরে দরগাহ গেইটস্থ একটি অভিজাত হোটেলের সম্মেলন কক্ষে অনুষ্ঠিত হয় মৃত্যুবার্ষিকী উপলক্ষে এক আলোচনা অনুষ্ঠান।
বঙ্গবীর ওসমানী জন্মশতবার্ষিকী উদযাপন পরিষদের কেন্দ্রীয় সদস্য-সচিব ও প্রধান সমন্বয়কারী মুহাম্মদ ফয়জুর রহমানের সভাপতিত্বে আলোচনা সভায় ওসমানীর অনুকরণীয় জীবন ও কর্মের উপর আলোকপাত করে বক্তব্য রাখেন বঙ্গবীর জেনারেল এম এ জি ওসমানী মেমোরিয়াল ফাউন্ডেশন ইউকে ও জন্মশতবার্ষিকী উদযাপন পরিষদ যুক্তরাজ্য চাপ্টারের জয়েন্ট মেম্বার-সেক্রেটারি খান জামাল নজরুল ইসলাম, প্রবীণ সাংবাদিক- কলামিস্ট আফতাব চৌধুরী, শাবিপ্রবি’র সাবেক রেজিস্ট্রার জামিল আহমদ চৌধুরী, বাংলাদেশ ব্যাংকের সাবেক জেনারেল ম্যানেজার মো. আব্দুর রউফ, আটাব সিলেট জোনের সাবেক সভাপতি ইমদাদুল হক বেলাল, সাবেক উপজেলা আনসার-ভিডিপি কর্মকর্তা নুরুল ইসলাম মজুমদার, সিলেট কৃষি বিশ্ববিদ্যালয়ের ডেপুটি রেজিস্ট্রার শেখ মশিউর রহমান প্রমুখ।

আলোচনা সভায় বক্তারা, বঙ্গবীর জেনারেল ওসমানীর জীবন ও কর্মের রাষ্ট্রীয় মূল্যায়ন, জন্ম ও মৃত্যুবার্ষিকী জাতীয় ভাবে পালন, পাঠ্য পুস্তকে ওসমানীর জীবন ও কর্মের অন্তর্ভূক্তি, বঙ্গবীর পদবী অন্য কেউ ব্যবহার না করা এবং ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয় ও শাহজালাল বিশ্ববিদ্যালয়সহ বিভিন্ন বিশ্ববিদ্যালয়ে ‘ওসমানী চেয়ার’ চালু করার দাবি জানান।
‘বঙ্গবীর জেনারেল ওসমানী জন্মশতবার্ষিকী উদযাপন পরিষদ’-আয়োজিত মৃত্যুবার্ষিকীর কর্মসূচি সমুহে উদযাপন পরিষদের অন্যান্যের মধ্যে উপস্থিত ছিলেন মাহবুবুজ্জামান চৌধুরী, এম. সিরাজুল ইসলাম, আকলিছ আহমদ চৌধুরী, আহমেদ বকুল, মো. শফিকুর রহমান শফিক, আমীন তাহমীদ, ইসমত ইবনে ইসহাক, কয়েছ আহমদ সাগর, জাবেদুল ইসলাম দিদার, মোঃ আমির মিয়া ও আবুল হায়াত প্রমুখ।
ওসমানী জাদুঘর :
বঙ্গবীর ওসমানীর ৩৫ তম মৃত্যুবার্ষিকী উপলক্ষে সিলেট নগরীর নাইওরপুলস্থ ওসমানী জাদুঘর আয়োজিত কর্মসূচির মধ্যে রয়েছে শনিবার সকাল ১০ টা থেকে খতমে কোরআন ও দোয়া মাহফিল, মরহুমের মাজার জিয়ারত, বিকেল ৪টায় জাদুঘর প্রাঙ্গনে আলোচনা সভা এবং মৃত্যুবার্ষিকী উপলক্ষে মাধ্যমিক ও উচ্চ মাধ্যমিক পর্যায়ের শিক্ষার্থীদের জন্য আয়োজিত রচনা প্রতিযোগিতায় বিজয়ীদের মধ্যে পুরষ্কার বিতরণ অনুষ্ঠান। এতে সমাজের সর্বস্তরের নাগরিকবৃন্দের উপস্থিতি কামনা করা হয়েছে।
এছাড়াও, মুক্তিযোদ্ধা সংসদসহ বিভিন্ন সামাজিক, পেশাজীবী ও স্বেচ্ছাসবী সংগঠন বঙ্গবীর ওসমানীর মৃত্যুবার্ষিকী পালনে কর্মসূচি গ্রহণ করেছে। বিজ্ঞপ্তি

আরও পড়ুন



মুক্তিযুদ্ধের সংগঠক রণজিৎ তালুকদারের স্মরণসভা

সিলেট এক্সপ্রেস ডেস্ক: উণসত্তোরের গণ...

ধোপাদিঘীপাড়ে আরো এক আভিজাত্য গণশৌচাগার

সিলেট এক্সপ্রেস ডেস্ক: মাত্র কয়েক...

একাদশ কেমুসাস বইমেলা শুরু হচ্ছে আজ

দেশের প্রাচীনতম সাহিত্য প্রতিষ্ঠান কেন্দ্রীয়...