টিলাগড়ে ছাত্রলীগ কর্মী হত্যা : ৫ আসামিকে আত্মসমর্পণের নির্দেশ

প্রকাশিত : ২৬ জুন, ২০১৮     আপডেট : ২ বছর আগে  
  

আধিপত্য বিস্তার নিয়ে সিলেট নগরের টিলাগড়ে ছাত্রলীগ কর্মী ওমর আহমদ মিয়াদ হত্যা মামলার এজহারভুক্ত পাঁচ আসামিকে আত্মসমর্পণের নির্দেশ দিয়েছেন আদালত। আসামিদের মধ্যে জেলা ছাত্রলীগের তৎকালীন সাধারণ সম্পাদক রায়হান চৌধুরীও রয়েছেন। সোমবার দুপুরে সিলেট মহানগর দায়রা জজ আদালতের বিচারক মফিজুর রহমান ভূঁইয়া এ আদেশ দেন।

গত বছরের ১৬ অক্টোবর মিয়াদকে ধারালো অস্ত্র দিয়ে কুপিয়ে হত্যা করে ছাত্রলীগের টিলাগড় গ্রুপের নেতাকর্মীরা।

মিয়াদ সিলেটের লিডিং ইউনিভার্সিটির আইন বিভাগের শিক্ষার্থী এবং সিলেট জেলা ছাত্রলীগের সাবেক সভাপতি হিরণ মাহমুদ নিপু গ্রুপের কর্মী ছিলেন।

আদালত সূত্র জানায়, ওমর আহমদ মিয়াদ হত্যা মামলার প্রধান আসামি সিলেট জেলা ছাত্রলীগের তৎকালীন সাধারণ সম্পাদক রায়হান চৌধুরীসহ এজহার নামীয় পাঁচ আসামি হাইকোর্ট থেকে অন্তর্বর্তীকালীন জামিন নেন। এরা হলেন- রায়হান চৌধুরী, সারোয়ার হোসেন চৌধুরী, রাফিউল করিম মাসুম, ফাহিম শাহ, জুবায়ের খান। এরপর তারা সিলেট মহানগর দ্বিতীয় আদালত থেকে জামিন নেন।

এনিয়ে মামলার বাদীপক্ষ সিলেট মহানগর দায়রা জজ আদালতে রিভিশন মামলা নং -৮৭/২০১৮ দায়ের করেন। সোমবার শুনানি শেষে আদালত সিলেট মহানগর দ্বিতীয় আদালতের জামিন দেয়া অবৈধ ঘোষণা করে আসামিদেরকে ২৮ জুনের মধ্যে সিলেট মুখ্য মহানগর হাকিম আদালতে আত্মসমর্পণের নির্দেশ দেন।

মামলার বাদীপক্ষের আইনজীবী অ্যাডভোকেট প্রবাল চৌধুরী পূজন বিষয়টি নিশ্চিত করে বলেন, হাইকোর্ট থেকে ওমর আহমদ মিয়াদ হত্যা মামলার পাঁচ আসামি অন্তর্বর্তীকালীন জামিন নিয়ে স্থায়ী জামিন নেন সিলেট মহানগর ২য় আদালত থেকে। মহানগর আদালতে ফৌজদারি রিভিশন মামলা করলে আদালত তাদের জামিন বাতিল করেন।

তিনি আরও বলেন, গত ৩১ মহানগর ২য় আদালত আসামিদের যে জামিন দিয়েছিলেন তা এখতিয়ার বহির্ভূত।
সূত্র জাগো নিউজ

আরও পড়ুন



হাউজিং এস্টেট এসোসিয়েশনের ৫০বছর পূর্তি উপলক্ষে মতবিনিময় সভা

হাউজিং এস্টেট এসোসিয়েশনের ৫০বছর পূর্তি...

পুলিশ সেবা সপ্তাহে এয়ারপোর্ট থানার শোভাযাত্রা

পুলিশ সেবা সপ্তাহ ২০১৯ উপলক্ষে...

আমেরিকায় বসবাসরত শিক্ষক সিরাজুল ইসলাম খান আর নেই

সিলেট এক্সপ্রেস ডেস্ক: বালাগঞ্জ উপজেলার...

মাদক থেকে সন্তানদের রক্ষায় পরিবারকে গুরুত্বপূর্ণ ভূমিকা পালন করতে হবে

সিলেট এক্সপ্রেস ডেস্ক: ‘সুস্বাস্থ্যেই সুবিচার-মাদক...