ছাতক পৌরসভা নির্বাচনে ভোটাদের মতে পুরাতনদেরই এগিয়ে

,
প্রকাশিত : ১৬ জানুয়ারি, ২০২১     আপডেট : ১১ মাস আগে
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  

সেলিম মাহবুব:-ছাতক পৌরসভা নির্বাচনে মেয়র, কাউন্সিলর ও সংরক্ষিত নারী আসনে মোট ৪৯ প্রার্থী প্রতিদ্বন্দ্বিন্তায় রয়েছেন। আজ শনিবার ২য় দফা সারা দেশের ন্যায় ছাতক পৌরসভায় ভোট গ্রহন অনুষ্ঠিত হবে। ১৯টি কেন্দ্রে ৩০ হাজার ২৮০ জন ভোটার ভোটাধিকার প্রয়োগ করে তাদের প্রতিনিধি নির্বাচন করবেন। মেয়র, কাউন্সিল ও মহিলা কাউন্সিলর পদে ১৩ জন প্রতিনিধি নির্বাচিত হবেন। এ মুহুর্তে প্রার্থীদের জয়-পরাজয় নিয়ে আলোচনায় মেতে উঠেছেন ভোটারসহ নির্বাচন বিশ্লেষকরা। পৌরসভার ৯টি ওয়ার্ড ঘুরে সাধারন ভোটার ও অভিজ্ঞজনদের সাথে নির্বাচনী বিষয় নিয়ে আলাপচারিতায় ফুটে উঠে প্রার্থীদের জয়-পরাজয়ের হিসেবে নিকেশ। তাদের মতে হাড্ডা-হাড্ডি লড়াইয়ের মধ্য দিয়ে জয়-পরাজয় নির্ধারিত হবে। এ ক্ষেত্রে পুরাতনদের পাল্লাই ভারি বলে মনে করছেন তারা। ভোটারদের মতে পৌরসভার ১নং ওয়ার্ডের ৩ প্রার্থীর মধ্যে প্রচারনায় এগিয়ে রয়েছেন বর্তমান কাউন্সিলর আখলাকুল আম্বিয়া সোহাগ ও নাজিমুল হক। ফলাফলও তাদের মধ্যেই নির্ধারিত হবে বলে ধারনা করা হচ্ছে। ২নং ওয়ার্ডের প্রার্থী বর্তমান কাউন্সিলর সুদীপ দে ও সাবেক কাউন্সিলর আফরোজ মিয়ার মধ্যে জয়-পরাজয় হওয়ার সম্ভাবনা দেখছেন ভোটাররা। ৩নং ওয়ার্ডে ৬ জন কাউন্সিলর প্রার্থীর মধ্যে ত্রি-মুখী লড়াই হওয়ার আবাস পাওয়া গেছে। ভোটারদের মতে বর্তমান কাউন্সিলর লিয়াকত আলী, রাসেল মিয়া ও কাওসার চিস্তি এ মুহুর্তে অনেকটাই এগিয়ে রয়েছেন। ৪নং ওয়ার্ডের প্রার্থী বর্তমান কাউন্সিলর ধন মিয়ার সাথে প্রতিদ্বন্দ্বিতায় আছেন আরো ৪ প্রার্থী। প্রচারনার দৌড়ে এগিয়ে আছেন ধন মিয়া, আব্দুল্লাহ মিয়া এবং রশিদ আহমদ। তাদের মধ্যেই ফলাফল নির্ধারিত হওয়ার সম্ভাবনা দেখছেন ভোটাররা। ৫ নং ওয়ার্ডে প্রতিদ্বন্দ্বি ৩ প্রার্থীর মধ্যে হবে হাড্ডা-হাড্ডি লড়াই। ভোটারের বিবেচনায় সব চেয়ে ছোট এ ওয়ার্ডে অল্প ভোটের ব্যবধানে জয়-পরাজয় নির্ধারিত হবে। এ ক্ষেত্রে ভোটাররা বর্তমান কাউন্সিলর আছাব মিয়া ও সাবেক কাউন্সিলর ইরাজ মিয় কে এগিয়ে রেখেছেন। ৬ নং ওয়ার্ডে প্রতিদ্বন্দ্বি ৩ প্রার্থীর মধ্যে লড়াই হবে বর্তমান কাউন্সিলর জসিম উদ্দিন সুমেন এবং মুক্তি মাহবুব মিয়ার মধ্যে। তুমুল প্রতিদ্বন্দ্বিতার মধ্যে এ ওয়ার্ডের ফলাফল নির্ধারিত হবে। পৌরসভা নির্বাচনে সবচেয় বৃহৎ ও গুরুত্বপূর্ন হচ্ছে ৭ নং ওয়ার্ড। বিশেষ কারনে গোটা পৌরসভার মানুষের নজর এখন এ ওয়ার্ডের দিকেই। টান-টান উত্তেজনাও বিরাজ করছে এ ওয়ার্ডের ভোটারদের। প্রতিদ্বন্দ্বি প্রার্থী ৩ জন হলেও আলোচনায় রয়েছেন বর্তমান কাউন্সিলর তাপস চৌধুরী ও লায়েক মিয়া। জয়-পরাজয়ও তাদের মধ্যেই নির্ধারন হবে বলে ধারনা করা হচ্ছে। ৮ নং ওয়ার্ডে ৪ প্রার্থীর মধ্যে আলোচনায় রয়েছেন ২ জন। জয়-পরাজয়ে সাবেক কাউন্সিলর মাসুক মিয়া ও শফিকুল ইসলামের মধ্যে নির্ধারিত হবে বলে ধারনা করা হচ্ছে। ৯নং ওয়ার্ডে ৪ প্রার্থীওর মধ্যে আলোচনায় আছেন বর্তমান কাউন্সিলর দিলোয়ার হোসেন ও ব্যবসায়ী হাজী ছালিক মিয়া। তীব্র প্রতিদ্বন্দ্বিতার মাধ্যমে ফলাফল নির্ধারিত হবে এ ওয়ার্ডে। সংরক্ষিত নারী আসন ১, ২ ও ৩ নং ওয়ার্ডে ৫ প্রার্থীর মধ্যে অনেকটাই এগিয়ে আছেন শিপ্রা দে, তহুরা আক্তার কলি ও নূরেছা বেগম। এখানের সংরক্ষিত নারী আসনে ত্রি-মুখী লড়াইয়ের আবাস দিচ্ছেন ভোটাররা। সংরক্ষিত ৪, ৫ ও ৬ নং ওয়ার্ডে ৩ প্রার্থীর মধ্যে অনেকটাই এগিয়ে আছেন বর্তমান কাউন্সিলর তাসলিমা জান্নাত কাকলী। বিজয়ের ব্যাপারে কাকলীকেই এগিয়ে রেখেছেন ভোটাররা। সংরক্ষিত এ নারী আসনে প্রতিদ্বন্দ্বিতায় রয়েছেন সাবেক মহিলা কাইন্সলর সুতফা দাস। এবং সংরক্ষিত ৭, ৮ ও ৯ নং ওয়ার্ডে বর্তমান ৬ প্রার্থীর মধ্যে বর্তমান কাউন্সিলর মিলন রানী দাসের সাথে তীব্র প্রতিদ্বন্দ্বিতায় রয়েছেন হোছনা আক্তার নাজিয়া ও রত্না মালাকার। এদের মধ্যেই ফলাফল নির্ধারিত হবে বলে ওই ওয়ার্ডের ভোটারদের ধারনা। তবে সর্ব ক্ষেত্রেই ভোটাররা পুরাতনদেরই এগিয়ে রেখেছেন। কার ভাগ্যে বিজয় নির্ধারন হবে এ অপেক্ষায় প্রহর গুনছেন ভোটাররা।


  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  

আরও পড়ুন

মানিব্যাগে প্রেমিকার ছবি, প্রতিবাদ করায় স্ত্রীকে হত্যা

        এক্সপ্রেস ডেস্ক :-পাবনার ঈশ্বরদীতে মানিব্যাগে...

সিলেটের উন্নয়ন মানে বাংলাদেশের উন্নয়ন

        সিলেট এক্সপ্রেস ডেস্ক: সিলেট সিটি...

ভ্রমণের সুবিধার্থে এবার ট্যুরিস্ট বাস চালুর উদ্যোগ

        দেশি বিদেশী পর্যটকদের ভ্রমণের সুবিধার্থে...