আনজুমানে খেদমতে কুরআনের সীরাতুন্নবী (সাঃ) মাহফিল

প্রকাশিত : 23 November, 2019     আপডেট : ২ সপ্তাহ আগে  
  

বিশিষ্ট ইসলামী চিন্তাবিদ, আলোচক ও মিডিয়া ব্যক্তিত্ব মাওলানা শাহ ওয়ালীউল্লাহ বলেছেন, মহান আল্লাহ তাআলা সর্বকালের সর্বশ্রেষ্ঠ মহামানব মানবতার মুক্তির দূত হযরত মুহাম্মদ (সাঃ) এর আদর্শকেই মানব জাতির একমাত্র অনুস্মরণীয় আদর্শ হিসেবে মনোনীত করেছেন। ব্যক্তিগত জীবন থেকে শুরু করে রাষ্ট্রীয় পর্যায় পর্যন্ত শান্তি প্রতিষ্ঠায় মহানবী (সাঃ) কে অনুসরণের বিকল্প নেই। প্রতিটি মুসলমানকে দোলনা থেকে কবর পর্যন্ত জীবনের প্রত্যেকটি পর্যায়ে রাসুলের দেখানো পথে ও তার আদর্শ অনুস্মরণ করে চলা উচিত। রাসুল (সাঃ) এর আদর্শ থেকে দুরে সরে যাওয়ার কারণে শ্রেষ্ঠ মুসলিম জাতি আজ বিশ^ব্যাপী নির্যাতিত-নিপীড়িত ও লাঞ্চিত জাতিতে পরিনত হয়েছে। আমরা যদি কুরআন ও নবীজী (সাঃ) এর সুন্নাহকে আকড়ে ধরতে পারি তাহলে পরকালিন মুক্তি ও ইহকালিন সাফল্য সম্ভব হবে। শুধু রবিউল আউয়াল মাস নয়, জীবনের প্রতিটি দিনে প্রতিটি ক্ষণে নবীজী (সাঃ) কে অনুস্মরণের মধ্যে মুসলিম উম্মাহর সর্বাঙ্গীন মঙ্গল ও সফলতা নিহিত রয়েছে।

তিনি শনিবার আন্ধসঢ়;জুমানে খেদমতে কুরআন সিলেট আয়োজিত সীরাতুন্নবী (সাঃ) মাহফিলে প্রধান অতিথির বক্তব্যে উপরোক্ত কথা বলেন। আনজুমানে খেদমতে কুরআন সিলেট-এর সভাপতি প্রফেসর সৈয়দ মাওলানা ইকরামুল হক এর সভাপতিত্বে এবং  সেক্রেটারী হাফিজ মাওলানা মিফতাহুদ্দীন ও সহকারী সেক্রেটারী মাওলানা ড. এএইচএম সুলায়মানের যৌথ পরিচালনায় অনুষ্ঠিত মাহফিলে আলেমে দ্বীন, শিক্ষাবীদ, ছাত্র সহ বিভিন্ন শ্রেনী পেশার মানুষ উপস্থিত ছিলেন।

নগরীর দরগাগেইটস্থ কেন্দ্রীয় মুসলিম সাহিত্য সংসদ কেমুসাসের শহীদ সুলেমান হলে অনুষ্ঠিত মাহফিলে বিশেষ অতিথি হিসেবে বক্তব্য রাখেন, এমসি কলেজের অর্থনীতি বিভাগের সাবেক বিভাগীয় প্রধান প্রফেসর ড. মুহাম্মদ আব্দুল আহাদ, বিশিষ্ট আলেমে দ্বীন প্রিন্সিপাল হযরত মাওলানা আব্দুল সালাম আল-মাদানী, সিলেট কৃষি বিশ^বিদ্যালয়ের অধ্যাপক ড. এ.টি.এম মাহবুব ই-এলাহী ও শাহজালাল জামেয়া ইসলামিয়া কামিল মাদরাসা পাঠানটুলার প্রিন্সিপাল মাওলানা লুৎফুর রহমান হুমায়দী। শুরুতে স্বাগত বক্তব্য রাখেন বিশিষ্ট আলেমে দ্বীন অধ্যক্ষ মাওলানা আব্দুল হালিম। আলোচনা পেশ করেন হযরত মাওলানা মাহমুদুর রহমান দিলাওয়ার।

উপস্থিত ছিলেন, বিশিষ্ট আলেমে দ্বীন হযরত মাওলানা আব্দুল মতিন চৌধুরী শাহবাগী, উপাধ্যক্ষ মাওলানা সৈয়দ ফয়জুল্লাহ বাহার, মাওলানা মখছুছুল করিম চৌধুরী ও হাফেজ মাওলানা মাহবুবুর রহমান জালালাবাদী।

সভাপতির বক্তব্যে প্রফেসর সৈয়দ মাওলানা ইকরামুল হক বলেন, আল্লাহ পাক রাব্বুল আল-আমীন বিশ^ব্যাপী দিকভ্রান্ত, দিশেহারা, অসহায় ও নির্যাতিত-নিপীড়িত মানবজাতির মুক্তিদূত হিসেবে বিশ^নবী (সাঃ) কে দুনিয়াতে প্রেরণ করেন। আমাদের পূর্নাঙ্গ জীবন পরিচালনার গাইডলাইন হিসেবে দিয়েছেন মহানবী (সাঃ) এর জীবনাদর্শ। এই আদর্শ থেকে বিচ্যুতি ঘটলেই আমাদের ধ্বংস অনিবার্য। বর্তমানে তাই হচ্ছে। আমাদেরকে বিশ^নবী (সাঃ) এর আদর্শের দিকে ফিরে আসতেই হবে। তাহলে জীবনের প্রতিটি ক্ষেত্রে শান্তি প্রতিষ্ঠার পাশাপাশি পরকালের মুক্তির পথ সুদৃর হবে।

্হনংঢ়;

আরও পড়ুন