প্রাক্তন নেতৃবৃন্দকে সম্মাননা দিয়ে অনুকরণীয় দৃষ্টান্ত স্থাপন করেছে সিলেট চেম্বার

,
প্রকাশিত : ৩০ অক্টোবর, ২০১৮     আপডেট : ৩ বছর আগে
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  

সিলেট এক্সপ্রেস ডেস্ক: দি সিলেট চেম্বার অব কমার্স এন্ড ইন্ডাস্ট্রি’র প্রাক্তন নির্বাচিত সভাপতি, সিনিয়র সহ সভাপতি ও সহ সভাপতিবৃন্দের সম্মাননা প্রদান অনুষ্ঠানে প্রধান অতিথির বক্তব্যে এফবিসিসিআই এর সভাপতি মোঃ শফিউল ইসলাম (মহিউদ্দিন) বলেছেন, অতীতকে স্মরণ করে সিলেট চেম্বার যে অনন্য দৃষ্টান্ত স্থাপন করলো তা ব্যবসায়ীদের অনুপ্রেরণার উৎস্য হয়ে থাকবে। এ সম্মাননা একটি প্রশংসনীয় ও মহৎ উদ্যোগ উল্লেখ করে তিনি বলেন, সিলেট চেম্বারের এই দৃষ্টান্ত এফবিসিসিআই-তে চর্চা করা হবে। তিনি বলেন, অতীতকে ভুলে যাওয়া আমাদের একটি প্রবণতা। কিন্তু সিলেট চেম্বার প্রাক্তন নেতৃবৃন্দকে সম্মানিত করে নতুন উদাহরণ সৃষ্টি করেছে।

গতকাল (৩০ অক্টোবর ২০১৮ইং) বিকালে চেম্বার কনফারেন্স হলে সিলেট চেম্বারের বর্তমান কমিটির উদ্যোগে আয়োজিত নির্বাচিত প্রাক্তন নেতৃবৃন্দের সংবর্ধনা অনুষ্ঠানে সভাপতিত্ব করেন সিলেট চেম্বারের সভাপতি খন্দকার সিপার আহমদ।

প্রধান অতিথির বক্তব্যে বাংলাদেশের ব্যবসায়ীদের শীর্ষ সংগঠন এফবিসিসিআই এর সভাপতি বিশিষ্ট শিল্পপতি মোঃ শফিউল ইসলাম (মহিউদ্দিন) সিলেট চেম্বারের কর্মকান্ডের ভূঁয়সী প্রশংসা করে বলেন, সিলেট চেম্বার অব কমার্স এন্ড ইন্ডাস্ট্রি একটি ঐতিহ্যবাহী ব্যবসায়ী সংগঠন যার যাত্রা শুরু এফবিসিসিআই এর আগে। সিলেট চেম্বার এই অঞ্চলের ব্যবসা-বাণিজ্য, শিল্প ও পর্যটন খাতের উন্নয়নে প্রচেষ্টা চালিয়ে যাচ্ছে। তিনি সিলেট অঞ্চলে শিল্প প্রতিষ্ঠান বৃদ্ধি না হওয়া দূর্ভাগ্যজনক উল্লেখ করে বলেন, বিপুল পরিমান জমি এবং গ্যাস থাকার পরও আশানুরূপ শিল্প প্রতিষ্ঠান গড়ে ওঠেনি। তিনি এব্যাপারে সিলেট চেম্বারকে সব ধরণের সহযোগিতার আশ্বাস দেন। তিনি বলেন, বাংলাদেশ এগিয়ে যাচ্ছে। বিশ্বের দরবারে মাথা উঁচু করে দাঁড়িয়েছে। ৪ লক্ষ ৬৪ হাজার কোটি টাকার বাজেটের সিংহভাগ অর্থই ব্যবসায়ীরা যোগান দিয়ে থাকেন। তাই সব অঞ্চলের ব্যবসায়ীদের মূল্যায়ন করেই দেশকে এগিয়ে নিয়ে যেতে হবে। ব্যবসায়ীদের অধিকারে আমি মাথা উঁচু করে কথা বলি। আমরা কথা বলেছিলাম বলেই প্রধানমন্ত্রী তা বুঝতে পেরেছিলেন এবং সংসদে তিনি ভ্যাট আইন স্থগিত করেছেন।

অনুষ্ঠানে সম্মাননা গ্রহণ করেন সাবেক সভাপতি মরহুম খন্দকার আব্দুল মালিক এর পক্ষে খন্দকার আব্দুল মুক্তাদির, মরহুম এম. এ. মুমিন এর পক্ষে সানজিদা খানম, সাবেক সভাপতি এম. এ. ছালাম চৌধুরীর পক্ষে আহমদ আল সাবির, এম. এ. রাজ্জাক চৌধুরী, ফখর উদ্দিন আলী আহমদ, মুহাঃ সাফওয়ান চৌধুরী, বীর মুক্তিযোদ্ধা মরহুম মোঃ মহিউদ্দিন এর পক্ষে সাহেল হাসান, সাবেক সভাপতি ফারুক আহমদ মিছবাহ ও সালাহ্ উদ্দিন আলী আহমদ। সাবেক সিনিয়র সহ সভাপতির সম্মাননা গ্রহণ করেন মরহুম আব্দুল হান্নান চৌধুরী’র পক্ষে মোঃ রেজা চৌধুরী, মরহুম ফারুক আহমেদ এর পক্ষে আহমদ মেহেদী হাসান, প্রয়াত সুনীল রঞ্জন দাস এর পক্ষে প্রশান্ত কুমার দাস, মরহুম এস. এম. ইসমাইল এর পক্ষে ফারজানা আরেফিন, সাবেক সিনিয়র সহ সভাপতি শাহ্ আলম, নাসিম হোসেইন এর পক্ষে সাকির হোসেন, মোঃ লায়েছ উদ্দিন এর পক্ষে রাজু আহমেদ জামাল। সাবেক সহ সভাপতির সম্মাননা গ্রহণ করেন মরহুম আব্দুল বাকী চৌধুরীর পক্ষে ওমর ফারুক চৌধুরী, সাবেক সহ সভাপতি মতিউর রব, মরহুম হাবিবুর রহমান এর পক্ষে কয়েছ রহমান, মরহুম আব্দুল মজিদ এর পক্ষে রিয়াদ আহমদ, মঞ্জুর আহমদ ও ইয়াদ-এ-এলাহীর পক্ষে সাইদুর রহমান নাহিন, সাবেক সহ সভাপতি ফরিদ বক্স, মোঃ আতিকুর রহমান, আলহাজ্ব মোঃ দিলওয়ার হোসেন এর পক্ষে মুসতাকিম হোসেন, আলা বক্স, জুবায়ের আহমদ চৌধুরী ও হাজী ইফতেখার আহমদ সোহেল।

সম্মাননা গ্রহন করে প্রাক্তন নেতৃবৃন্দ বলেন, চেম্বারের বর্তমান সভাপতি ও পরিচালনা পরিষদের এই উদ্যোগ ভবিষ্যতে আমাদের অনুপ্রেরণা যোগাবে। সাবেক নেতৃবৃন্দকে নতুন প্রজন্মের সামনে এনে পরিচিত ও সম্মাননা দিয়ে একটি অনন্য উদাহরণ সৃষ্টি করলো বর্তমান কমিটি। এটি অতীতের সাথে বর্তমানের মিলন মেলা। বক্তারা এটিকে একটি মহৎ কাজ উল্লেখ করে বলেন, বর্তমান সভাপতি খন্দকার সিপার আহমদ ও পরিচালনা পরিষদ এব্যাপারে যে অক্লান্ত পরিশ্রম করেছেন সেজন্য আমরা তাকে কৃতজ্ঞতা ও ধন্যবাদ জানাচ্ছি। অনুষ্ঠানে ২৯ জন প্রাক্তন নেতৃবৃন্দকে সম্মাননা ক্রেস্ট প্রদান করা হয়।

সভাপতির বক্তব্যে সিলেট চেম্বারের সভাপতি খন্দকার সিপার আহমদ বলেন, আজকের দিনটি সিলেট চেম্বারের ইতিহাসে একটি স্মরণীয় দিন হয়ে থাকবে। ১৯৬৬ থেকে বর্তমান পর্যন্ত চলার পথে যাদের অবদান ও ত্যাগ রয়েছে তাদের কথা আমি স্মরণ করছি এবং যারা আমাদের মধ্যে নেই তাদের প্রতি আমি শ্রদ্ধা এবং আত্মার মাগফেরাত ও শান্তি কামনা করছি। তিনি চেম্বারের বিভিন্ন কার্যক্রমের চালচিত্র উল্লেখ করে বলেন, সিলেট চেম্বার সিলেটে শিল্প প্রতিষ্ঠান স্থাপন এবং ব্যবসায়ীদের কল্যাণে বিভিন্ন সেমিনার, ওয়ার্কশপ ও মতবিনিময় সভা আয়োজন করে আসছে। সিলেট হাই-টেক পার্ক নিয়ে লন্ডনে ও সিলেটে সেমিনারের আয়োজন করে প্রবাসীদের সিলেটে বিনিয়োগের আহবান জানানো হয়েছে। তিনি সিলেটে বিমানের সান্ধ্যকালীন ডমেস্টিক ফ্লাইট নিয়মিত চালু রাখার আহবান জানান। তিনি সিলেট চেম্বার ভবনে আধুনিকায়নে এফবিসিসিআই সভাপতির সহযোগিতা কামনা করেন।

অনুষ্ঠানে বিশেষ অতিথির বক্তব্য রাখেন বাংলাদেশ আওয়ামীলীগের নির্বাহী কমিটির সদস্য আ ন ম শফিকুল হক। এছাড়াও বক্তব্য রাখেন সিলেট চেম্বারের সাবেক সভাপতি সাফওয়ান চৌধুরী, ফারুক আহমদ মিছবাহ, সালাহ উদ্দিন আলী আহমদ, সাবেক সিনিয়র সহ সভাপতি শাহ্ আলম, সাবেক সহ সভাপতি মতিউর রব, ফরিদ বক্স, জুবায়ের আহমদ চৌধুরী, ফারজানা আরেফিন ও মাহজাবিন জহুরা।

সংবর্ধনা অনুষ্ঠানে উপস্থিত ছিলেন সিলেট চেম্বারের সিনিয়র সহ সভাপতি মাসুদ আহমদ চৌধুরী, পরিচালক জিয়াউল হক, মোঃ সাহিদুর রহমান, নুরুল ইসলাম, মোঃ ওয়াহিদুজ্জামান (ভূট্টো), মুশফিক জায়গীরদার, আমিরুজ্জামান চৌধুরী, এহতেশামুল হক চৌধুরী, মুকির হোসেন চৌধুরী, আব্দুর রহমান, ফালাহ উদ্দিন আলী আহমদ, মোঃ আব্দুর রহমান জামিল, হুমায়ুন আহমেদ, মুজিবুর রহমান মিন্টু, সিলেট চেম্বারের সদস্যবৃন্দ, আমন্ত্রিত অতিথিবৃন্দ, ব্যবসায়ী নেতৃবৃন্দ এবং প্রেস ও ইলেক্ট্রনিক্স মিডিয়ার প্রতিনিধিবৃন্দ।


  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  

আরও পড়ুন

শাবিপ্রবি তালামীযের কাউন্সিল স¤পন্ন

        বাংলাদেশ আনজুমানে তালামীযে ইসলামিয়া শাহজালাল...

ফজর আলীর উপর হামলাকারীদের গ্রেফতারের দাবীতে মানববন্ধন

        আম্বারখানা বাজার ব্যবসায়ী কমিটির সদস্য,...

আন্তরিকতা দিয়ে শিক্ষার্থীদেরকে গড়ে তুলতে হবে

        তাসলিমা খানম বীথি: শিক্ষা ছাড়া...

সিলেটে বিশ্ব মাতৃদুগ্ধ সপ্তাহ উপলক্ষে স্বাস্থ্য বিভাগের আলোচনা সভা

        শিশুকে মাতৃদুগ্ধ পান করাতে মাতা-পিতাকে...