গ্রেনেড হামলা মামলার রায়কে ঘিরে সতর্ক অবস্থায় সিলেট

,
প্রকাশিত : ১০ অক্টোবর, ২০১৮     আপডেট : ২ বছর আগে
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  

সিলেট এক্সপ্রেস ডেস্ক: আলোচিত ২১ আগস্ট গ্রেনেড হামলা মামলার রায়কে ঘিরে সর্বোচ্চ সতর্ক অবস্থায় রয়েছে সিলেটের আইনশৃঙ্খলা বাহিনী। এর পাশাপাশি বিএনপির নাশকতামূলক তৎপরতা রুখতে জেলা ও মহানগর আওয়ামী লীগ প্রস্তুত বলে জানিয়েছেন মহানগর আওয়ামী লীগের সভাপতি বদর উদ্দিন আহমদ কামরান। বুধবার দুপুর থেকে নগরের সোবহানিঘাটস্থ দলীয় কার্যালয়ে অবস্থান নিয়ে বিএনপির অপতৎপরতা মোকাবেলায় প্রস্তুত থাকবেন সরকার দলের নেতাকর্মীরা।

রায়কে কেন্দ্র করে সিলেটে যাতে কোনো ধরনের অপ্রীতিকর ঘটনা না ঘটে সে জন্য সিলেট মহানগর পুলিশের (এসএমপির) পক্ষ থেকে বাড়তি নিরাপত্তা ব্যবস্থা নেয়া হয়েছে। নাশকতা এড়াতে নগরে পোশাকধারী পুলিশ সদস্য, র্যাব ছাড়াও সাদা পোশাকেও আইনশৃঙ্খলা বাহিনীর সদস্যরা মাঠে তৎপর থাকবেন বলে একাধিক সূত্রে জানা যায়।

এ বিষয়ে র্যাব-৯ এর সিনিয়র এএসপি মনিরুজ্জামান বলেন, ২১ আগস্ট গ্রেনেড হামলার মামলাটি একটি গুরুত্বপূর্ণ বিষয়। তাই এ মামলার রায়কে ঘিরে যাতে কোনো ধরনের অনাকাঙ্ক্ষিত ঘটনা না ঘটে সে জন্য আমাদের পক্ষ থেকে বাড়তি টহল দল থাকবে। তাছাড়া সিলেট জুড়ে আমাদের গোয়েন্দারাও বাড়তি নজরদারি রেখেছেন।

এদিকে ২১ আগস্ট গ্রেনেড হামলা মামলার রায় নিয়ে সিলেট আওয়ামী লীগ ও বিএনপি দুই দলই কঠোর অবস্থানে রয়েছে। সিলেট বিএনপির নেতাকর্মীরা মঙ্গলবার সিলেটের বিভিন্ন স্থানে বিক্ষোভ মিছিল ও সমাবেশ করেছে। সমাবেশে বিএনপি ও অঙ্গ সংগঠনের নেতাকর্মীরা জানান, গ্রেনেড হামলা মামলায় ফরমায়েশি রায় দিয়ে খালেদা জিয়া ও তারেক রহমানকে সাজা দিলে সরকারের বিরুদ্ধে কঠোর আন্দোলন গড়ে তোলা হবে।

অন্যদিকে ১৪ বছর পর ২১ আগস্টের গ্রেনেড হামলা মামলার রায় নিয়ে যদি কোনোদল বা গোষ্ঠী সিলেটে নৈরাজ্য বা নাশকতার চেষ্টা করে। তাহলে জনগণকে সঙ্গে নিয়ে তাদেরকে প্রতিহত করার কথা বলেছেন স্থানীয় আওয়ামী লীগ নেতারা।

সিলেট মহানগর বিএনপির সাংগঠনিক সম্পাদক মিফতাহ সিদ্দিকী জানান, জিয়া পরিবারের বিরুদ্ধে একের পর এক ষড়যন্ত্রের ধারাবাহিকতায় এবার ২১ আগস্ট গ্রেনেড হত্যা মামলায় জড়িয়ে ফরমায়েশি রায় প্রদানের চেষ্টা চলছে।

এ বিষয়ে সিলেট মহানগর পুলিশের (এসএমপি) অতিরিক্ত উপ-পুলিশ কমিশনার (গণমাধ্যম) মুহম্মদ আব্দুল ওয়াহাব জানান, ২১ আগস্ট গ্রেনেড হামলার রায়কে কেন্দ্র করে সিলেটে যাতে কোনো ধরনের নাশকতা না ঘটে সে জন্য বাড়তি নিরাপত্তা ব্যবস্থা গ্রহণ করা হয়েছে। আর সার্বক্ষণিক সিলেট নগরজুড়ে থাকবে প্রশাসনের বাড়তি টহল। সকল গুরুত্বপূর্ণ স্থানে থাকবে পুলিশের তল্লাশি চৌকি।

প্রসঙ্গত, বিএনপির সরকারের আমলে ২০০৪ সালের ২১ আগস্ট ঢাকায় আওয়ামী লীগের সন্ত্রাসবিরোধী সমাবেশে ভয়াবহ গ্রেনেড হামলার ঘটনা ঘটে। হামলায় ২৪ জন নিহত হন। তৎকালীন বিরোধী দলীয় নেতা ও বর্তমান প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা অল্পের জন্য প্রাণে বেঁচে গেলেও তিনি আহত হন। এছাড়া দলীয় নেতাকর্মী-আইনজীবী-সাংবাদিকসহ পাঁচ শতাধিক লোক আহত হন। জাগো নিউজ


  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  

পরবর্তী খবর পড়ুন : বিচ্ছেদের বাস্তুতন্ত্র

আরও পড়ুন