আনন্দ নিকেতন,স্কলার্সহোম, বিবিআইএস,খাজাঞ্চিবাড়ি, ক্যন্টনমেন্ট,গ্রামার ও রাইজের অভিভাবক এসোসিয়েশনের কমিটি ঘোষণা

প্রকাশিত : ১৬ নভেম্বর, ২০১৯     আপডেট : ৯ মাস আগে

সিলেটে শিক্ষার পুরনো ঐতিহ্য ফিরিয়ে আনতে ইংরেজি শিক্ষায় শিক্ষিত করে তোলা সহ সিলেটে ইংরেজি শিক্ষার দ্বার প্রসারিত করতে অধিক সংখ্যক শিক্ষার্থীকে সম্পৃক্ত করার লক্ষে হাইকোটের রায়ের আলোকে সকল ইংলিশ মিডিয়াম স্কুল ও কলেজে শিক্ষা ব্যয় কমিয়ে আনা, গুনগত মান বৃদ্ধি করে ক্লাসেই মান সম্পন্ন পাঠদান,অভিভাবকদের সমন্বয়ে ম্যানেজিং কমিটি গঠন,নিরাপদ পরিবেশ তৈরী, স্বস্ব প্রতিষ্ঠানের শিক্ষার্থী,অভিভাবক সহ সকল পক্ষের স্বার্থ অক্ষুন্ন রাখা ও বাস্তবায়নের লক্ষে সিলেটের ইংলিশ মিডিয়াম স্কুল এন্ড কলেজ শিক্ষার্থীদের অভিভাবকদের কমিটি ঘোষণা করা হয়েছে।
১৬ নভেম্বর শনিবার সন্ধা ৭ টায় নগরীর কেন্দ্রীয় মুসলিম সাহিত্য সংসদের সাহিত্য আসর কক্ষে ইংলিশ মিডিয়াম স্কুল অভিভাবক এসোসিয়েশন সিলেটের এক বিশেষ সভায় আনন্দ নিকেতন স্কুলে মন্জুর আহমদকে আহবায়ক,স্কলার্সহোমে মোজাহিদ খাঁন গোলশানকে আহবায়ক,বৃটিশ বাংলাদেশ ইন্টারন্যাশনাল স্কুল এন্ড কলেজে সুলতানা জাহানকে আহবায়ক,দি সিলেট খাজাঞ্চিবাড়ি ইন্টারন্যাশনাল স্কুল এন্ড কলেজে মো. দিদার হুসেন রুবেলকে আহবায়ক, ক্যন্টনমেন্ট পাবলিক স্কুল এন্ড কলেজে সৈয়দা তানিয়া আহমদকে আহবায়ক,সিলেট গ্রামার স্কুলে এজহারুল হক চৌধুরী মন্টুকে আহবায়ক, রাইজ ইন্টারন্যাশনালে নাদিম আহমেদকে আহবায়ক করে প্রতিটি স্কুলে ১০১ সদস্য বিশিষ্ট ইংলিশ মিডিয়াম স্কুল অভিভাবক এসোসিয়েশন গঠন করা হয়। এই সভায় শাখা কমিটি গুলো ঘোষণা করেন অভিভাবক এসোসিয়েশনের সভাপতি মাহবুব চৌধুরী।
সভাপতির বক্তব্যে মাহবুব চৌধুরী বলেন,সকল স্কুলকে শিক্ষা ব্যয় কমাতে হবে। ছাত্র ছাত্রীদের কে সুযোগ্য নাগরিক হিসেবে গড়ে তুলতে আধুনিক শিক্ষায় শিক্ষিত করতে হবে। গুনগত মান বৃদ্ধি করে ক্লাসেই মান সম্পন্ন পাঠদান নিশ্চিত করতে হবে। শিশু শিক্ষার্থীদের বইয়ের বোঝা কমাতে শিক্ষকদের কৌশল বের করার আহবান জানান। প্রযুক্তিগত শিক্ষায় সিলেটের স্কুল গুলো এখনও অনেক পিছিয়ে রয়েছ। এ ক্ষেত্রে ম্যানেজিং কমিটি ও অভিভাবকদের আরো সোচ্চার হওয়ার আহ্বান জানান।
এসোসিয়েশনের যুগ্ম সাধারণ সম্পাদক নজরুল ইসলামের পরিচালনায় বক্তব্য রাখেন, সহ-সভাপতি মঞ্জুর আহমদ,ও মোজাহিদ খাঁন গোলশান, মাওলানা নেয়ামত উল্লাহ, নোমান আহমদ, শফিকুল ইসলাম, মো. দিদার হুসেন রুবেল, আলহাজ¦ মো. তারা মিয়া, মো. নুরুজাম্মান, সৈয়দ কামাল আহমদ শাহজাহান, সৈয়দা তানিয়া আহমদ, সুবেন্ধু শেখর জাল, মঈন উদ্দিন, নিশাত চৌধুরী, মাসুম আহমদ, সায়েম আহমদ রনি প্রমুখ।

সভায় প্রতিষ্ঠান কেন্দ্রীক শাখা কমিটি গুলো অনুমোদন দেয়া হয়। জানুয়ারী ২০২০ সেশনের শুরুতে সিলেট খাজাঞ্চিবাড়ি স্কুল এন্ড কলেজ, স্কলার্সহোম,ক্যন্টনমেন্ট পাবলিক স্কুল এন্ড কলেজকে হাইকোটের রায় মেনে ও গত ১১ ফেব্রোয়ারীর জেলা প্রশাসনে সভার সিদ্বান্তের আলোকে সেশন ফি বা রিএডমিশন ফি বা অন্য কোন নামে ফি নামীয় বেআইনি অর্থ আাদায় না করতে অনুরোধ জানানো হয়। অন্যতায় কঠোর আইনানুগ ব্যবস্থা নেয়া হবে। যারা এখনও রায় লংঘন করে চলছেন তাদেরকে অচিরেই আইনের কাঠগড়ায় দাড়ানোর ব্যবস্থা করা হবে দায়িদেরকে শান্তি পেতে হবে।
আনন্দ নিকেতনকে বাৎসরিক ফি কমিয়ে আনায় ধন্যবাদ জানিয়ে মাসিক ফি কমিয়ে আনার অনুরোধ জানানো হয়। বিবিআইএস কে পাঠ্য বই পরিবর্তন করে গুনগত মান বৃদ্ধি করায় ধন্যবাদ জানানো হয়। রাইজকে অতিরিক্ত ফি আদায় বন্ধের আহবান জানিয়ে অবিলম্বে ম্যানেজিং কমিটি গঠন করার অনুরোধ জানানো হয় বিজ্ঞপ্তি।

আরও পড়ুন

র‌্যাবের অভিযান, বিপুল পরিমাণ মাদকসহ আটক ১

সিলেট নগরীর কাষ্টঘরে অভিযান চালিয়ে...

দিরাই বিএনপি নেতা আনোয়ার চৌধুরীর ইন্তেকাল

  ⚪ বাংলাদেশ জাতীয়তাবাদী দল...