নবীগঞ্জে ইউপি মেম্বারের বিরুদ্ধে প্রণোদনার তালিকায় দুর্নীতি অভিযোগ

Alternative Text
,
প্রকাশিত : ২৩ মে, ২০২০     আপডেট : ৭ মাস আগে
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  

নবীগঞ্জ(হবিগঞ্জ) প্রতিনিধি॥
নবীগঞ্জ উপজেলার ইনাতগঞ্জ ইউনিয়নের ইউপি মেম্বার নাজিম উদ্দিনের বিরুদ্ধে তিন গ্রামবাসীর লিখিত অভিযোগ দায়ের। জানা যায়, ইনাতগঞ্জ ইউনিয়নের দিঘীরপাড়, বানিউন, রমজানপুর, লতিবপুর, মোকামপাড়া, দরবেশপুর নিয়ে গঠিত ৩নং ওয়ার্ড। সরকারের দেওয়া ২৫শ টাকার প্রণোদনার তালিকায় ব্যাপক অনিয়ম দুর্নীতি করেছেন এই ইউপি মেম্বার। সরকারের সকল ধরণের ত্রাণ সহায়তা খাদ্যবান্ধব ১০ টাকার কেজি চালসহ সকল ধরণের খাদ্য সহায়তায় একই ব্যক্তিদের নাম আসছে বার বার। এমনকি একই ব্যক্তির নামে জাতীয় পরিচয় পত্রের একাধিক নাম্বার ব্যবহার করা হয়েছে বলে ও অভিযোগ রয়েছে। প্রণোদনার তালিকায় দেওয়া হয়েছে মেম্বারের আপন ভাই ভাতিজাসহ সকল আত্মীয় স্বজনের নাম। ৬ টি গ্রামের জন্য ২৫শ টাকার প্রণোদনার ৮০ টি পরিবারের জন্য তালিকা না করে শুধু মেম্বারের আত্মীয় স্বজন দেখে তিনটি গ্রামের লোকজনকে দেওয়া হয়েছে প্রণোদনার তালিকায় নাম। অনিয়মের কারনে সহায়তা থেকে বঞ্চিতরা মঙ্গলবার (১৯ মে) বানিউন,রমজানপুর,মোকামপাড়া তিন গ্রামবাসীর পক্ষে নবীগঞ্জ উপজেলা নির্বাহী কর্মকর্তার কাছে লিখিতভাবে অভিযোগ করা হয়। অভিযোগে বলা হয়েছে, ইউপি মেম্বার নাজিম উদ্দিন ব্যক্তিগতভাবে আর্থিক লাভবান হওয়ার জন্য প্রকৃত উপকারভোগীদের নাম বাদ দিয়ে খাদ্যবান্ধব কর্মসূচির উপকারভোগী তার আপন ভাই,ভাবী,শশুর বাড়ির আত্মীয় স্বজনদের নাম তালিকাভুক্ত করে। অভিযোগে আরো বলা হয়েছে ইউপি মেম্বার নাজিম উদ্দিনের ভাই ও ভাবীর জাতীয় পরিচয়পত্র জালজালিয়াতি করে একই ব্যক্তির নামে দুইটি কার্ড নাম্বার ব্যবহার করা হয়েছে। খাদ্য বান্ধব কর্মসূচির তালিকায় ২৮৪ নং সিরিয়ালে দিঘীরপাড় গ্রামের জয়নাল আবদীনের স্ত্রী সামেনা বেগমের জাতীয় পরিচয় পত্রের নাম্বার দেওয়া হয় ৩৬১৭৭৫১৬২৬৫৬৬ এবং একই ব্যক্তির ২৫শ টাকার প্রণোনার তালিকায় জাতীয় পরিচয় পত্রের নাম্বার ১৯৭৬৩৬১৭৭৫১৬২৮৩৫৩ জালিয়াতি করে ১৯৫ নং সিরিয়ালে নাজিম উদ্দিনের আপন ভাবী জয়নাল আবদীনের স্ত্রী সামেনা বেগম ও জাতীয় পরিচয়পত্রের নং ১৯৮২৩৬১৭৭৫১৬২৬৬৬২ জালিয়াতি করে ২৫৭ নং সিরিয়ালে নাজিম উদ্দিনের আপন ভাই মৃত সুনাধন উল্লাহর পুত্র মিয়াফর উদ্দিন চূরান্ত তালিকায় অর্ন্তভুক্ত হয়েছে। অপরদিকে খাদ্য বান্ধব কর্মসূচির উপকারভোগীর তালিকায় ২৮৮ নং সিরিয়ালের দরবেশপুর গ্রামের তমন হোসেনের স্ত্রী স্বপ্না বেগম জাতীয় পরিচয়পত্রের নং ৩৬১৭৭৫১৬২৬৮৯২ চাল উত্তোলন করেন। অভিযোগে দেখা গেছে তমন হোসেনের স্ত্রী স্বপ্নাই ২৫শ টাকার আর্থিক অনুদানের উপকারভোগীর তালিকায় ১৯৯ নং সিরিয়ালে জাতীয় পরিচয়পত্রের নং ১৯৮১৩৬১৭৭৫১৬২৬৮৯২। একই ব্যক্তিদের নামে এনআইডি কার্ড দুটি হয় কী করে? প্রশ্নটি নড়চড়ে বসেছে সচেতন মহলে। বিষয়টি জানতে চাইলে ইউপি মেম্বার নাজিম উদ্দিন এ অভিযোগ সাজানো বলে দাবি করেন। এব্যাপারে জানতে চাইলে ইউপি চেয়ারম্যান বজলুর রশিদ বলেন, ২৫শ টাকার প্রণোদনার তালিকায় ইউপি সদস্যদের অনিয়ম থাকলে তা খতিয়ে দেখা হবে এবং একই ব্যক্তির নামে এন আইডি দুটি হওয়ার প্রশ্নই নেই।


  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  

আরও পড়ুন

লিডিং ইউনিভার্সিটিতে বৃক্ষরোপণ

         সিলেট এক্সপ্রেস ডেস্ক : জাতীয় বৃক্ষরোপণ...

ছড়াকার কামরুল আলম-এর ৩৯তম জন্মবার্ষিকী আজ

         সিলেট এক্সপ্রেস ডেস্ক:বর্তমান সময়ের অন্যতম...

যথাযোগ্য মর্যাদায় শাবিতে ঐতিহাসিক ৭ মার্চ পালিত

         যথাযোগ্য মর্যাদায় সিলেটের শাহজালাল বিজ্ঞান...