দক্ষিণ সুরমা আঞ্চলিক কমিটির মিছিল

,
প্রকাশিত : ২৭ মে, ২০১৯     আপডেট : ২ বছর আগে
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  

সিলেট এক্সপ্রেস ডেস্ক: সিলেট জেলা হোটেল শ্রমিক ইউনিয়ন রেজিঃ নং চট্ট ১৯৩৩ এর অন্তর্ভুক্ত দক্ষিণ সুরমা উপজেলা কমিটির উদ্যোগে ঈদ বোনাস এর দাবিতে সন্ধ্যা ৭ টায় দক্ষিণ সুরমা কীনব্রিজ এর মুখ থেকে মিছিল শুরু করে বিভিন্ন সড়ক প্রদক্ষিণ করে কদমতলী মুক্তিযোদ্ধা চত্তরে সমাবেশ অনুষ্ঠিত হয়।
মিছিল পরবর্তী সমাবেশে সভাপতিত্ব করেন দক্ষিণ সুরমা উপজেলা কমিটির সহ-সভাপতি মোঃ শাহীন মিয়া, সমাবেশ পরিচালনা করেন সাধারণ সম্পাদক মোঃ আনসার আলী। সমাবেশে বক্তব্য রাখেন বাংলাদেশ ট্রেড ইউনিয়ন সংঘ সিলেট জেলা শাখার যুগ্ম সম্পাদক রমজান আলী পটু, স’মিল শ্রমিক সংঘের সিলেট বিভাগীয় কমিটির সভাপতি আইয়বুর রহমান, সিলেট জেলা হোটেল শ্রমিক ইউনিয়নের সহ সভাপতি জুলফিকার আলি ভুট্টু, কোষাধ্যক্ষ মহিদুল ইসলাম, শাহপরান থানা কমিটির সভাপতি মোঃ দুলাল মিয়া, সহ সভাপতি মোঃ জয়নাল মিয়া, জালালাবাদ থানা কমিটির সভাপতি মাজেদুল ইসলাম সুমন, সাধারণ সম্পাদক রবিউল ইসলাম রবি, আম্বরখানা আঞ্চলিক কমিটির সাধারণ সম্পাদক আইনুল হক, বন্দর বাজার আঞ্চলিক কমিটির সাধারণত সম্পাদক আনোয়ার হোসেন, চন্ডিপুল আঞ্চলিক কমিটির সভাপতি জহুরুল ইসলাম, বাবনা আঞ্চলিক কমিটির সাধারণ সম্পাদক আব্দুল মুমিন প্রমুখ।
সমাবেশে বক্তাগণ বলেন, আসছে ঈদুল ফিতর এর উৎসব আনন্দকে উপভোগ করার জন্য বকেয়া মজুরি, বেতনের সম পরিমান ঈদ বোনাস প্রদান, উৎসব ছুটি দিয়ে সকল শ্রমিকদেরকে ২৫ রমজানের ভিতরে তাদের পাওনা পরিশোধ করার জন্য মালিকদের প্রতি আহবান জানান। বক্তারা আরও বলেন দ্রব্যমূল্যের উর্ধগতির বাজারে তিন/চার হাজার টাকা মাসিক মজুরিতে কাজ করে, তা দিয়ে তাদের মাসের ১০ দিন ও চলে না । কথায় কথায় ছাঁটাই নির্যাতন অব্যাহত আছে। শ্রম আইনে কিছু কিছু অধিকার প্রাপ্য হলেও শ্রমিকরা কখনো তা প্রাপ্ত হয় না। তার উপর ঈদ বা কোন উৎসব আসলেই শুরু হয় মজুরি পরিশোধ না করে, বোনাস না দিয়ে প্রতিষ্ঠান বন্ধ করার হিড়িক। ঈদের ছুটি শেষে অনেকেরই চাকরি থাকে না। আজকের মিছিল পরবর্তী সমাবেশ থেকে আমরা জুর দাবি জানাচ্ছি যে, আগামী ২৫ রমজানের পূর্বেই সকল হোটেল শ্রমিকদের বকেয়া পাওনা পরিশোধ, এক মাসের মজুরির সমপরিমাণ উৎসব বোনাস প্রদান করতে হবে। ঈদের ছুটি শেষে প্রত্যেক শ্রমিককে কাজে বহাল রাখার নিশ্চয়তা থাকতে হবে। হোটেল সেক্টরের শ্রমিকদের পরিচয়পত্র, নিয়োগপত্র প্রদানসহ ঘোষিত শ্রম আইনের সকল সুযোগ-সুবিধা প্রদান করতে হবে এবং শ্রম আইনে কালো ধারাসমূহ বাতিল করে গণতান্ত্রিক শ্রম আইন প্রণয়ন করতে হবে। বক্তাগণ আরো বলেন, বর্তমান বাজারদরে সাথে সংগতি রেখে বিদ্বমান মজুরি কাঠামো পরিবর্তন করে মজুরি বৃদ্ধি করতে হবে।
সভাপতি তার সমাপনী বক্তব্যে বলেন আগামীদিনের সকল লড়াই সংগ্রামে সকল শ্রমিক-কৃষকদের অংশগ্রহণের মধ্যদিয়ে পুঁজির শোষণের বিরুদ্ধে দূর্বার আন্দোলন-সংগ্রাম গড়ে তোলার আহ্বান জানিয়ে সভার সমাপ্তি করেন।

 


  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  

আরও পড়ুন

ছাতকে জনকল্যাণ ফাউন্ডেশনের উদ্যোগে বৃক্ষরোপণ কর্মসূচির উদ্বোধন

48        48Sharesসেলিম মাহবুব:: ছাতকে নোয়ারাই ইউনিয়ন...

যুবলীগ নেতা আদিল কে ওসমানী আন্তর্জাতিক বিমান বন্দরে সংবর্ধনা

         সিলেট এক্সপ্রেস ডেস্ক: সিলেট মহানগর...

নতুন ভিসা চালুর ঘোষণা: বাংলাদেশিদের জন্য খুলছে ব্রিটেনের দুয়ার

         বাংলা‌দেশি শেফ‌দের ব্রিটেনে পাড়ি দেওয়ার...