খতনার সময় শিশু নিহত

প্রকাশিত : ০৩ অক্টোবর, ২০১৮     আপডেট : ২ বছর আগে  
  

বিশ্বনাথে খতনা দিতে গিয়ে গ্রাম্য ডাক্তারের দেওয়া ইনজেকশনে ২০ মাস বয়সী শিশু তানভীর আহমদ নিহতের ঘটনায় থানায় মামলা দায়ের করা হয়েছে। মঙ্গলবার রাতে নিহত শিশুর মা লিলি বেগম বাদী হয়ে বিশ্বনাথ থানায় এই মামলা দায়ের করেন। মামলা নং ২ (০২/১০/১৮)। মামলায় একমাত্র আসামী করা হয়েছে প্যারামেডিকড ডাক্তার এম এ রহিম ওরফে জয়নালকে (৫৫)। সে বিশ্বনাথ উপজেলার বাওনপুর গ্রামের মৃত মরম আলীর পুত্র ও উপজেলার সদরের কলেজ রোডস্থ রহিম মেডিকেল সেন্টার (ফার্মেসী) এর স্বত্বাধিকারী। এদিকে, ঘটনার পর থেকে অভিযুক্ত আসামী পলাতক রয়েছেন।
প্রস্রাবে সমস্যা দেখা দেওয়ায় খতনা দিতে দক্ষিণ সুরমা উপজেলার সিলাম ইউনিয়নের টিলা মাওনপুর গ্রামের পুত্র শিশু তানভীর আহমদকে নিয়ে তার মা গত ২৭ সেপ্টেম্বর বৃহস্পতিবার বিকেলে বিশ্বনাথ উপজেলার সদরের কলেজ রোডস্থ রহিম মেডিকেল সেন্টার-এ (ফার্মেসী) আসেন। এ সময় রহিম মেডিকেল সেন্টারে স্বত্বাধিকারী প্যারামেডিক ডাক্তার এম এ রহিম খতনা করতে তানভীর আহমদের অন্ডকোষে ইনজেকশন (এনেস্থেশিয়া) দেওয়ার সাথে সাথে তার (তানভীর) খিঁচুনী উঠে যায় এবং মুখ দিয়ে ফেঁনা বের হতে থাকে। এরপর তানভীরের মা ও সাথে থাকা স্বজনেরা তাকে দ্রুত সিলেট নর্থ ইস্ট মেডিকেল কলেজ হাসপাতালে নিয়ে গেলে কর্তব্যরত চিকিৎসক তানভীরকে মৃত ঘোষণা করেন। বিশ্বনাথ থানার অফিসার ইন-চার্জ (ওসি) শামসুদ্দোহা পিপিএম মামলা দায়েরের বিষয়টি নিশ্চিত করে বলেন, আসামীকে গ্রেফতারে অভিযান অব্যাহত রয়েছে।

আরও পড়ুন