নলকটে কুয়েত প্রবাসী খুনের ঘটনায় দম্পতি আটক ॥ লাশ দেখতে গেলেন ড. মোমেন

Alternative Text
,
প্রকাশিত : ২৮ ডিসেম্বর, ২০১৮     আপডেট : ৩ বছর আগে
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  

সিলেট সদর উপজেলার কান্দিগাঁও ইউনিয়নের নলকট গ্রামে কুয়েত প্রবাসী কায়সার আহমদ (৩৫) খুনের মামলার প্রধান আসামী আব্দুল বারিক ও তার স্ত্রী পিয়ারা বেগমকে গ্রেফতার করেছে পুলিশ।
জালালাবাদ থানার ওসি শাহ হারুনুর রশীদ জানান, বারিক ও তার স্ত্রীকে এরই মধ্যে গ্রেফতার করা হয়েছে। এ ঘটনায় ৭ জনের নামোল্লেখসহ অজ্ঞাতনামা আরো ৭/৮ জনকে আসামী করে নিহতের চাচা আব্দুন নুর বাদী হয়ে মামলা দায়ের করেছেন। ওসি জানান, কাওসার এবং বারিকের মধ্যে গরু নিয়ে একটি বিরোধ ছিল। তবে, বৃহস্পতিবার নির্বাচনী কার্যক্রম চালানোর সময় কায়সারকে মারধর করেন বারিক। মারধরের কারণে তার মৃত্যু হয়েছে বলে জানান ওসি।
এদিকে, সিলেট-১ আসনে মহাজোট মনোনীত প্রার্থী ড. এ কে আব্দুল মোমেন শুক্রবার সকালে ওসমানী মেডিকেল কলেজ মর্গে কায়সারের লাশ দেখে আসেন। এ সময় আওয়ামী লীগের কেন্দ্রীয় সাংগঠনিক সম্পাদক এডভোকেট মিসবাহ উদ্দিন সিরাজ, মহানগর সভাপতি বদর উদ্দিন আহমদ কামরান, জেলা সেক্রেটারী শফিকুর রহমান চৌধুরী ও সিলেট সদর উপজেলা চেয়ারম্যান আশফাক আহমদ তার সাথে ছিলেন।
বৃহস্পতিবার সন্ধ্যায় নলকট গ্রামের আব্দুল বারিকের হামলায় আহত হন কায়সার। আহত অবস্থায় হাসপাতালে আনার পর তার মৃত্যু হয়। কায়সারের পরিবারের দাবি, নৌকার লিফলেট বিতরণের সময় হামলার শিকার হয়ে তিনি মারা যান।
নলকট গ্রামের অন্য একটি সূত্র জানায়, একটি হারানো গরু নিয়ে কায়সার ও বারিকের মধ্যে দীর্ঘদিন ধরে বিরোধ ছিল। এ বিরোধের জেরে মৃত্যু হয়েছে কায়সারের।


  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  

আরও পড়ুন

এসএমপি কমিশনার গোলাম কিবরিয়াকে বদলি

        সিলেট এক্সপ্রেস ডেস্কসিলেট মেট্রোপলিটন পুলিশ...

যুবলীগ নেতা মুসা জানাযা রাত নয়টায়

        সিলেটের কাজিরবাজার সেতুতে দূর্ঘটনায় গুরুতর...