দেওয়ান আব্দুর রহিম হাইস্কুল অ্যান্ড কলেজে স্বাধীনতা দিবস পালন

প্রকাশিত : ২৭ মার্চ, ২০১৯     আপডেট : ১ বছর আগে  
  

সিলেট এক্সপ্রেস ডেস্ক : বালাগঞ্জ উপজেলার দেওয়ান আব্দুর রহিম হাইস্কুল এন্ড কলেজে মহান স্বাধীনতা দিবস পালন করা হয়েছে।গত মঙ্গলবার (২৬ মার্চ) অনুষ্ঠিত দিবসের কর্মসূচির মধ্যে ছিল শ্রদ্ধাঞ্জলি নিবেদন, আলোচনা সভা ও বার্ষিক ক্রীড়া প্রতিযোগিতার পুরস্কার বিতরণ।

সকাল ১১টায় অনুষ্ঠিত আলোচনা সভা ও বার্ষিক ক্রীড়া প্রতিযোগিতার পুরস্কার বিতরণী অনুষ্ঠানে প্রধান অতিথির বক্তৃতা করেন যুক্তরাজ্যস্থ গহরপুর এসোসিয়েশনের সভাপতি, প্রবাসী কমিউনিটি নেতা মো. আবুল মিয়া।

প্রধান অতিথির বক্তৃতাকালে তিনি বলেন, স্বাধীনতাকে অর্থবহ করে তুলতে সবার আগে শিক্ষিত জাতি গড়ে তুলতে হবে।

তিনি বলেন, জাতির পিতা বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবুর রহমান একটি সুখী, সমৃদ্ধ রাষ্ট্রপ্রতিষ্ঠার জন্য সংগ্রাম করে গেছেন। তিনি মহান স্বাধীনতা সংগ্রামের সকল শহীদ, যুদ্ধাহত মুক্তিযোদ্ধা ও দেশপ্রেমিক নাগরিকদের দেশের উন্নয়নে একযোগে কাজ করা আহবান জানান।

তিনি দেওয়ান আব্দুর রহিম হাইস্কুল এন্ড কলেজ কর্তৃপক্ষের আহবানে সাড়া দিয়ে তার ব্যক্তিগত অর্থায়নে কলেজের প্রধান ফটক নির্মাণ করে দেয়ার ব্যাপারে প্রতিশ্রুতি ব্যক্ত করেন।

আলোচনা সভা ও পুরস্কার বিতরণ অনুষ্ঠানে সভাপতিত্ব করেন কলেজ গভর্ণিংবডির সভাপতি আফম শামীম। অনুষ্ঠানের শুরুতে শুভেচ্ছা বক্তৃতা করেন প্রধান শিক্ষক খলিলুর রহমান। প্রভাষক জাকারিয়া টিপু ও শিক্ষক রুহুল আমিনের পরিচালনায় অনুষ্ঠানে বিশেষ অতিথি হিসেবে বক্তৃতা করেন ও উপস্থিত ছিলেন কলেজ গভর্ণিং বডির সদস্য এনায়েতুর রহমান রাজু, তজমুল আলী, আতিকুর রহমান, শফিকুল হক চৌধুরী, সাবেক সদস্য মুজিবুর রহমান, হারুন মিয়া, আব্দুল জলিল বেলাল, মধ্যপ্রাচ্য প্রবাসী রফিক মিয়া, বিদ্যালয়ের সহকারী প্রধান শিক্ষক শ্যাম সুন্দর রায়, সিনিয়র শিক্ষক মাওলানা আতাউর রহমান, বালাগঞ্জ উপজেলা প্রেসক্লাবের সাধারণ সম্পাদক মো. জিল্লুর রহমান জিলু, প্রভাষক সালেহ আহমদ, বাদশা লিটন, শ্রীকান্ত বর্মণ, শিক্ষক রিপন বর্মণ, সুহেল আহমদ, অসিত চন্দ্র দাস, ইব্রাহিম মিয়া, মেহেরুল ইসলাম, মাসুদা বেগম, রুহিনা বেগম, সাদেকা বেগম, পাপিয়া আক্তার, সাবেক শিক্ষার্থী সাংবাদিক ফারহান আহমদ চৌধুরী প্রমুখ।

অনুষ্ঠানের শুরুতে প্রধান অতিথি যুক্তরাজ্য প্রবাসী কমিউনিটি নেতা মো. আবুল মিয়াকে সম্মননা ক্রেস্ট প্রদান করা হয়। এছাড়ার অনুষ্ঠানের শেষ পর্যায়ে ২০১৮ ও ২০১৯ সালে বার্ষিক ক্রীড়া প্রতিযোগিতার বিজয়ীদের মধ্যে পুরস্কার প্রদান করা হয়।

আরও পড়ুন