প্যানেলে প্রাথমিকে সহকারী শিক্ষক পদে নিয়োগের দাবিতে সিলেটে মানববন্ধন

,
প্রকাশিত : ৩০ সেপ্টেম্বর, ২০২০     আপডেট : ২ বছর আগে

সিলেট এক্সপ্রেস ডেস্ক প্যানেলের মাধ্যমে সরকারি প্রাথমিক বিদ্যালয়ে সহকারী শিক্ষক নিয়োগের দাবিতে আন্দোলন অব্যাহত রেখেছেন বঞ্চিতরা। বুধবার (৩০ সেপ্টেম্বর) দুপুরে সারাদেশের ন্যায় সিলেট কেন্দ্রীয় শহীদ মিনারে ‘প্যানেলে চাই, নয় চার বছর ফেরত চাই’ এই স্লোগানে বিপুল সংখ্যক নিয়োগ বঞ্চিতরা এক মানববন্ধন কর্মসূচী পালন করেন।
এসময় সভাপতিত্ব করেন প্রাথমিক বিদ্যালয় সহকারী শিক্ষক নিয়োগ-২০১৪ স্থগিত (২০১৮) প্যানেল প্রত্যাশী এর সিলেট জেলা শাখার আহবায়ক ফরিদা বেগম। সংগঠনের সাধারণ সম্পাদক দিপন বিশ্বাসের পরিচালনায় এসময় বক্তারা বলেন, ২০১৪ সালে সরকার সহকারী শিক্ষক পদে নিয়োগ বিজ্ঞপ্তি দিলে হাই কোর্টে একটি রিটের কারণে ৪ বছর সেই পরিক্ষা স্থগিত রাখা হয়। ২০১৮ সালে এই পরিক্ষা নেন সংশ্লিষ্টরা। শূণ্য পদে নিয়োগের কথা সে সময়ে বললেও মাত্র ৯ হাজার ৯৬৭ জনকে নিয়োগ দেয়া হয়। অপরদিকে ২০১৮ সালে (২০১৯ সালে অনুষ্টিত) বিতর্কিত পরিক্ষায় ১২ হাজার শিক্ষক নিয়োগের স্থলে নিয়োগ দেয়া হয় ১৮ হাজারের বেশি শিক্ষক। এ ক্ষেত্রে আমাদের সঙ্গে বৈষম্য করা হয়।
বক্তারা, বর্তমানে করোনা ভাইরাসের এই সময়ে নতুন নিয়োগ বিজ্ঞপ্তি না দিয়ে প্যানেলের মাধ্যমে ২০১৪ স্থগিত (অনুষ্টিত ২০১৮) মৌখিক পরিক্ষায় বাদ পড়াদের নিয়োগ দিতে মানবতার নেত্রী বঙ্গবন্ধু কন্যা, প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনার প্রতি আহবান জানান। এসময় আন্দোলনকারীরা আরো বলেন, আইনী জটিলতার কারণে ৪ বছর সেই সময়ে পরিক্ষা হয়নি। যার কারণে আমাদের অনেকের সরকারি চাকরির বয়স সীমা পার হয়ে গেছে। যার ফলে শিক্ষক হওয়ার স্বপ্ন পূরণ ব্যর্থ হয়েছে। এমতাবস্থায় প্যানেলের মাধ্যমে আমাদের নিয়োগ দিয়ে জীবনের এই স্বপ্নটি পূরণ করতে সরকারের প্রতি আকুল আবেদন জানাচ্ছি।
মানববন্ধনে উপস্থিত ছিলেন ও বক্তব্য রাখেন কবির আহমদ, এমরান আহমদ, কামরুল ইসলাম, শামিমা আক্তার চৌধুরী, খাদিজা আক্তার, জোনাকি বিশ্বাস, সুমাইয়া আক্তার, জান্নাতুল ফেরদাউস, তপন কুমার, উষা বিশ্বাস প্রমুখ।


আরও পড়ুন