ইউপি সদস্য ও তার পরিবারকে আইনের আওতায় নেয়ার দাবি

,
প্রকাশিত : ১৮ ফেব্রুয়ারি, ২০২১     আপডেট : ১১ মাস আগে
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  

সিলেটের জকিগঞ্জ উপজেলার বারহাল ইউনিয়নের কোনাগ্রাম ও নয়াগ্রামের সুনাম রক্ষায় ইউপি সদস্য সোবহান ও তার পরিবারের সদস্যদের দ্রুত আইনের আওতায় নেয়ার দাবি জানিয়েছেন ওই দুই গ্রামের বাসিন্দারা। তারা বলছেন, তাদের দুই গ্রামের বাসিন্দাদের মধ্যে রয়েছে দৃঢ় সামাজিক বন্ধন ও সম্প্রীতি। কিন্তু ইউপি সদস্য ও তার সহযোগীদের নানান অপকর্মের কারণে এলাকার সুনাম, খ্যাতি, সম্প্রীতি ও সামাজিক বন্ধন নষ্ট হচ্ছে। এ কারণে তারা এর প্রতিকার চাচ্ছেন। বৃহস্পতিবার সিলেট প্রেসক্লাবে সংবাদ সম্মেলন করে এ দাবি জানিয়েছেন ওই দুই গ্রামের বাসিন্দারা।
লিখিত বক্তব্যে তারা বলছেন, ২০১৬ সালে ইউপি সদস্য নির্বাচিত হওয়ার পর থেকে সোবহান এলাকায় তার আধিপত্য বিস্তার শুরু করেন। তিনি বহিরাগত লোকদের দিয়ে সন্ত্রাসী কার্যকলাপও পরিচালনা করে আসছেন। তার এসব অন্যায় কার্যকলাপের বিরুদ্ধে কেউ কথা বললে হামলা, শারীরিক নির্যাতন ও মিথ্যা মামলা দিয়ে হয়রানি করা হয়। এ কারণে কেউ প্রকাশ্যে প্রতিবাদ করতে পারেন না বলেও দাবি করেন গ্রামের বাসিন্দারা।’
লিখিত বক্তব্যে আরও বলা হয়, এসব ছাড়াও এলাকায় মাদকের ব্যবসা থেকে শুরু করে নানা অপকর্ম প্রচলনও শুরু করেন ওই ইউপি সদস্য ও তার পরিবার। এর ফলে দুই গ্রামসহ আশপাশ এলাকার পরিবেশ বিনষ্ট হচ্ছে। এ সকল বিষয়ে কেউ প্রতিবাদ করলে সোবহান ও তার সন্ত্রাসী বাহিনী মিলে ওই লোককে ধরে নিয়ে গিয়ে মারপিট করে মিথ্যে বানোয়াট মামলা দিয়ে হয়রানি করে। এককথায় বলতে গেলে সোবহান তার বাহিনী নিয়ে এলাকায় ত্রাসের রাজত্ব কায়েম করেছে।’
লিখিত বক্তব্যে বলা হয়, ‘এলাকায় বহিরাগত সন্ত্রাসীরা প্রবেশ করে সরকারদলের নেতা পরিচয়ে এলাকা ও প্রশাসনে প্রভাব বিস্তার করে নানা অপরাধ অপকর্ম ও অঘটন চালিয়ে যাওয়ারও চেষ্টা করছে। তাছাড়া সোবহানসহ চিহ্নিত সন্ত্রাসীরা এলাকাজুড়ে জুয়া ও তীর খেলার বোর্ড, ইয়াবার চালান, নারীদের দিয়ে দেহ ব্যবসার মত ন্যাক্কারজনক কাজ পরিচালনা করছে। কিন্ত এলাকাবাসী মিলে তা প্রতিহত করার চেষ্টা চালান। এ কারণে সাধারণ লোকজনকে হয়রানির জন্য বিভিন্ন সরকারি ও বেসরাকারি দফতরে মিথ্যা , ভিত্তিহীন, বানোয়াট, কাল্পনিক কল্প-কাহিনী সাজিয়ে দরখান্ত দাখিল করে এলাকার লোকদের হয়রানি করছে তারা। একই সাথে প্রাণনাশের হুমকিও প্রদান করা হচ্ছে। তাদের এসব কর্মকান্ডের কারণে দুই গ্রামের বাসিন্দারা চরম নিরাপত্তাহীনতাও আছেন। এলাকার সুনাম রক্ষায় মেম্বার সোবহান, তার স্ত্রী-মেয়েসহ সন্ত্রাসীদের বিরুদ্ধে দ্রুত আইনগত ব্যবস্থা গ্রহণের জন্য সংশ্লিষ্টদের কাছে জোর দাবি জানান ওই দুই গ্রামের বাসিন্দাগণ। সংবাদ সম্মেলনে লিখিত বক্তব্য পাঠ করেন মুখলিছুর রহমান।
এ সময় উপস্থিত ছিলেন আলকাছুর রহমান, মাস্টার এখলাছুর রহমান শিকদার, হাফিজ মাওলানা মখলিছুর রহমান, আব্দুল মালেক মলই মিয়া, রকিব মিয়া, নুরুদ্দিন নুরাই মিয়া, আব্দুল হক বখই মিয়া, আব্দুল মুকিত সফিক মিয়া, জয়নুল হক, সাহেদ আহমদ, আব্দুল বাতিন মিয়া, আফতাব উদ্দিন, মাওলানা আব্দুর রাহিম, কয়ছর আহমদ, আব্দুল্লাহ আল রাজু, হেলাল আহমদ আহমদ, বেলাল আহমদ, আব্দুল মুমিন, জহিরুল হক, দিলবার হোসেন, রাজু আহমদ, আরিফ হোসেন প্রমুখ।


  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  

আরও পড়ুন

ছোট্ট বুড়ি ও টুনটুনি

        মোহাম্মদ আব্দুল হক আমি ছোট্ট...

দেশের মানুষের ভেতর বঙ্গবন্ধু ও স্বাধীনতার চেতনা রয়েছে – কামরান

        বাংলাদেশ আওয়ামীলীগের কেন্দ্রীয় কার্যনির্বাহী সদস্য...

সিলেট জেলা কর আইনজীবী সমিতির নির্বাচন কাল

        সিলেট জেলা কর আইনজীবী সমিতির...

যুক্তরাজ্য কমিউনিটি নেতা ফারুক কামালীকে সিলেটে সংবর্ধনা

        সিলেট এক্সপ্রেস ডেস্ক : যুক্তরাজ্য কমিউনিটি...