বঙ্গবন্ধুর ভাষণ শুনিয়ে বেড়ান ফেরদৌস

,
প্রকাশিত : ১২ মার্চ, ২০১৮     আপডেট : ৩ বছর আগে
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  

সিলেট এক্সপ্রেস ডেস্ক : বঙ্গবন্ধুর ভাষণ শুনিয়ে বেড়ান সিলেটের ফেরদৌস মিয়া। মার্চ এলেই ডাক পড়ে তার। বিভিন্ন অনুষ্ঠানে ছুটে যান। দরাজ কণ্ঠে শুনিয়ে দেন বঙ্গবন্ধুর ৭ই মার্চের সেই ভাষণ। ফেরদৌস মিয়া সিলেটের জিন্দাবাজারে এক পান দোকানি। পড়ালেখাও তেমন করেননি।
কিন্তু দীর্ঘ ২২ বছর ধরে বঙ্গবন্ধুর সেই ঐতিহাসিক ভাষণ শুনিয়ে যাচ্ছেন মানুষকে। তার ভাষণ শুনে জনগণও থমকে দাঁড়ায়। মানুষকে ভাষণ শুনিয়ে তৃপ্ত ফেরদৌস মিয়াও। তার মূল বাড়ি নেত্রকোনা জেলার মোহনগঞ্জের পিরোজপুর গ্রামে। ওখানেই জন্ম ফেরদৌস মিয়ার। গ্রামের স্কুলে ৫ম শ্রেণি পর্যন্ত লেখাপড়া করেছিলেন। অভাবের কারণে বেশি দূর এগোয়নি তারা শিক্ষাজীবন। একদিন রেডিওতে শুনেন বঙ্গবন্ধুর ৭ই মার্চের ভাষণ। ওই ভাষণ তাকে আলোড়িত করে। মুগ্ধ হয়ে ভাষণ শুনেন ফেরদৌস মিয়া। ১৯৮৫ সাল থেকে তিনি ধীরে ধীরে মুখস্থ করা শুরু করেন। ১০ বছরে তিনি হুবহু ভাষণ মুখস্থ করে ফেলেন। শুধু মুখস্থ নয়, বলতে পারেন বঙ্গবন্ধুর ভাষণের মতো। ফেরদৌস মিয়া জানালেন- কিশোর বয়সে তিনি গ্রামের এক খোলা স্থানে দাঁড়িয়ে বঙ্গবন্ধুর ভাষণ বলছিলেন। এ সময় গ্রামের এক ব্যক্তি এসে তাকে বাধা দেয়। বাধা উপেক্ষা করে তিনি আকর্ষিত ওই ভাষণ চালিয়ে যান। পরে ওই ব্যক্তি তাকে মারধরও করেন। এ কারণে তিনি আরো বেশি জেদ ধরেন। ভাষণ শেখবেন এবং সবাইকে শোনাবেন। অনেক দিন ধরে এই ভাষণই শুধু নয়, বঙ্গবন্ধুর স্বদেশ প্রত্যাবর্তনের দিন দেয়া ভাষণও তার মুখস্থ।


  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  

আরও পড়ুন

সিলেট সদর উপজেলা স্কাউটস

         সিলেট এক্সপ্রেস ডেস্ক: বাংলাদেশ স্কাউটস...

সিসিকের খাদ্য সহায়তা পেল ৩১ হাজার ২০০ পরিবার

1        1Shareকরোনা পরিস্থিতিতে সিলেট সিটি করপোরেশনের...

দক্ষিণ সুরমা খোজারখলায় ৪০ বছর পর ৩৩ ডিসিমেল ভূমি উদ্ধার

         সিলেটের দক্ষিণ সুরমা এলাকার খোজারখলা...

তার বাইকের পেছনে একদিন

         সেলিম আউয়াল :: খাটো সাইজের...