কুরআনের আলোকে ইনসাফ ভিত্তিক সমাজ গঠনে যাকাত ভিত্তিক অর্থনীতির বিকল্প নেই

প্রকাশিত : ১২ মে, ২০১৯     আপডেট : ১ বছর আগে  
  

সিলেট এক্সপ্রেস ডেস্ক: বিশিষ্ট ইসলামী চিন্তাবিদ ও বাংলাদেশ ইসলামী বিশ্ববিদ্যালয় ঢাকা’র সহকারী অধ্যাপক ড. মোহাম্মদ মুতিউল ইসলাম বলেছেন, মহাগ্রন্থ আল কুরআন হচ্ছে মানবতার মুক্তি সনদ। আর মাহে রমজান হচ্ছে পবিত্র কুরআন নাযিলের মাস। এই পবিত্র মাসে শুধু কুরআন তেলাওয়াত নয়, সহীহ ভাবে কুরআন শিক্ষা ও অধ্যয়ন করতে হবে। মানব মনের আত্মশুদ্ধি অর্জনের জন্য যেমন রোযা, তেমনী সম্পদের পরিশুদ্ধির জন্য যাকাত। তবে রমজানের সাথে যাকাতের কোন সম্পর্ক নেই। আমাদের দেশে রমজান মাস এলে যাকাতের কথা বলা হয়ে থাকে। কিন্তু যাকাতের সময় যেদিন থেকে আদায় করা হয় সেদিন থেকে হিসাব ধরা হয়ে থাকে। রমজান মাস হচ্ছে সম্মানিত ও বরকতময় মাস। সবাইকে পবিত্র এই মাসকে সুন্দরভাবে কাজে লাগানোর জন্য এ থেকে যথাযথ ফায়দা হাসিল করতে হবে। তাহলে ইহকালিন সফলতা ও পরকালিন মুক্তি সম্ভব হবে।
তিনি গতকাল শনিবার জালালাবাদ ইমাম ফাউন্ডেশন সিলেট, বাংলাদেশ আয়োজিত “কুরআন, তাক্বওয়া ও যাকাত” শীর্ষক সেমিনারে প্রধান অতিথির বক্তব্যে উপরোক্ত কথা বলেন। নগরীর দরগাগেইটস্থ কেন্দ্রীয় মুসলিম সাহিত্য সংসদ কেমুসাসের শহীদ সুলেমান হলে বিশিষ্ট আলেমে দ্বীন ও জালালাবাদ ইমাম ফাউন্ডেশন সিলেটের সিনিয়র সহ-সভাপতি অধ্যক্ষ হাফিজ মাওলানা আব্দুল হালিমের সভাপতিত্বে ও সাধারণ সম্পাদক মাওলানা জামাল আহমদের পরিচালনায় অনুষ্ঠিত সেমিনারে সিলেটের শীর্ষ স্থানীয় আলেম ও ইমামগণের পাশাপাশি বিভিন্ন শ্রেনীপেশার বিপুল সংখ্যক ব্যাক্তিবর্গ উপস্থিত ছিলেন।
সেমিনারে মূল প্রবন্ধ উপস্থাপন করেন বাংলাদেশ ইসলামী বিশ্ববিদ্যালয় ঢাকা’র প্রভাষক মাওলানা সাদিক মোহাম্মদ ইয়াকুব আল-আযহারী। সেমিনারে অতিথি হিসেবে বক্তব্য রাখেন, আন্জুমানে খেদমতে কুরআন সিলেটের সভাপতি প্রফেসর মাওলানা সৈয়দ একরামুল হক, শায়খুল হাদীস শায়খ মাওলানা ইসহাক আল-মাদানী। সেমিনারের শুরুতেই পবিত্র কুরআন থেকে তেলাওয়াত করেন মাদ্রাসা শিক্ষার্থী হাফিজ আব্দুল মুহাইমিন। হামদে বারী তা’আলা পরিবেশন করেন শিল্পী ইঞ্জিনিয়ার শাহনেওয়াজ চৌধুরী রাজীব।
সেমিনারে অন্যান্যের মধ্যে উপস্থিত ছিলেন, অধ্যক্ষ মাওলানা আব্দুল সালাম আল-মাদানী, অধ্যক্ষ মাওলানা লুৎফুর রহমান হুমায়দী, জাতীয় ইমাম সমিতি সিলেট মহানগর সভাপতি মাওলানা হাবিব আহমদ শিহাব, জেলা ইমাম সমিতির সভাপতি মাওলানা মোহাম্মদ এহসান উদ্দিন, হাফিজ মিফতাহুদ্দীন, হাফিজ মাওলানা মাওলানা সাঈদ নুরুজ্জামান আল মাদানী, ড. মাওলানা এএইচএম সুলায়মান, ইমাম ফাউন্ডেশনের সহ-সভাপতি মাওলানা আব্দুল হাফিজ ও হাফিজ মাওলানা নাসির উদ্দিন, আলেমে দ্বীন মাওলানা ওলীউর রহমান সিরাজী, মাওলানা আসাদুর রহমান, মুফতী আলী হায়দার, হাফিজ মাওলানা মুজিবুর রহমান, মাওলানা মাহমুদুর রহমান দিলওয়ার, মাওলানা আব্দুল হালিম প্রমুখ।
সভাপতির বক্তব্যে অধ্যক্ষ হাফিজ মাওলানা আব্দুল হালিম বলেন, কুরআন নাযিলের মাস পবিত্র মাহে রমজানে জালালাবাদ ইমাম ফাউন্ডেশন “কুরআন, তাক্বওয়া ও যাকাত” শীর্ষক সেমিনার আয়োজনের মাধ্যমে ইসলামের মুল ম্যাসেজগুলা মানুষের মাঝে পৌছে দিতে কাজ করেছে। মানব জীবনের প্রতিটি ক্ষেত্রে কুরআনের সুমহান শিক্ষাকে কাজে লাগাতে হবে। নিজেদেরকে পরিপূর্ণ মুত্তাকী হিসেবে গড়ে তুলতে রমজান থেকে শিক্ষা নিতে হবে। দারিদ্র বিমোচন দুর করতে যাকাত ভিত্তিক সমাজ ব্যবস্থা বিনির্মাণে সবাইকে কাজ করতে হবে। তাহলে আমাদের এই উদ্যোগ সফল ও সার্থক হবে।

আরও পড়ুন