আল্লাহ আমাদের ঈমানকে বাড়িয়ে দিন

প্রকাশিত : ০৮ জুলাই, ২০২০     আপডেট : ১ মাস আগে

আবুসাঈদ আনসারী : করোনাকালীন সময়। মানুষ দিশেহারা। যে যার মতো স্রষ্টাকে ডাকছেন। অনেকই ধর্মের প্রতি ধাবিত হয়েছেন। এ সময়ে ফেইসবুকের মাধ্যমে বাংলাদেশের কোনো এক টিভি চ্যানেলে দেখলাম, এক বিরা…ট গোঁফওয়ালা মুসলমান ভদ্রলোক ইসলামের বিরুদ্ধে অভদ্রের মতো কথা বলে চলেছেন। সর্বজন শ্রদ্ধেয় বয়োজ্যেষ্ঠ এক আলিমকে তুচ্ছ তাচ্ছিল্য করতে দেখলাম। হায়! অভদ্রতার একটা সীমা থাকার দরকার ছিলো! জানিনা এটা recent না পুরনো ভিডিও! অনেক সময় পুরনো জিনিসটা social media তে নতুন করে ভাইরাল হয়!

তারপর যা তিনি বললেন, তা কোনো অন্য ধর্মের ভাই বোনদের বলতে শুনিনি! তার মতে অ তে =অজু, আ তে= আজান। ই তে =ইসলাম, ঈ তে= ঈমান। পাঠ্যপুস্তকে এগুলো শেখানোর কারণেই নাকি বড় হয়ে মানুষ হলি আর্টিজোনে হামলা করে। অথচ এগুলো সরকারী স্কুলের কোনো পাঠ্যপুস্তকের পাঠ্য নয়। অজু পরিষ্কার পরিচ্ছন্নতার জন্য আমরা করে থাকি। নামাজ অজু ছাড়া হয় না।

কোনো নামাজী ধর্মপ্রাণ মানুষ অজুর বিরুদ্ধে কথা বলতে পারে না। অজুকারী যখন অজু করে তার শরীর ধৌত করে তখন তার অঙ্গ থেকে গুনাহগুলো ঝরে ঝরে পড়ে। জিরোজালেমে দেখলাম Western Wall এ ঢুকার আগে ইয়াহুদীরাও হাত মুখ ধৌত করে শরীর পুরো ঢেকে পুরুষ এবং মহিলারা আলাদা ভাবে তাদের আলাদা উপাসনার স্হানে যাচ্ছেন। প্রতিটি ধর্মে পরিষ্কার পরিচ্ছন্নতার জন্য তাগিদ দেয়া হয়েছে। হিন্দু ভাইবোনরা কেনো গঙ্গা স্নান করেন?

আজান, হায়! মুসলমান জন্ম নিলেইতো সে আজান শুনে। ঐ ভদ্রলোকের জন্মের সময় আজান দেয়া হয়েছে কিনা কে জানে? সিলেটের একজন শিল্পী আছেন, হিমাংসু দা, সিলেট রেডিওতে সেই ছোট বেলা থেকে শুনে আসছি তার কন্ঠে গান, ‘সিলেট প্রথম আজান ধ্বনি বাবায় দিয়াছে’। তার আগে স্বাধীন বাংলা বেতার কেন্দ্রের শিল্পী বিদিত লাল দাস গানটা গেয়েছেন।

পূব থেকে পশ্চিম, উত্তর থেকে দক্ষিণ প্রতিদিন মিলিয়ন মিলিয়ন টাইমস এ আজান উচ্চারিত হয় পৃথিবীতে। মানুষ মারা যাবার পরও এ পৃথিবীর আজান শুনতে চায়, যেমনটি কাজী নজরুল ইসলাম বলেছেন, ‘মসজিদেরই পাশে আমায় কবর দিও ভাই, যেন গোরের থেকে মুয়াজ্জিনের আজান শুনতে পাই।’ সে জাতীয় কবির আজান শুনার আকুতি আজ অপমানিত। এই লোকটা জাতীয় কবির চেতনায়ও আঘাত দিলো!

ইসলাম, যার মূল হলো শান্তি। কিছু অপরাধীর জন্যে আপনি এ ধর্মের অবমাননা কেনো করবেন? ইসলাম মানুষকে যা দিতে পেরেছে তা কি আপনাদের অন্য কোনো আদর্শ দিতে পারলো? আর ঈমান না শিখিয়ে কি বেঈমানী শিখালে ভালো হতো? আপনার ঈমান থাকলে আপনি এসব কথা এভাবে বলতে পারতেন না।

আল্লাহ আমাদের ঈমানকে বাড়িয়ে দিন, বেঈমানী থেকে বাঁচান,
করোনাভাইরাস থেকে রক্ষা করুন।

আমিন।

আবুসাঈদ আনসারী
লন্ডন
০৭।০৭।২০২০

আরও পড়ুন