বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিব হাইটেক পার্ক উদ্বোধন

Alternative Text
,
প্রকাশিত : ২৮ জুলাই, ২০১৯     আপডেট : ২ বছর আগে
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  

সিলেটের কোম্পানীগঞ্জে নবনির্মিত সিলেট হাইটেক পার্কের (ইলেকট্রনিকস সিটি) নাম পরিবর্তন করে নতুন নামকরণ করা হয়েছে বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিব হাইটেক পার্ক। শনিবার নতুন নামে এ পার্কের নাম ফলক উন্মোচন করা হয়। একই সময় পার্কের বৈদ্যুতিক উপকেন্দ্র এবং শেখ কামাল আইটি ট্রেনিং এন্ড ইনকিউবেশন সেন্টারের ভিত্তিপ্রস্তুর স্থাপন করা হয়েছে।

নাম ফলক উন্মোচন অনুষ্ঠানে অতিথি ছিলেন পররাষ্ট্রমন্ত্রী ড. এ কে আব্দুল মোমেন এমপি, প্রবাসী কল্যাণ ও বৈদেশিক কর্মসংস্থান মন্ত্রী ইমরান আহমদ এমপি এবং তথ্য ও যোগাযোগ প্রযুক্তি প্রতিমন্ত্রী জুনায়েদ আহমদ পলক এমপি।

অনুষ্ঠানে অনুষ্ঠানে পররাষ্ট্রমন্ত্রী ড. একে আব্দুল মোমেন বলেন, ‘দেশি-বিদেশী বিনিয়োগের জন্য বাংলাদেশে উপযুক্ত পরিবেশ বিরাজ করছে। এ হাইটেক পার্কে দক্ষ মানবসম্পদ সৃষ্টিসহ অনেক কর্মসংস্থান সৃষ্টি হবে; যা এ অঞ্চলের অর্থনীতির আমূল পরিবর্তন আনবে।’

প্রবাসী কল্যান ও বৈদেশিক কর্মসংস্থান মন্ত্রী ইমরান আহমদ এমপি বলেন, ‘বর্তমান সরকার ঘোষিত রূপকল্প-২০২১ অনুযায়ী তথ্য ও যোগাযোগ প্রযুক্তি (আইসিটি) সেক্টর হবে বাংলাদেশের অর্থনীতির অন্যতম চালিকা শক্তি। এ প্রকল্প সিলেট শহর হতে ২৫ কিলোমিটার, বিমানবন্দর থেকে ২০ কিলোমিটার ও রেলস্টেশন হতে মাত্র ২৮ কিলোমিটার দূরে হওয়ায় বিনিয়োগের জন্য খুবই উপযোগী হবে।’

আইসিটি প্রতিমন্ত্রী জুনায়েদ আহমদ পলক বলেন, ‘শাহজালাল বিজ্ঞান ও প্রযুক্তি বিশ্ববিদ্যালয়, সিলেট মেডিকেল কলেজ ও সিলেট এমসি কলেজসহ বিভিন্ন শিক্ষাপ্রতিষ্ঠানে লক্ষাধিক শিক্ষার্থী রয়েছে। মূলত তাদের কথা বিবেচনায় প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা এই অঞ্চলের জন্য একটি হাই-টেক পার্ক প্রতিষ্ঠার কথা বলেছিলেন। এর ফলে তিনি ২০১৬ সালের ২১ জানুয়ারি সিলেট হাই-টেক পার্কের ভিত্তিপ্রস্তর স্থাপন করেন। বর্তমানে তা দৃশ্যমান হয়েছে। ’

অনুষ্ঠানে উপস্থিত ছিলেন- সিলেটের বিভাগীয় কমিশনার মো. মোস্তাফিজুর রহমান পিএএ, জেলা প্রশাসক এম কাজী এমদাদুল ইসলাম, সাবেক সাংসদ জেবুন্নেছা হক, সিলেট জেলা আওয়ামী লীগের সাধারণ সম্পাদক শফিকুর রহমান, দপ্তর বিষয়ক সম্পাদক এড. মাহফুজুর রহমান প্রমুখ।

সারা দেশে ১০টি ইলেকট্রনিকস সিটি নির্মাণের আওতায় বাংলাদেশ হাইটেক পার্ক অথরিটির তত্বাবধানে ২০১৬ সালে সিলেট-কোম্পানীগঞ্জ-ভোলাগঞ্জ সড়কের ২০তম কিলোমিটারে বর্ণি গ্রামে ১৬২ একর জমিতে শুরু হয় এ পার্কের নির্মাণকাজ। বাংলাদেশ নৌবাহিনীর ডকইয়ার্ড অ্যান্ড ইঞ্জিনিয়ারিং ওয়ার্কস নির্মাণ কাজের দায়িত্বে রয়েছে।


  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  

আরও পড়ুন

মেধাবী সুমনা‘টাকার অভাবে যেন মারা না যায়’

         দুটি কিডনী বিকল হয়ে যাওয়া...

ইফতারি

         জিন্নিয়া সুলতানা: মধ্যবিত্ত পরিবারের মেয়ে...

আজিজ আহমদ সেলিমের সুস্থতা কামনা করেছে ফটো জার্নালিস্ট এসোসিয়েশন

2        2Sharesসিলেট এক্সপ্রেস ডেস্ক সিলেটের জ্যেষ্ঠ...