টিলাগড়ে প্রাণিসম্পদ কর্মকর্তাকে হামলার ঘটনায় রঞ্জিত সরকারসহ ২২ জনের বিরুদ্ধে মামলা

Alternative Text
,
প্রকাশিত : ১৩ মে, ২০২০     আপডেট : ৫ মাস আগে
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  

সিলেট নগরীর টিলাগড়ে খাওয়ার জন্য ছাগল (পাঠা) না পেয়ে প্রাণিসম্পদ কর্মকর্তার ওপর হামলাকারী সিলেট জেলা ছাত্রলীগের সাবেক গণশিক্ষা বিষয়ক সম্পাদক কনক পালকে মঙ্গলবার আদালতের মাধ্যমে জেলহাজতে পাঠানো হয়েছে। এছাড়া, এ ঘটনায় সিলেট জেলা আওয়ামী লীগের সাবেক যুব ও ক্রীড়া সম্পাদক রনজিত সরকার ১০ জনের নামোল্লেখ পূর্বক অজ্ঞাতনামা আরো ১০/১২ জনকে আসামী করা হয়েছে। সিলেট মেট্রোপলিটন পুলিশ(এসএমপি)-এর শাহপরান থানার ওসি কাইয়ুম চৌধুরী বিষয়টি নিশ্চিত করেছেন। প্রাণিসম্পদ অধিদপ্তরের উপ-পরিচালক আমিনুল ইসলাম জানান, ‘সোমবার দুপুরে কনকের নেতৃত্বে ছাত্রলীগের কিছু নেতাকর্মী প্রাণিসম্পদ কার্যালয়ে এসে খামারে প্রজননের জন্য রাখা পাঠা জাতীয় একটি ছাগল খাওয়ার জন্য নিতে চায়। আমরা এ ব্যাপারে অপারগতা প্রকাশ করি। তাদেরকে বলা এ ছাগল কেবলমাত্র প্রজননের জন্য খামারিদের দেওয়া হয়, খাওয়ার জন্য দেওয়ার কোনও সুযোগ নেই। তখন তারা আমাদের সঙ্গে খারাপ আচরণ করে। পরে জেলা আওয়ামী লীগের নেতা রঞ্জিত সরকার আসার পর তিনিও ছাত্রলীগের সেই সব কর্মীদের সঙ্গে যোগ দিয়ে আমাদের হুমকি দেন। কথা কাটাকাটির এক পর্যায়ে কয়েকজন জেলা প্রাণিসম্পদ কর্মকর্তাকে মারধর করেন। এর আগের দিন তাদের একটি গ্রুপ এসে অনুরুপভাবে আরো দুটি পাঠা দাবি করে। তিনি জানান, বিষয়টি মৎস্য ও প্রাণিসম্পদ মন্ত্রীসহ সংশ্লিষ্ট উর্ধ্বতন কর্তৃপক্ষকে জানানো হয়। তাদের নির্দেশে সোমবার রাতে রঞ্জিত সরকারকে প্রধান আসামি করে তিনি থানায় মামলা দায়ের করেন। ওসি কাইয়ুম চৌধুরী জানান, এ ঘটনায় আটক কনক পালকে এরই মধ্যে আদালতের মাধ্যমে জেল হাজতে পাঠানো হয়েছে। আসামীদের ধরতে পুলিশের অভিযান চলছে বলে জানান ওসি।


  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  

আরও পড়ুন