গ্রামীণ ব্যাংকের ভাতা ও পুনঃপেনশন বাস্তবায়নের দাবিতে সিলেটে সমাবেশ

প্রকাশিত : ১১ অক্টোবর, ২০১৯     আপডেট : ৯ মাস আগে

সরকার ঘোষিত গামীণ ব্যাংক কর্তৃপক্ষ উৎসব বোনাস, বৈশাখী ভাতা, মাসিক চিকিৎসা ভাতা এবং অবসরের ১৫ বছর উত্তীর্ণ হলে পুনঃপেনশন বাস্তবায়নের দাবিতে সিলেট বিভাগীয় সমাবেশ অনুষ্ঠিত হয়েছে।

শুক্রবার সকালে সিলেট শহীদ সোলেমান হলের মুসলিম সাহিতহ্য সংসদের অডিটোয়াম হলে গ্রামীণ ব্যাংক (অব.) কর্মকর্তা/কর্মচারী কল্যাণ সমিতি সিলেট বিভাগীয় কমিটির উদ্যোগে এই সমাবেশ হয়।

সিলেট বিভাগীয় কমিটির সভাপতি মো. আবুল ফজলের সভাপতিত্বে ও মৌলভীবাজার জেলা শাখার সাধারণ সম্পাদক এম. এম. ইউসুফ আলীর পরিচালনায় প্রধান অতিথির বক্তব্য রাখেন, সংগঠনের কেন্দ্রীয় সভাপতি মো. সামসুল আরেফিন, প্রধান বক্তার বক্তব্য রাখেন কেন্দ্রীয় কমিটির সাধারণ সম্পাদক মো. জালাল উদ্দিন আহম্মদ, স্বাগত বক্তব্য রাখেন কেন্দ্রীয় সাংগঠনিক সম্পাদক ও সিলেট বিভাগীয় কমিটির সাধারণ সম্পাদক অভি রঞ্জন রায়, বিশেষ অতিথির বক্তব্য রাখেন, চট্টগ্রামের প্রতিনিধি মো. জহির আহমদ, খুলনার প্রতিনিধি শেখ কবির উদ্দিন, হবিগঞ্জ প্রতিনিধি মো. হাফিজুর রহমান, সুনামগঞ্জ প্রতিনিধি মো. আফছর উদ্দিন, মো. নুর মিয়া, কৃষ্ণচরণ দাশ, সিলেট প্রতিনিধি এডভোকেট বিভু ভূষণ দাস, মো. মদু মিয়া, মো. আব্দুল মান্নান, মো. ইন্তাজ আলী প্রমুখ।

সমাবেশে বক্তারা বলেন, সরকার ঘোষিত শতভাগ পেনশন সমর্পনকারীদের জন্য প্রতি বৎসর দুইটি উৎসব বোনাস, বৈশাখী ভাতা, মাসিক চিকিৎসা ভাতা, ২০০৪ সাল থেকে বকেয়া সহ প্রদানের সিদ্ধান্ত গ্রহণ এবং শতভাগ পেনশন সমপর্নকারীদের অবসরের সময় ১৫ বছর উত্তীর্ণ হলে পূনঃপেনশণ প্রদানের সিদ্ধান্ত গ্রহণ করেছেন এবং তাহা ১ জুলাই ২০১৭ সাল হতে কার্যকর হয়েছে অথচ গ্রামীণ ব্যাংক আধা শায়ত্ব শাসিত সরকারি প্রতিষ্ঠান হওয়া সত্ত্বেও সরকারের এই সিদ্ধান্ত সমূহ আজপর্যন্ত বাস্তবায়ন করেনি। আমরা অবিলম্বে গামীণ ব্যাংক কর্তৃক উৎসব বোনাস, বৈশাখী ভাতা, মাসিক চিকিৎসা ভাতা এবং অবসরের ১৫ বছর উত্তীর্ণ হলে পুনঃপেনশন বাস্তবায়নের দাবি জানাচ্ছি। অন্যথায় দূর্বার আন্দোলনের মাধ্যমে দাবী আদায়ে কঠোর কর্মসূচী দিতে বাধ্য হবো।

আরও পড়ুন