ডা. মঈন উদ্দিনের লাশ আসছে সিলেটে, দাফন হবে গ্রামের বাড়ি

Alternative Text
,
প্রকাশিত : ১৫ এপ্রিল, ২০২০     আপডেট : ১ বছর আগে
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  

করোনাভাইরাসে আক্রান্ত হয়ে মারা যাওয়া সিলেটের মানবতাবাদী চিকিৎসক মোঃ মঈন উদ্দীন (৪৭) এর মরদেহ নিয়ে সিলেটের উদ্দেশ্য রওয়ানা দিয়েছেন তাদের স্বজন ও আইইডিসিআর এর প্রতিনিধি দল। পরিবারের ইচ্ছায় সুনামগঞ্জের ছাতক উপজেলার নাদামপুরস্থ নিজ বাড়িতে বাবা মায়ের কবরের পাশে তাকে সমাহিত করা হবে।

ইবনে সিনা হসপিটাল, সিলেট এর চিফ মেডিকেল অফিসার মেজর (অবঃ) ডা. আব্দুস সালাম চৌধুরী বিষয়টি নিশ্চিত করেছেন। সিলেট এমএজি ওসমানী মেডিকেল কলেজ হাসপাতালের মেডিসিন বিভাগের সহকারী অধ্যাপক ডা. মঈন উদ্দিনের মরদেহ সিলেটে না এনে বিশ্ব স্বাস্থ্য সংস্থার সংক্রমণ বিধি অনুযায়ী ঢাকায় দাফন করার জন্য চিন্তা করছিলো আইইডিসিআর। তবে পরিবারের পক্ষ থেকে তার গ্রামের বাড়িতে লাশ দাফনের সুযোগ দেয়ার জন্য অনুরোধ জানালে আইইডিসিআর তাতে সাড়া দেয়। এর প্রেক্ষিতে ডাঃ মঈন উদ্দীনের মরদেহ নিয়ে সিলেটের উদ্দেশ্য রওয়ানা করেছেন স্বজনরা। পারিবারিক সূত্র জানিয়েছে, ডাঃ মোঃ মঈন উদ্দীনের মরদেহ সিলেট হয়ে সুনামগঞ্জ এর ছাতকে নিজ বাড়িতে গেলেও জানাযা কিংবা দাফন কাজে স্বজন বা প্রতিবেশি কেউ অংশ নিতে পারবেন না বলে শর্ত দেয়া হয়েছে। বিশ্ব স্বাস্থ্য সংস্থার বিধি অনুসরণ করে তাকে দাফন করা হবে।

সূত্র জানায়, তাতেই খুশি পরিবারের লোকজন ও স্বজনরা। ছাতকের শোকাহত লোকজন কাঁদছেন মানবতাবাদী এই চিকিৎসকের জন্য। সুযোগ পেলেই ডাঃ মোঃ মঈন উদ্দীন ছুটে যেতেন গ্রামের বাড়িতে। সেখানে বিনা পয়সায় তিনি চিকিৎসা সেবা দিতেন। ফলে এলাকার আপামর মানুষের কাছে প্রিয় ছিলেন তিনি। বুধবার ডাঃ মোঃ মঈন উদ্দীনের মৃত্যুর খবর ছড়িয়ে পড়লে কেবল জন্ম মাটি ছাতক নয়, পুরো বৃহত্তর সিলেটে শোকের ছায়া নেমে আসে। এলাকাবাসী স্থানীয় জনপ্রতিনিধির মাধ্যমে গ্রামের বাড়িতে লাশ দাফনের সুযোগ করে দেয়ার জন্য সরকারের উচ্চ মহলের কাছে অনুরোধ জানান। সে অনুযায়ী লাশ গ্রামের বাড়িতে দাফনের সিদ্ধান্ত হয়। বুধবার (১৫ এপ্রিল) ভোর সাড়ে চারটার দিকে ঢাকার কুর্মিটোলা জেনারেল হাসপাতালে চিকিৎসাধীন অবস্থায় মারা যান ডাঃ মোঃ মঈন উদ্দীন। ডা. মঈন উদ্দীনের বাড়ি সুনামগঞ্জের ছাতক উপজেলার নারায়ণপুর গ্রামে। তিনি ঢাকা মেডিকেল কলেজের ছাত্র ছিলেন। দুই শিশু সন্তান ও স্ত্রীকে রেখে চিরবিদায় নিলেন তিনি। ডা. মঈনের স্ত্রীও একজন চিকিৎসক। সিলেটের হাউজিং এস্টেট এলাকায় তাদের বাসা। গত ৫ এপ্রিল সিলেটে করোনাভাইরাসে (কোভিড-১৯) প্রথম আক্রান্ত রোগী হিসেবে এই চিকিৎসককে সনাক্ত করা হয়।

৭ এপ্রিল রাতে তার শারীরিক অবস্থার অবনতি হলে বাসা থেকে সিলেট শহীদ শামসুদ্দিন হাসপাতালের আইসোলেশন সেন্টারে নেয়া হয়। প্রথমে হাসপাতালের আইসিইউতে নেয়া হলেও পরে সাড়ে ১১টার দিকে কেবিনে নিয়ে আসা হয়। অক্সিজেন সাপোর্ট দিয়ে তার শ্বাস-প্রশ্বাস স্বাভাবিক রাখা হয়। পরদিন ৮ এপ্রিল বিকেল সাড়ে পাঁচটায় একটি বেসরকারি হাসপাতালের অ্যাম্বুলেন্সে করে ঢাকার উদ্দেশ্যে প্রেরণ করা হয় তাকে। সেখানেই ৭দিন চিকিৎসাধীন থাকার পর আজ বুধবার ভোরে ডাঃ মোঃ মঈন উদ্দীন ইন্তেকাল করেন।


  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  

আরও পড়ুন

এয়ারপোর্ট থানা সম্মিলিত সামাজিক ফোরামের শীতবস্ত্র বিতরণ

         সিলেট এক্সপ্রেস ডেস্ক: সিলেট সদর...

বয়স কম হওয়ায় ভেঙ্গে গেল কাওছারের বিয়ে

         বয়স ২১ না হওয়ায় বিয়ে...

খেলাফত মজলিসের শোক

         সিলেট পৌরসভার সাবেক চেয়ারম্যান আ...

হেফাজতের আমির বাবুনগরী, মহাসচিব কাসেমী

2        2Sharesহেফাজতে ইসলাম বাংলাদেশের আমির নির্বাচিত...