কা’বাহর ইমামের অভিনয়, অতঃপর…॥

,
প্রকাশিত : ২৮ নভেম্বর, ২০২১     আপডেট : ২ মাস আগে
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  

আ বু সা ঈ দ আ ন সা রী : শায়েখ আদেল কালবানী। তার পুরো নাম শায়েখ عادل بن سالم بن سعيد الكلباني আদিল বিন সেলিম বিন সাইদ আল কালবানি আবু আবদুল্লাহ। তিনি কা’বাহ আল মুশারররাফাহর সাবেক ইমাম। বর্তমানে রিয়াদের বাদশাহ খালিদ মসজিদের ইমাম ও খাতিব। তিনি ১৪২৯ হিজরির রামাদানে তারাবীহ নামাজে ইবাদতকারীদের নেতৃত্বের দায়িত্ব পান।এর আগে অবশ্য তিনি Saudia Arabian Airlines এ কাজ করতেন।
ইতোমধ্যে তার প্রাণ জুড়ানো তেলাওয়াত ইউটিউবে মিলিয়ন মিলিয়ন ভিউ হয়েছে। ইসলামের দায়িয়াহ হিসেবেও তিনি বেশ সমাদৃত। আমার সাথে তার দেখা হয়েছে। খুবই অমায়িক এবং প্রানবন্ত একজন অসাধারণ মানুষ।
তবে নতুন করে তিনি বিশ্বজুড়ে সমালোচনায় এসেছেন ২ মিনিট ৪১ সেকেন্ডের একটি ভিডিও ক্লিপের মাধ্যমে।
‘Combat Field’ zone of Riyadh Season 2021 এর একটি টিভি বিজ্ঞাপনে প্রাক্তন কাবার ইমাম শায়েখ আদিল বিন সালেম বিন সাঈদ আল-কালবানি অভিনয় করেছেন। তার সঙ্গে অভিনয়ে আরো আছেন ফুটবল তারকারা।এর জন্য তিনি সমালোচিত হচ্ছেন কাবার এ সাবেক ইমামও।
তিনি যে টিভি বিজ্ঞাপনটিতে অংশ নিয়েছিলেন তাতে দেখা যায় ‘সৈন্যরা যুদ্ধে নিযুক্ত এবং যুদ্ধের অস্ত্র ব্যবহার করছে।তাকে একটি সংক্ষিপ্ত এন্ট্রি করতে দেখা যায়। এখানে কোনো আজেবাজে দৃশ্য নেই। কোনো নারী চরিত্রকেও দেখা যায় না।
প্রসঙ্গত, তিনি দরিদ্র ঘরের সন্তান। কিন্তু তার পেছনে ছিল তার মায়ের দু‘আ। সে কথাই ২০১৭ সালে জানিয়েছিলেন ইমাম শাইখ আদিল আল কালবানি।
লন্ডনের এক কনফারেন্সে পবিত্র কাবা শরীফের এক ইমাম আল কালবানি এই কাহিনী বর্ণনা করেন। এতে তিনি তার জীবনের একটি বাস্তবতা তুলে ধরেন। তিনি জানান, তার উপর কোনো কারণে রেগে গিয়ে তার মা আল্লাহর কাছে যে দু‘আ করেছিলেন তাই তার জীবনে সত্যে পরিণত হয়েছে।
ছোটবেলায় ইমাম কালবানি খুব দুষ্ট প্রকৃতির ছিলেন বলে জানালেন। দুষ্টুমি করে প্রায়শই তিনি মাকে রাগাতেন। কিন্তু তার মা ছিলেন খুবই দ্বীনদার একজন মহিলা, তিনি জানতেন আল্লাহর কাছে দু‘আর কী শক্তি।
তিনি দু‘আ করাটা তার অভ্যাসে পরিণত করেছিলেন। ছেলের উপর যখনি রেগে যেতেন তখনি তিনি বলতেন, ‘আল্লাহ যেন তোমাকে পথ দেখান! আর তিনি যেন তোমাকে কাবার ইমাম বানান!’
ইমাম আল কালবানি বললেন, ‘আল্লাহ তার দু‘আ কবুল করেছেন এবং আমি আজ কাবার ইমাম।’
কালো মানুষ শাইখ আদিল আল কালবানি পারস্য উপসাগরীয় এক দরিদ্র পরিবারের সন্তান। নিউইয়র্ক টাইমস-এর সঙ্গে এক সাক্ষাতকারে শাইখ কালবানি বলেছেন, ‘মসজিদুল হারামের নামাজের ইমামতি করা অসাধারণ সম্মানের, আর এই কাজ শুধুমাত্র আরব ভূখণ্ডের আরবদের জন্যই নির্ধারিত।’
নিজের জীবনের কথা বলতে গিয়ে ইমাম এবার ফিরে গেলেন সেই সময়টিতে, যখন তিনি জানতে পারেন যে, বাদশাহ আবদুল্লাহ তাকে প্রথম কালো মানুষ হিসেবে মসজিদ আল হারামের ইমাম নিয়োগ দিয়েছেন। তিনি বললেন, মাশাআল্লাহ!
ইমাম বলেন, যখন আপনার সন্তান খারাপ আচরণ করবে তখন তাকে গালমন্দ করবেন না। এতে বিপর্যয় ঘটতে পারে। আমি একজনকে জানি যিনি তার ছেলেকে বলেছিলেন— ‘যাও মর’, অতঃপর তিনি সেটার জন্য দুঃখ প্রকাশ করেছিলেন, যখন সেই দিনই তার ছেলে মারা যায়। সুবহানআল্লাহ!
প্রিয় সন্তানের পিতা ও মাতাগণ! আপনাদের ভাষা সংবরণ করুন। আপনার ছেলে-মেয়েদের জন্য ভাল দু‘আ করার অভ্যাস তৈরি করুন, এমনকি যখন আপনি অনেক রেগে যান তখনও তার জন্য দু‘আ করুন।
রাসূলুল্লাহ সাল্লাল্লাহু আলাইহি ওয়াসাল্লাম বলেছেন, ‘তিনটি দু‘আ আল্লাহ কখনও প্রত্যাখ্যান করেন না, ছেলেমেয়েদের জন্য তার পিতামাতার দু‘আ, রোজাদারের দু‘আ এবং মুসাফিরের দু‘আ’। [বায়হাকী, তিরমিযী, হাদীসটি সহীহ সূত্রে বর্ণিত]
যারা এই ম্যাসেজ অন্যদেরকে জানাবেন তাদের জন্য আমি আল্লাহর কাছে দু‘আ করি, বিচার দিবসে এটা দিয়ে তিনি যেন উপকৃত হন অথবা এটা তার মুক্তির কারণ হয়।
মানুষ হিসেবে কেউই আমরা সমালোচনার উর্ধে নই। যারা তাঁকে নিয়ে সমালোচনা করছেন, তারা বলছেন, তিনি কা’বার ইমাম হয়ে কিভাবে অভিনয় করলেন? আসলে পৃথিবী একটি রঙ্গমঞ্চ আর এখানে আমরা সবাই একেকজন অভিনেতা অভিনেত্রী।
যারা বলছেন, তারাও তো অনেকে বলিউড- হলিউডের ফিল্ম দেখেন। শাহরুখ- Tom Cruise কে হিরো মনে করেন। আবার দেখেছি এই তাঁরাই Instrumental music শুনেন না। এক্ষেত্রে নাশিদ শুনেন। ভালো! খারাপ না। সেটাকে ইসলামিক গান বলেন। একটা Message কিংবা The Lion of the Desert ফিল্ম যে কত মানুষকে মুসলমান করেছে তা তারা অগ্রাহ্য করবেন হয়তো!
আমি মনে করি তিনি ঠিকই করেছেন। হ্যাঁ, এ লেখার জন্য আপনারা আমার সমালোচনা করবেন। করুন, আমি তা শুনতে প্রস্তুত। তবে প্লিজ উনাকে কাফির ফতোয়া দেবেন না। সুফিয়ান ইবনে উয়াইনাহ (রাহঃ) ও আব্দুলাহ ইবনে মোবারাক (রাহঃ) এর উদাহরণ অকারণে আনবেন না।
আল্লাহ কা’বাহর ইমাম শাইখ কালবানীকে উত্তম যাজা দান করুন।উলামায়ে কেরামের মর্যাদা- শান বৃদ্ধি করুন। কা’বাহ ঘরে সালাত আদায় ও তাওয়াফ করার তাওফিক দান করুন।
আমিন।
আ বু সা ঈ দ আ ন সা রী
নভেম্বর ২৭, ২০২১।। পশ্চিম লন্ডন, ইংল্যান্ড।


  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  

আরও পড়ুন

সিসি ক্যামেরার আওতায় নগর ভবন

        সিলেট এক্সপ্রেস ডেস্ক: সার্বিক নিরাপত্তা...

সৌদিতে সড়ক দূর্ঘটনায় গোলাপগঞ্জের ২জন নিহত,

         সৌদিতে সড়ক দূর্ঘটনায় গোলাপগঞ্জের...

খারপাড়া মিতালী সমাজকল্যান উন্নয়ন পরিষদের কমিটি গঠন

        সিলেট এক্সপ্রেস ডেস্ক: খারপাড়া মিতালী...