কনে নিয়ে মুখোমুখী ভ্রাম্যমাণ আদালতের

,
প্রকাশিত : ০৩ জুলাই, ২০২১     আপডেট : ১১ মাস আগে

অনেকটা নীরবেই বিয়ের আনুষ্ঠানিকতা সেরে গাড়িতে করে সিলেট নগরীর ছড়ারপাড়ের বাসায় ফিরছিলেন জামাল হোসেন। সঙ্গে ছিলেন কনে রিমা বেগমও। তবে কনে নিয়ে বাসায় ফিরলেও এরআগেই মুখোমুখী হতে হয়েছে ভ্রাম্যমাণ আদালতের। জরিমানা করা হয়েছে ১০ হাজার টাকা। নির্বাহী ম্যাজিস্ট্রেট এরশাদ আলী এই দন্ডাদেশ দেন। গতকাল শুক্রবার সিলেট নগরীর প্রবেশদ্বার হুমায়ুন রশিদ চত্বরে এ ঘটনা ঘটে।

সরেজমিন দেখা যায়, লাল বেনারসি পরা নববধূকে নিয়ে একটি নোহা মাইক্রোবাসে বসা ছিলেন বর। তারা ফিরছিলেন নগরীর মুমিনখলা থেকে। বর-কনেসহ গাড়িতে ছিলেন ৯ যাত্রী। লকডাউন ভাঙার কারণ জিজ্ঞেস করলেও সদুত্তর দিতে পারেননি তারা। তখন বরের সঙ্গীয় যাত্রী সার্জেন্ট হাসানের কানে ফোন তুলে দেন। তিনি কথা বলে জানান, ওখানে মিডিয়া ও থানার লোকজন উপস্থিত, আমার কিছুই করার নেই।

সিলেট মহানগর পুলিশের দক্ষিণ সুরমা থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা (ওসি) মনিরুল ইসলাম বলেন, কঠোর লকডাউন অমান্য করে বিয়ের আয়োজন করায় ভ্রাম্যমাণ আদালতের নির্বাহী ম্যাজিস্ট্রেটকে তলব করা হয়। নির্বাহী ম্যাজিষ্ট্রেট এরশাদ আলী বর কনেকে লকডাউন ভাঙার অভিযোগে ১০ হাজার টাকা জরিমানা করেন।


পরবর্তী খবর পড়ুন : জাল টাকাসহ দু’জনকে আটক

আরও পড়ুন

রহমানিয়া প্রতিবন্ধী কল্যাণ ফাউন্ডেশনের শীতবস্ত্র বিতরণ

 রহমানিয়া প্রতিবন্ধী কল্যাণ ফাউন্ডেশনের উদ্যোগে...

সাপোর্ট ওয়ার্ল্ড কাপ ক্রিকেট শুরু হচ্ছে

 সিলেট এক্সপ্রেস ডেস্ক: সিলেটে ২৯...

সিলেটের মহিলা লীগ নেত্রী বিভা রাণী ধর আর নেই

 সিলেট জেলা মহিলা আওয়ামী লীগের...