খালেদা জিয়ার মুক্তির দাবীতে যুক্তরাজ্য বিএনপির মানব বন্ধন

Alternative Text
,
প্রকাশিত : ১২ সেপ্টেম্বর, ২০১৮     আপডেট : ২ বছর আগে
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  

বেগম খালেদা জিয়াকে কারা অভ্যন্তরে ক্যামেরা ট্রায়ালের মাধ্যমে সাজা দিতে বেআইনি ভাবে অস্থায়ী আদালত গঠনের তীব্র প্রতিবাদ ও দেশনেত্রীর সুচিকিৎসা , নি:শর্ত মুক্তি দাবি এবং তারেক রহমানের বিরুদ্ধে মিথ্যা মামলার রায় প্রত্যাহারের দাবীতে ১০ আগস্ট রোজ সোমবার ব্রিটিশ পার্লামেন্টের সামনে মানব বন্ধন করেছে যুক্তরাজ্য বিএনপি।

যুক্তরাজ্য বিএনপির সভাপতি এম এ মালিকের সভাপতিত্বে এবং সাধারণ সম্পাদক কয়ছর এম আহমেদের পরিচালনায় অনুষ্ঠিত মানব বন্ধন কর্মসূচিতে যুক্তরাজ্যের বিভিন্ন শহর থেকে বিএনপির নেতৃবৃন্দ, জোনাল কমিটির নেতৃবৃন্দ, অঙ্গ ও সহযোগী সংগঠনের বিপুলসংখ্যক নেতাকর্মীসহ ব্রিটিশ বাংলাদেশী কমিউনিটির নেতৃবৃন্দগণ বিভিন্ন পোস্টার, ব্যানার ও ফেস্টুন হাতে নিয়ে দেশনেত্রী বেগম খালেদা জিয়াকে কারা অভ্যন্তরে ক্যামেরা ট্রায়ালের মাধ্যমে সাজা দিতে বেআইনি ভাবে অস্থায়ী আদালত গঠনের তীব্র প্রতিবাদ ও নিঃশর্ত মুক্তি দাবী করে।

যুক্তরাজ্য বিএনপির সভাপতি এম এ মালিক তার বক্তবে বলেন, বেগম খালেদা জিয়ার নিঃশর্ত মুক্তি দাবি করে বলেন, গনতন্ত্রের মা দেশনেত্রী বেগম খালেদা জিয়াকে অবৈধ সরকার সম্পূর্ণ রাজনৈতিক প্রতিহিংসামূলক ভাবে সাজানো মিথ্যা মামলায় নির্জন কারাগারে আটকে রেখেছে। কারা অভ্যন্তরে ক্যামেরা ট্রায়ালের মাধ্যমে সাজা দিতে বেআইনি ভাবে অস্থায়ী আদালত গঠনের তীব্র প্রতিবাদ জানিয়ে বলেন, এই অবৈধ সরকার জেল-জুলুম ও নির্যাতন করে ক্ষমতা চিরস্থায়ী করতে পারবে না। দেশনেত্রী বেগম খালেদা জিয়া কিছু হলে তার দায়দায়িত্ব সরকারকে বহন করতে হবে। গণতন্ত্রের অতন্ত্র প্রহরী মা দেশনেত্রী বেগম জিয়া কারা মুক্ত না হয়া পর্যন্ত আমাদের প্রতিবাদ কর্মসূচি অব্যাহত থাকবে।তিনি অবিলম্বে দেশনেত্রী বেগম খালেদা জিয়ার চিকিৎসা ও মুক্তির জোর দাবী করেন । এম এ মালিক বলেন, দেশ আজ এক মহাক্রান্তিকাল অতিক্রম করছে, গনতন্ত্রকে করা হয়ছে নির্বাসিত, হরণ করা হয়েছে বাকস্বাধীনতাকে, সর্বোপরি মানুষের মৌলিক অধিকার গুলোকে করা হয়েছে পদদলিত। দেশের এই ক্রান্তিকাল লগ্নে আমরা সবাই ঐক্যবদ্ধ ভাবে কাঁধে কাঁধ মিলিয়ে আন্দোলন করে এই ফ্যাসিস্ট অবৈধ সরকারের কালো থাবা থেকে গনতন্ত্রকে পুনরুদ্ধার করব । সাধারণ সম্পাদক কয়ছর এম আহমেদ বলেন, স্বৈরাচারী হাসিনা সরকার তাদের ক্ষমতা চিরস্থায়ী করতে দেশনেত্রী বেগম খালেদা জিয়াকে বন্দি করে রেখেছে।এখন সম্পূর্ণ বেআইনি ভাবে কারা অভ্যন্তরে আদালত বসিয়ে ক্যামেরা ট্রায়ালের মাধ্যমে দেশনেত্রীকে নির্বাচন থেকে দূরে রাখতে নীলনকশার পায়তারা করছে। দেশবাসী অবৈধ সরকারের এই গভীর ষড়যন্ত্রের দাঁতভাঙ্গা জবাব দিতে প্রস্তুত। দেশনেত্রী বেগম জিয়ার কিছু হলে এর দায় এই অবৈধ সরকারকে নিতে হবে। অবৈধ সরকারের প্রতি দেশের সর্বস্তরের মানুষের অনাস্থা আজ পরিস্কার উঠায় তারা দেশ ছেড়ে পালাবার পথ খুজে পাচ্ছে না। সরকার সম্পূর্ণ গায়ের জোরে দেশনেত্রী বেগম খালেদ জিয়াকে বন্দি করে রেখেছে। বিএনপির জনপ্রিয়তায় সরকার দিশেহারা হয়ে পড়েছে। দেশে আজ সকল পেশা শ্রেণীর মানুষ সরকারের অন্যায় অত্যাচারের বিরুদ্ধে রুখে দাঁড়িয়েছে। তিনি বলেন, আওয়ামীলীগের সকল ষড়যন্ত্র মোকাবেলা করে দেশের জনগণ দেশনেত্রী মা বেগম খালেদা জিয়াকে মুক্ত করে জনগনের মধ্যে ফিরিয়ে আনবে।


  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  

আরও পড়ুন

গোলাপগঞ্জের মেয়র পদে মনোনয়ন সংগ্রহের আহবান জেলা বিএনপির

         আসন্ন গোলাপগঞ্জ পৌরসভার মেয়র পদে...

খালেদার জন্য কেউ চোখের পানি ফেলে না: মিসবাহ সিরাজ

         সিলেট এক্সপ্রেস ডেস্ক:  বাংলাদেশ আওয়ামী...

সিলেটে কখন কোথায় ঈদের জামায়াত?

         পবিত্র ঈদুল আযহা উপলক্ষে সিলেটের...