গাড়ীচাপায় ছাত্রী আহত হওয়ার প্রতিবাদে সড়ক অবরোধ

প্রকাশিত : ০৩ অক্টোবর, ২০১৮     আপডেট : ১ বছর আগে  
  

সিলেট এক্সপ্রেস ডেস্ক: সিলেট নগরীর মেজরটিলাস্থ জালালাবাদ ইন্টারন্যাশনাল আলিম মাদরাসার চতুর্থ শ্রেণির ছাত্রী রাখি আক্তার (১০) গাড়ী চাপায় আহত হওয়ার প্রতিবাদে বুধবার সকাল ১০ টায় শিক্ষার্থীরা তামাবিল রোডস্থ ইসলামপুর রাস্তায় নেমে বিক্ষোভ করে। এসময় সড়ক অবরোধ করে শিক্ষার্থীরা। শিক্ষার্থীদের অবরোধের কারণে সকাল ১০ টা থেকে ১১ টা পর্যন্ত যান চলাচল বন্ধ থাকে।
শিক্ষার্থীরা জানায়, সকাল সাড়ে ৮ টায় রাখি গেটের সামনে দিয়ে রাস্তা পার হচ্ছিলেন। এ সময় একটি পিকআপ অভার ট্রাইক করে তাকে চাপা দেয়। এতে ওই ছাত্রীর শরীরের বিভিন্ন স্থানে জখম হয়ে মারাত্মকভাবে আহত হন। এজন্য শিক্ষার্থীরা ক্ষুব্ধ হয়ে রাস্তার ওপর অবস্থান নিয়ে বিক্ষোভ করে।
ছাত্রছাত্রী, শিক্ষক, অভিভাবক ও এলাকাবাসী এ কর্মসূচিতে অংশ নেয়। অবরোধ কর্মসূচিতে বক্তব্য রাখেন মাদরাসার প্রিন্সিপাল হাফিজ মাওলানা মাহবুবুর রহমান, ভাইস প্রিন্সিপাল মাওলানা মাসুক আহমদ, আল আমিন জামেয়া ইসলামিয়া মাধ্যমিক বিদ্যালয়ের প্রিন্সিপাল জসিম উদ্দিন, ভাইস প্রিন্সিপাল শামীম আহমদ, প্রভাষক মাওলানা এহসান উদ্দিন, শিক্ষক হোসেন আহমদ চৌধুরী, সাইফুর রহমান খান, মাজহারুল ইসলাম জয়নাল, আব্দুল জলিল, বুরহান উদ্দিন, তানভীর আহমদ তুহা, কাওছার আহমদ।
অভিভাবকদের মধ্যে বক্তব্য রাখেন মেজরটিলা জামে মসজিদের সেক্রেটারি আব্দুর রকিব, বিশিষ্ট ব্যবসায়ী মুয়াক্কির আহমদ সিদ্দিকী, ইমদাদুর রহমান, আব্দুল খালিক প্রমুখ।
পরে পুলিশ প্রশাসনের হস্তক্ষেপে এবং খাদিমপাড়া ইউনিয়ন চেয়ারম্যান এড. আফসার আহমদ এবং স্থানীয় মেম্বার মো: মলন আহমদের মধ্যস্থতায় চালককে আইনানুগ শাস্তি প্রদান ও আহত ছাত্রীর চিকিৎসার ব্যয়ভারের দায়িত্ব নেওয়ার আশ্বাসে অবরোধ কর্মসূচী থেকে বিরত থাকে। উল্লেখ্য, ছাত্রী আহত হওয়ার প্রতিবাদে শিক্ষার্থীরা অবরোধসহ নিরাপদ সড়কের দাবীতে আন্দোলন করে দূর্ঘটনা এড়ানোর জন্য প্রশাসনসহ সংশ্লিষ্টদের প্রতি আহবান জানানো হয়। বর্তমানে ওই সড়কে যান চলাচল স্বাভাবিক রয়েছে।

পরবর্তী খবর পড়ুন : সিলেটে পাঁচ জনের কারাদণ্ড

আরও পড়ুন



হাসপাতালে চিকিৎসা দিয়ে ফের কারাগারে বাবর

সিলেট এক্সপ্রেস ডেস্ক: সাবেক স্বরাষ্ট্র...

How-to Enhance Skills for Sixth Graders

In case your subject has...