নস্টালজিয়া -১

প্রকাশিত : ২৩ জুন, ২০২০     আপডেট : ৩ মাস আগে
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  

ইছমত হানিফা চৌধুরী: Fb তে অনেকে আছেন যারা আমার শিশুকালের পড়ার সাথী খেলার সাথী। আর তারা নিচের ছবির দিকে তাকিয়ে চোখ বুঝলে ডুব দিতে পারে ১৯৮৩/৮৪ সালে।যখন আম্বরখানা দরগা গেইট সরকারি প্রাথমিক স্কুলে আমি এবং আমার বোন আরিফা শবনম একসাতে পড়ি। আমাদের মায়ের স্কুল থেকে আনা নেয়ার সুবিধার জন্য, দুইবোন কে একইসাথে ক্লাস ওয়ানে ভর্তি করেন।আমাদের সময় সরকার থেকে কোন বই খাতা কিছুই দেয়া হত না।বই খাতা পেন্সিল সব অবিভাবক কে কিনে দিতে হত।আমরা দুইবোন শুরু থেকে শুধু লিখার খাতা পেন্সিল ছাড়া বই ব্যগ শেয়ার করতাম। দুইজনের একই ব্যাগে বই নিয়ে যেতে কোন অসুবিধা হত না।যখন ক্লাস ত্রীতে পড়ি তখন আব্বা আমাদের দুইজনের জন্য দুইটা প্লাস্টিকের ছোট সুটকেস এর মতো বাস্ক আনলেন আমরা মহা খুশি।এই হচ্ছে আমার সেই স্কুল ব্যাগ।পুরনো ঘর ভাংগার সময় পুরনো অনেক জিনিসের সাতে এই বাস্ক ছিল।যা খুলতেই সৃত্মির পাতায় ভেসে আসে কত শত গল্প।আবদুল এর দোকান পাপড় ভাজা,গুল গুল আচার আম্বরখানা (সোনালী ব্যাংক বিল্ডিংয়ের পাশে) বিজলী আইসক্রিম ফ্যাক্টরির লাল সাদা কমলা আইসক্রিম।
সবচেয়ে মজার ব্যাপার হচ্ছে সেই সময় আমারা যখন আমাদের গ্রামের বাড়ি কিংবা নানার বাড়ি বেড়াতে যেতাম,তখন অনায়াসে সেখানকার স্কুলে কাজিনদের সাতে যেতে পারতাম, এবং আরামছে ক্লাস করতাম,কোন সংকুচ ছিল না।
তবে আইসক্রিম আর ঠান্ডার মিঠাইয়ের মতো লিখা পড়ার পাঠদানে ছিল বেশ তফাত।আমাদের কোন স্কুল ইউনিফর্ম ছিল না,কিন্ত আমাদের স্কুল শাহজালালের দরগার পাশে এবং এয়ারপোর্টে রোডে হওয়া যে কোন ভি আই পি যখন আসতেন আমাদের স্কুলের সকল ছাত্র ছাত্রিকে লাইন ধরে রাস্তার দুইপাশে দাড় করিয়ে দেয়া হত। এখানে একটা বিষয় উল্লেখ্য যে এই স্কুলে প্রতি ক্লাসে চারটি শাখা তাই ছাত্র ছাত্রীর সংখ্যা অনেক।আহা তখন যদি সেল্ফি কুল্ফির ব্যাবস্থা থাকতো।তবে ছবি দিয়ে প্রমাণ দিতে পারতাম, কত রাস্ট্রপ্রধান কত ভি আই পি কে কাছে থেকে দেখেছি,কারো কারো সাতে হাত মিলিয়েছি।ব্যাপার গুলা অনেক মজার ছিল।
চলবে


  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  

পরবর্তী খবর পড়ুন : লা-শারীক আল্লাহ

আরও পড়ুন

বাউল শাহ আব্দুল করিমের জন্মদিবস উপলক্ষে দু’দিনব্যাপী লোক উৎসব

         সিলেট এক্সপ্রেস ডেস্ক: কোন মেস্তরী...

মাকে ভালোবাসার মাধ্যমেই পৃথিবীর সর্বশ্রেষ্ঠ সুখ অর্জন সম্ভব

         মো. আব্দুল বাছিত: বিশিষ্ট শিক্ষাবিদ,...

কমলগঞ্জে নিজ ঘরে বিদ্যুতায়িত হয়ে এক নির্মাণ শ্রমিকের মৃত্যু

         সিলেট এক্সপ্রেস ডেস্ক : মৌলভীবাজারের...