পিয়াইন নদীর উপর নির্মিত হতে যাচ্ছে প্রায় সাড়ে চার শ’ মিটার দীর্ঘ সেতু

প্রকাশিত : ১২ জানুয়ারি, ২০১৯     আপডেট : ১ বছর আগে  
  

সিলেট এক্সপ্রেস ডেস্ক: দীর্ঘ প্রত্যাশার অবসান ঘটিয়ে ছাতকে পিয়াইন নদীর উপর নির্মিত হতে যাচ্ছে প্রায় সাড়ে চার শ’ মিটার দীর্ঘ সেতু। পিয়াইন সেতু নির্মাণের বিষয়টি নতুন বছরের শ্রেষ্ঠ উপহার হিসেবে নিয়েছেন ছাতকবাসী। নতুন বছরের শুরুতেই সেতু নির্মাণের প্রাথমিক কার্যক্রম শুরু হওয়ায় ব্যবসা-বাণিজ্যসহ সর্বক্ষেত্রে আশার আলো দেখছেন ছাতক ও কোম্পানীগঞ্জের মানুষ।
জানা যায়, দু’ উপজেলাকে সেতুবন্ধনের মাধ্যমে আবদ্ধ করে ব্যবসায়িক ক্ষেত্রকে আরো সম্প্রসারণ করার উদ্দেশ্যেই ছাতকের গোয়ালগাঁও পয়েন্টে পিয়াইন নদীর উপর ৪৭০ মিটার দীর্ঘ সেতু নির্মাণের উদ্যোগ গ্রহণ করেছেন সংশ্লি¬ষ্ট কর্তৃপক্ষ। ইতিমধ্যেই স্থানীয় সরকারের সেতু নির্মাণ প্রকল্পের উর্ধ্বতন কর্তৃপক্ষ সেতু নির্মাণের স্থান নির্ধারণ করে গেছেন।
ছাতকবাসীর জন্য সম্ভাবনার হাতছানী পিয়াইন নদীর উপর সেতু নির্মাণ কাজের স্থান চূড়ান্তভাবে নির্ধারণ করতে ছাতকে আসেন স্থানীয় সরকারের সেতু নির্মাণ প্রকল্পের পরিচালক আল্ল¬াহ হাফেজ। গত ২ জানুয়ারি সরজমিনে পরিদর্শন করে তিনি ছাতকের ইসলামপুর ইউনিয়নের গোয়ালগাঁও পয়েন্ট হয়ে কোম্পানীগঞ্জের ইছাকলস ইউনিয়নের আমবাড়ি পয়েন্ট পর্যন্ত পিয়াইন সেতু নির্মাণের স্থান নির্ধারণ করেন। এর প্রায় দু’মাস আগে প্রায় ৬৫ কোটি টাকা ব্যয়ে পিয়াইন সেতু নির্মাণ কাজের দরপত্র আহবান করা হয়। এরই মধ্যে দরপত্র গ্রহণ ও যাচাই-বাছাই কার্যক্রম শেষ হয়েছে বলে সংশ্লি¬ষ্ট সূত্রে জানা গেছে। পরিদর্শনকালে স্থানীয় সরকারের এডিশনাল চিফ ইঞ্জিনিয়ার, সেতু নির্মাণ প্রকল্পের চিফ কনসালটেন্ট, সুনামগঞ্জ এলজিইডির নির্বাহী প্রকৌশলী ইকবাল হোসেন, ছাতক উপজেলা প্রকৌশলী আবুল মনসুর মিয়া ও স্থানীয় শামছুর রহমান সাদিকসহ এলাকার গণ্যমান্য ব্যক্তিবর্গ উপস্থিত ছিলেন।
ছাতক পাথর ব্যবসায়ী সমিতির সভাপতি আলহাজ্ব জয়নাল মিয়া চৌধুরী ও ছাতক পাথর ব্যবসায়ী সমবায় সমিতির সাধারণ সম্পাদক সামছু মিয়া জানান, ব্যবসায়ীসহ ছাতকবাসীর দীর্ঘদিনের প্রত্যাশিত দাবী পিয়াইন সেতু বাস্তবায়ন হতে যাচ্ছে। পাথর ও বালু ব্যবসায় গুরুত্বপূর্ণ ভুমিকা রাখবে পিয়াইন সেতু।
বিশিষ্ট রাজনীতিবিদ সৈয়দ আহমদের মতে, পিয়াইন সেতু ছাতক ও কোম্পানীগঞ্জের জন্য একটি অনন্য মাইল ফলক। দু’উপজেলার যোগাযোগ ও ব্যবসায়ীক ক্ষেত্রে উল্লে¬খযোগ্যে অবদান রাখবে প্রত্যাশিত পিয়াইন সেতু। এ জন্য তিনি প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা ও প্রধানমন্ত্রীর মুখ্য সচিব, ইসলামপুর ইউনিয়নের কৃতি সন্তান নজিবুর রহমানের প্রতি কৃতজ্ঞতা প্রকাশ করেন।
উপজেলা প্রকৌশলী আবুল মনসুর মিয়া এ ব্যাপারে জানান, সেতুর স্থান নির্ধারণসহ প্রাথমিক কার্যক্রম ইতিমধ্যেই সম্পন্ন হয়েছে। শিগগিরই সেতুর নির্মাণ কাজ শুরু হবে বলে তিনি আশাবাদ ব্যক্ত করেন। উপজেলা চেয়ারম্যান অলিউর রহমান চৌধুরী বকুল পিয়াইন সেতু নির্মাণ কাজের উদ্যোগ গ্রহণের জন্য সরকারের প্রতি কৃতজ্ঞতা প্রকাশ করে জানান, সুরমা সেতু ও পিয়াইন সেতু নির্মাণে শিল্পসমৃদ্ধ শহর ছাতকের গুরুত্ব আরো বহুলাংশে বৃদ্ধি পাবে। পাথর, বালু ও সিমেন্টের শহর ছাতকে আরো নতুন- নতুন শিল্প কারখানা গড়ে উঠবে। সৃষ্টি হবে যুব সমাজের জন্য নতুন-নতুন কর্মসংস্থান। সুরমা ও পিয়াইন সেতু নির্মাণের মধ্যদিয়ে ছাতকের সাথে দোয়ারাবাজার ও কোম্পানীগঞ্জ উপজেলার সরাসরি সড়ক যোগাযোগ প্রতিষ্ঠিত হবে।

পরবর্তী খবর পড়ুন : সিলেটবাসীর চাওয়া পাওয়া

আরও পড়ুন