টিলাগড়ে ছাত্রলীগ কর্মী খুন

প্রকাশিত : ০৭ ফেব্রুয়ারি, ২০২০     আপডেট : ৭ মাস আগে
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  

নগরীর টিলাগড়ে পূর্ব বিরোধের জেরে অভিষেক দে দীপ (১৮) নামের এক ছাত্রলীগ কর্মী খুন হয়েছেন। সে শিবগঞ্জ গ্রীণহিল এস্টেট কলেজের এইচএসসি দ্বিতীয় বর্ষের ছাত্র এবং সাদিপুর এলাকার দিপক দে’র একমাত্র পুত্র। গতকাল বৃহস্পতিবার রাতে নৃশংস এ খুনের ঘটনা ঘটে। এ ঘটনায় জড়িত সন্দেহে সমুদ্র রায় সৈকতকে (২০) পুলিশ আটক করেছে। তারা দু’জনই সিলেট জেলা আওয়ামী লীগের সাবেক যুব ও ক্রীড়া বিষয়ক সম্পাদক এডভোকেট রণজিত সরকারের অনুসারী বলে জানা গেছে।
কলেজ ছাত্র দীপ খুন হওয়ার খবর মুহূর্তের মধ্যে পুরো টিলাগড় এলাকায় ছড়িয়ে পড়লে সবার মধ্যে আতংক ছড়িয়ে পড়ে। মুহূর্তের মধ্যে দোকানপাট বন্ধ করে ব্যবসায়ীরা বাসা-বাড়িতে ছুটে যান। তবে, এ নিয়ে কোন ধরণের গোলযোগের খবর পাওয়া যায়নি।
প্রত্যক্ষদর্শীরা জানান, গতকাল বৃহস্পতিবার সন্ধ্যায় টিলাগড় এলাকায় সরস্বতী পূজার বিরোধ নিয়ে সৈকত ও দীপ তর্কাতর্কিতে জড়িয়ে পড়ে। এক পর্যায়ে সাবেক ছাত্রনেতা সঞ্জয় চৌধুরী দু’জনকে ডেকে নিয়ে পুরো বিষয়টি মীমাংসা করে দেন। রাত সাড়ে নয়টার দিকে হঠাৎ করে টিলাগড় পয়েন্ট সংলগ্ন এলাকায় দু’পক্ষ সংঘর্ষে জড়িয়ে পড়ে। আশপাশের লোকজন কিছু বুঝে উঠার আগেই দেশীয় অস্ত্র ও ছুরিকাঘাতে সৈকত, দীপ ও সৌরভ রক্তাক্ত জখম হন। তাদের আর্তচিৎকারে লোকজন এগিয়ে আসেন। ছুরিকাঘাতে ছাত্রলীগ কর্মী দীপের ঘাড়ের বামপাশ রক্তাক্ত জখম হয়। এ সময় প্রচুর রক্তক্ষরণ হলে সে সংজ্ঞাহীন হয়ে পড়ে। সহপাঠীরা তাকে ওসমানী হাসপাতালে নিয়ে গেলে কর্তব্যরত চিকিৎসক রাত সাড়ে ১০টার দিকে তাকে মৃত ঘোষণা করেন। এ ঘটনায় আহত সৈকত ও শুভ কর সৌরভ ওসমানী হাসপাতালে চিকিৎসাধীন রয়েছে। সৌরভ ও সৈকতের বাসা নগরীর গোপালটিলা এলাকায়। চিকিৎসাধীন সৈকতকে পুলিশ আটক দেখিয়েছে।
শাহপরান থানার অফিসার ইনচার্জ আব্দুল কাইয়ুম চৌধুরী জানান, প্রথমে দীপ তার সহপাঠী নিয়ে সৈকতের ওপর আক্রমণ করে। সৈকত পাল্টা আক্রমণ করলে দীপ রক্তাক্ত জখম হয়। ওসি কাইয়ুম আরো বলেন, সরস্বতী পূজার বিরোধকে কেন্দ্র করে এ হত্যাকা-টি সংঘটিত হয়েছে। তিনি বলেন, পুলিশ সুরতহাল রিপোর্ট তৈরিসহ আনুষাঙ্গিক কার্যক্রম চালিয়ে যাচ্ছে। এখনো মামলা হয়নি। তবে, এ ঘটনায় সৈকতকে আটক করা হয়েছে বলে জানান তিনি।
ওসমানী মেডিকেল কলেজ হাসপাতাল পুলিশ ফাঁড়ির ইনচার্জ এস আই ফারুক আহমদ জানান, এ ঘটনায় আহত সৈকত ও সৌরভকে হাসপাতালের ৫ নং ওয়ার্ডে ভর্তি করা হয়েছে।
এদিকে, ছাত্রলীগ কর্মী অভিষেক দে দীপ খুন হওয়ার খবর পেয়ে ওসমানী হাসপাতালে দলের নেতাকর্মীরা ভিড় জমান। কেউ কেউ সহপাঠী হারানোর বেদনায় বারবার মুর্চ্ছা যাচ্ছিলেন। রাত ১১টায় হাসপাতালে আওয়ামী লীগ নেতা এডভোকেট রণজিত সরকারকে লাশের পাশে অনেকটা বিষণœ অবস্থায় অবস্থান করতে দেখা যায়। অশ্রুসিক্ত নয়নে এ সময় তিনি বিক্ষুব্ধ নেতাকর্মীদের তিনি শান্ত থাকার আহ্বান জানান।
এর আগে হাসপাতালে ছুটে যান দীপের মা-বাবা। তারা সন্তানের রক্তাক্ত নিথর দেহ দেখে কান্নায় ভেঙ্গে পড়েন। হাসপাতালের মেঝেতে পুত্রের ঘাতকের ফাঁসি চেয়ে তারা বুকফাটা আর্তনাদ করছিলেন। দীপের সহপাঠীরা তাদেরকে সান্ত¦না দেয়ার চেষ্টা চালান।
রাত সাড়ে ১১ টায় এসএমপির ডিসি (দক্ষিণ) সুহেল রেজা ওসমানী হাসপাতালে ছুটে আসেন। দীপের লাশ দেখার পর তিনি সেখানে দায়িত্বরত পুলিশ অফিসারদের প্রয়োজনীয় ব্যবস্থা নেয়ার নির্দেশনা প্রদান করেন।


  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  

আরও পড়ুন

শাল্লা ইউপি সদস্য শানু মিয়ার ইন্তেকাল দাফন সম্পন্ন

          হাবিবুর রহমান হাবিব, শাল্লা...

আকবেট-এর উদ্যোগে সেন্টার ম্যানেজমেন্ট কমিটি গঠন

         মো. আব্দুল বাছিত: শ্রমজীবী শিশুদের...

সাংবাদিক চান মিয়ার মৃত্যুতে সিলেট প্রেসক্লাবের শোক

         সিলেট এক্সপ্রেস ডেস্ক: ছাতক প্রেসক্লাব...