ছাত্রদের নির্যাতনকারী মাদ্রাসা সুপার গ্রেফতার

,
প্রকাশিত : ১৮ নভেম্বর, ২০২১     আপডেট : ২ মাস আগে
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  

ছাতকে মাদ্রাসা ছাত্রদের নির্যাতনকারী শিক্ষক আব্দুল মুকিত(৪০) কে আটক করা হয়েছে। গতকাল বুধবার সকালে উপজেলার গোবিন্দগঞ্জ পয়েন্ট থেকে তাকে আটক করে পুলিশ। আব্দুল মুকিত উপজেলার কালরুকা ইউনিয়নের রামপুর হাজী ইউসুফ আলী এতিমখানা ও হাফিজিয়া দাখিল মাদ্রাসার সুপার এবং ইসলামপুর ইউনিয়নের রহমতপুর গ্রামের আব্দুল গনির পুত্র। এ ঘটনায় ছাতক থানার সেকেন্ড অফিসার হাবিবুর রহমান বাদী হয়ে মাদ্রাসা শিক্ষক আব্দুল মুকিতের বিরুদ্ধে ছাতক থানায় শিশু আইনের ৭০ ধারায় একটি মামলা রুজু করেন। এ মামলায় গ্রেফতার দেখিয়ে বুধবার দুপুরে তাকে সুনামগঞ্জ জেলহাজতে পাঠানো হয়েছে। সম্প্রতি হাজী ইউসুফ আলী এতিমখানা হাফিজিয়া দাখিল মাদ্রাসার ছাত্র আবু তাহের (৯), রবিউল ইসলাম নিলয়(১০) ও কাজী শফিউর রহমান(১১) নামের তিন ছাত্রকে শারীরিক নির্যাতনের একটি ভিডিও সামাজিক যোগাযোগ মাধ্যম ফেইসবুকে ভাইরাল হয়। ভিডিওতে দেখা গেছে, ওই তিন ছাত্রকে মাদ্রাসা সুপার আব্দুল মুকিত বেধড়ক পিটাচ্ছেন। এসময় ছাত্ররা আর্তচিৎকার করে আর এসব করবে না বলে আকুতি-মিনতি করলেও তাদের রেহাই দেননি ওই শিক্ষক। জানা গেছে, মাদ্রাসার ফ্লোরে প্রস্রাব করার অপরাধে শিশুদের উপর নির্যাতন চালানো হয়েছিল। ঘটনাটি ঘটেছে ২০২০ সালের ২১ ডিসেম্বর। দীর্ঘ প্রায় এক বছর পর শিশু নির্যাতনের মোবাইলে ধারণকৃত ঘটনাটি গত ৫ নভেম্বর ফেইসবুকে ভাইরাল হলে প্রশাসন নড়েচড়ে বসে। বুধবার সকালে ছাতক থানার অফিসার ইনচার্জ মিজানুর রহমান বিশেষ অভিযান চালিয়ে গোবিন্দগঞ্জ পয়েন্ট থেকে তাকে আটক করেন। এদিকে ১৬৪ ধারার জবান বন্দিতে অভিযুক্ত আব্দুল মুকিত শিশু নির্যাতনের বিষয়টি সুনামগঞ্জ আদালতে স্বীকার করেছেন বলে জানা গেছে।


  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  

আরও পড়ুন

সিলেটে ভূমিকম্প

        হঠাৎ করেই দেশের উত্তর-পূর্বাঞ্চলের জেলা...

দোয়ারাবাজার সমিতি সিলেট এর শাড়ী ও লুঙ্গি বিতরণ

        পবিত্র ঈদুল আযহা উপলক্ষে সিলেটে...

কাঁঠালের উপকারিতা

        মৌসুমী ফল কাঁঠাল পাওয়া যাচ্ছে...